২৫শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শুক্রবার, ১১ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৪ই জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি

শিরোনামঃ-
  • হোম
  • অপরাধ দূনীর্তি
  • আগৈলঝাড়ায় ঠিকাদারের গাফিলতি ও দায়িত্বহীনতার কারনে এলজিইডি’র ব্রীজ দেবে যান চলাচল বন্ধের পথে।

আগৈলঝাড়ায় ঠিকাদারের গাফিলতি ও দায়িত্বহীনতার কারনে এলজিইডি’র ব্রীজ দেবে যান চলাচল বন্ধের পথে।

প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

আপডেট টাইম : নভেম্বর ০৬ ২০১৬, ২০:৩৭ | 651 বার পঠিত

আগৈলঝাড়া (বরিশাল) সংবাদদাতাঃ
ঠিকাদারের গাফিলতি ও দায়িত্বহীনতার কারনে বরিশালের আগৈলঝাড়ায় খালের মধ্যে একটি কালভার্ট নির্মান করতে গিয়ে পাশের এলজিইডি বিভাগের একটি ব্রীজ দেবে গিয়ে যানবাহন চলাচল বন্ধের পথে। এটি এখন এলাকাবাসীর মরন ফাঁদে পরিনত হয়েছে। ওই স্থানে অহরহ ঘটছে দূর্ঘটনা। কালভার্ট নির্মান করতে গিয়ে পাশের ব্রীজ বিধ্বস্ত হয়ে দূর্ঘটনায় সাংবাদিকসহ প্রায় ২০ জন আহত হয়েছেন। এ ব্যাপারে এলজিইডি বিভাগ থেকে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসকে চিঠি দেয়া হয়েছে। সংশ্লিষ্ট প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিস ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার গৈলা ইউনিয়নের দাসেরহাট থেকে সেরাল সড়কের নতুন হাট নামক স্থানে উপজেলা ত্রান ও পূর্নবাসন অধিদপ্তরের আওতায় ২৯ লাখ ৫৭ হাজার টাকা ব্যায়ে কালভার্ট নির্মানের প্রকল্প গ্রহন করেন। তবে টেন্ডারে কোন প্রতিষ্ঠান কাজটি পেয়েছে তা জানাতে অনীহা প্রকাশ করেন উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা শামীমা আক্তার। বর্তমানে কাজটি বাস্তবায়ন করছে গৈলা ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের সদস্য তরিকুল ইসলাম চান। ঠিকাদার চান চলতি বছরের মে মাসের মাঝামাঝি বর্ষা মৌসুমে কালভার্টের কাজ শুরু করেন। ঠিকাদারের গাফিলতি ও দায়িত্বহীনতার কারনে কালভার্ট বেইজ ঢালাইয়ের জন্য দীর্ঘ দিন মাটি খুড়ে রাখায় পাশের এলজিইডির একটি ব্রীজের গোড়ার একাংশ দেবে গিয়ে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। পরে উপজেলা প্রকৌশলী বিভাগ থেকে দেবে যাওয়া ব্রীজের গোড়ায় মাটি দিয়ে কোন রকম মোটর সাইকেল চলাচলের উপযোগী করলেও ব্রীজের দু’পাশে কোন বিপদ চিহ্ন না থাকায় স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রনালয়ের স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও স্থানীয় এমপি আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ’র বাড়ি যাওয়া-আসার পথে রাতের অন্ধকারে প্রায়ই ঘটছে দূর্ঘটনা। শুরু থেকে এ পর্যন্ত ওই স্থানে সাংবাদিকসহ প্রায় ২০ জন মোটর সাইকেল চালক ও আরোহী আহত হয়েছেন। নাম না প্রকাশের শর্তে সেরাল গ্রামের বাসিন্দারা বলেন, অধিক লাভের আশায় ঠিকাদার প্রকল্প বাস্থবায়নে শুরুতেই অনিয়মের আশ্রয় নিয়েছে। কাজ শুরুর পূর্বে গোড়ার অন্য ব্রীজ ও রাস্তার স্থায়ীত্বের জন্য দু’পাশে বেড়া দেয়া, বিকল্প সড়ক নির্মান, সাংকেতিক চিহ্ন এবং রাতে দু’পাশে লাইট দেয়াসহ রাতে লোক রাখার কথা থাকলেও তার কিছুই করেনি ঠিকাদার। এ ব্যাপারে ঠিকাদার ও ইউপি সদস্য তরিকুল ইসলামের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, রাতের জন্য লাইট দেয়াসহ দূঘর্টনা এড়াতে সড়কের দু-পাশে সাংকেতিক চিহ্ন রয়েছে। শ্রীঘ ব্রীজের কাজ শুরু করা হবে। উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা শামীমা আক্তার জানান, বর্ষা মৌসুমে কাজ শুরু করার কারণে অন্য ব্রীজের ক্ষতি হওয়ায় ঠিকাদারকে গালমন্দ করা হয়েছে। এক সপ্তাহের মধ্যে ঠিকাদার কালভার্টের কাজ শুরু না করলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। এ ব্যাপারে উপজেলা এলজিইডি প্রকৌশলী রাজ কুমার গাইন জানান, উন্নয়ন প্রকল্প ত্বরান্বিত করে ব্রীজ সচল রাখতে প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসকে তার দপ্তর থেকে চিঠি দেয়া হয়েছে।

Please follow and like us:

পাঠক গনন যন্ত্র

  • 4594053আজকের পাঠক সংখ্যা::
  • 5এখন আমাদের সাথে আছেন::

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৮৮০৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com নিউজ রুম।

Email-Cvnayaalo@gmail.com সিভি জমা।

 

 

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET