২৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার, ১৪ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২১শে সফর, ১৪৪৩ হিজরি

শিরোনামঃ-
  • হোম
  • রাজনীতি
  • আওয়ামী লীগের ধর্মনিরপেক্ষতার কথা কেবল মুখের বুলি: খালেদা

আওয়ামী লীগের ধর্মনিরপেক্ষতার কথা কেবল মুখের বুলি: খালেদা

Khorshed Alam Chowdhury

আপডেট টাইম : মে ২২ ২০১৬, ০৩:০৭ | 651 বার পঠিত

15121_02নয়া আলো- আওয়ামী লীগ মুখে ধর্ম নিরপক্ষেতার কথা বললেও বাস্তব চিত্রটা ভিন্ন বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। তিনি বলেন, তারা ধর্ম নিরপক্ষেতা বিশ্বাস করেনা। তাই যদি হতো তাহলে সকল ধর্মের মানুষকে হত্যা করতো না। তাদের মনে যে কি আছে তা জানা কঠিন। আওয়ামী লীগ দেশটাকে সম্পূর্ণ ধ্বংস করে দিয়ে প্রয়োজনে নিরাপত্তার খাতিরে দেশ ছেড়ে চলে যাবে। তাই সময় এসেছে সকলকে এক হওয়ার। চেয়ারপারসনের গুলশানের রাজনৈতিক কার্যালয়ে রাতে বুদ্ধ পূর্ণিমা উপলক্ষে শুভেচ্ছা বিনিময় অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। বিএনপি চেয়ারপারসন বরেন, বিএনপি সকল ধর্মের স্বাধীনতায় বিশ্বাসী। কিন্তু বর্তমানে দেশে অশান্ত পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে। আমরা চাই শান্তি, ঐক্য ও প্রতিবেশীর সঙ্গে সুসম্পর্ক। কারণ সমস্যার সমাধান মারামারিতে নয়, সমাধান করতে হয় আলাপ-আলোচনায়। আর দখল ও হত্যা আওয়ামী শাসকদলের জন্য নতুন কিছু নয়। স্বাধীনতার পর রাষ্ট্রক্ষমতায় থেকেও তারা দখল, হত্যা ও নির্যাতন চালিয়েছে। বর্তমানে দেশে কোনো ধর্মের মানুষের নিরাপত্তা নেই। এখন পর্যন্ত যত লোক হত্যা হয়েছে তার হত্যাকারীদের কেউ কি গ্রেপ্তার হয়েছে? গ্রেপ্তার করা হয়নি কারণ এই সকল অপরাধীরা তাদেরই দলীয় লোক। এদের ধরেনি হয়তো এরা বাংলাদেশেও নেই। খালেদা জিয়া বলেছেন, দেশটা আওয়ামী লীগের পৈতৃক সম্পত্তি হয়ে গেছে অথচ মুক্তিযুদ্ধের সময় স্বাধীনতার ঘোষণা দিতে তারা সাহস পায়নি। আওয়ামী লীগ সীমান্ত পাড়ি দিয়েছে আর স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়ে যুদ্ধ করেছেন জিয়াউর রহমান। কিন্তু যুদ্ধ না করে তারা এখন মুক্তিযোদ্ধা। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি ইঙ্গিত করে খালেদা জিয়া বলেন, তিনি সব সময় পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হতে চেয়েছেন। বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ চাননি। বাংলাদেশের মানুষ স্বাধীনতা যুদ্ধ করেছেন এবং দেশ স্বাধীন করেছেন। নির্বাচন কমিশনের কঠোর সমালোচনায় খালেদা জিয়া বলেন, এরা অপদার্থ। বোবা ও কালা। সম্প্রতি বলেছে নির্বাচন সুষ্ঠু করতে ট্যাঙ্ক লাগে। তাই বলছি জাতীয় নির্বাচন নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে করতে হবে। তখন সেনাবাহিনীও মোতায়েন লাগবে কারণ সেনাবাহিনীর কাছেই তো ট্যাঙ্ক থাকে। তিনি বলেন, দেশে এখন গণতন্ত্র আইনের শাসন, মানবাধিকার, কথা বলার স্বাধীনতা নেই। ভিন্ন মত প্রকাশ করলেই মামলা, জেলে নিয়ে নির্যাতন শুরু হয়ে যায়। ভোটের অধিকার কেড়ে নিয়ে একলা থাকবে, কোনো দল থাকবে না। দেশটা ধ্বংস করে দিয়ে যাবে আর আমরা শুধু চেয়ে থাকবো আকাশের দিকে তা হতে পারে না। বুদ্ধ পূর্ণিমা উপলক্ষে বাংলাদেশের বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। শুভেচ্ছা বিনিময়ের শুরুতেই বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের পক্ষ থেকে খালেদা জিয়াকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়। তখন খালেদা জিয়াও আয়োজিতদের বুদ্ধ পূর্ণিমার শুভেচ্ছা জানান। শুভেচ্ছা বিনিময়ে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, সহ-ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক এ্যাডভোকেট দীপেন দেওয়ান ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর ড. সুকোমল বড়ুয়া বক্তব্য দেন। এছাড়াও বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্ঠা মে. জে. (অব.) রুহুল আলম চৌধুরী, কেন্দ্রীয় নেতা গোলাম আকবর খোন্দকার, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মাসুদ আহমেদ তালুকদার, সু মঙ্গল ভিক্ষু, সাচিং ভ্র জেরী, দয়া নন্দ ভিক্ষু, শান্তি রক্ষিত থের, সুশীল বড়ুয়া, চন্দ্রগুপ্ত বড়ুয়া, প্রবীণ চন্দ্র চাকমা, সনত তালুকদার উপস্থিত ছিলেন।

Please follow and like us:

পাঠক গনন যন্ত্র

  • 4729968আজকের পাঠক সংখ্যা::
  • 3এখন আমাদের সাথে আছেন::

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৮৮০৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com নিউজ রুম।

Email-Cvnayaalo@gmail.com সিভি জমা।

 

 

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET