২৫শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শুক্রবার, ১১ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৪ই জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি

শিরোনামঃ-
  • হোম
  • সকল সংবাদ
  • আগৈলঝাড়া থেকে প্রতি মাসে প্রায় আড়াই কোটি টাকার কুইচ্চা রফতানি হচ্ছে বিদেশে।

আগৈলঝাড়া থেকে প্রতি মাসে প্রায় আড়াই কোটি টাকার কুইচ্চা রফতানি হচ্ছে বিদেশে।

প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

আপডেট টাইম : নভেম্বর ০৬ ২০১৬, ২০:৩৯ | 627 বার পঠিত

এস এম শামীম, আগৈলঝাড়া (বরিশাল)ঃ
বরিশালের আগৈলঝাড়া থেকে প্রতি মাসে বিদেশে রপ্তানী হচ্ছে কমপক্ষে আড়াই কোটি টাকার এলফিস বা কুইচা বা কুইচ্চা মাছ। এ পেশার সাথে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে জড়িয়ে নিজেদের ভাগ্য ফিরিয়েছে উপজেলার সহস্রাধিক পরিবার। কুইচ্চা আহরণ ও বিপননের সাথে জড়িয়ে তারা এখন স্বাবলম্বী হয়ে উঠেছে। স্থানীয় বাজারের চাহিদা মিটিয়ে রপ্তানী হচ্ছে বিদেশে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানাগেছে, উপজেলার রাজিহার, বাশাইল, চেঙ্গুটিয়া, বাটরা, গৈলা, সাহেবেরহাট, মোল্ল¬াপাড়া, পয়সারহাট, বড়মগড়া, কারফাসহ বিভিন্ন এলাকায় কুইচ্চা সংগ্রহ হয় বেশি। সাধারণত জলাবদ্ধ এলাকা গুলোতে কুইচ্চা বেশী পাওয়া যায় বলে কুইচ্চা শিকারীরা জানান। অঞ্চলভেদে কুচিয়া, কুঁচে, কুইচ্চা, বাইম নামেই পরিচিত। এর বৈজ্ঞানিক নাম মনোপটেরাস। কুইচ্চা ৬০ থেকে ৭০ সেন্টি মিটার লম্বা হয়। অ-গভীর খাল-বিল, হাওর-বাওর, পুকুর ও মাটির নিচে আবাস এদের। কুইচ্চা রাক্ষুসে স্বভাবের। খাদ্য হিসেবে প্রধানত ছোট মাছ তাদের প্রধান খাবার হলেও শামুকও অন্যতম খাবার। তাই কুইচ্চা খেতেও বেশ সুস্বাদু হওয়ায় স্থানীয়ভাবেও কুইচ্চার বেশ চাহিদা রয়েছে। এটাকে মাছ হিসেবেই গ্রহন করছেন স্থানীয়রা। এমনকি ডাক্তাররা রক্ত শুন্যতার জন্য রোগীদের ব্যবস্থাপত্রের সাথে কুইচ্চা খাবারের পরামর্শ দিয়ে থাকেন। তাই বিদেশেও রয়েছে কুইচ্চার ব্যাপক চাহিদা। বিদেশে কুইচ্চার ব্যাপক চাহিদা থাকায় স্থানীয় চাহিদা মিটিয়ে বিদেশে রপ্তানী হচ্ছে ব্যাপকভাবে। রপ্তানীর ফলে আয় হচ্ছে প্রচুর বৈদেশিক মূদ্রা। বাঁশের তৈরী চাঁই (এক ধরনের ফাঁদ বিশেষ) দিয়ে কুচিয়া শিকার করে থাকে শিকারীরা। এছাড়াও জাল, বড়শি ও বাঁশের তৈরি এক ধরনের হাতিয়ার দিয়ে কুইচ্চা শিকার করা হয়। অনেক শিকারি আছেন, যারা খালি হাতেও কুইচ্চা ধরতে পারেন। সাধরনত নিম্মবিত্ত বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ সংসারের বাড়তি আয়ের জন্য এ পেশায় গিয়ে এখন স্থায়ীভাবেই জড়িয়ে পরেছেন কুইচ্চা শিকারের পেশায়। রাজিহার গ্রামের কুইচ্চা শিকারি সুশীল বিশ্বাস জানায়, প্রতিদিন সে কুইচ্চা ধরে ৪শ থেকে ৫শ টাকা আয় রোজগার করছে। যা দৈনিক শ্রম বিক্রি করে আয় করা সম্ভব না। কুইচ্চা বিক্রি করে স্বচ্ছলতা ফিরে এসেছে তার পরিবারসহ তার সহকর্মীদের পরিবারেও। সাধারণত বর্ষা মৌসুমে কুইচ্চা বেশী পাওয়া যায়। শীত মৌসুমে গর্তে ঢুকে যায় কুইচ্চা। তবে মধ্যস্বত্বভোগী ব্যবসায়ীদের কারণে তারা আহরণকৃত কুইচ্চার ন্যায্য মূল্য থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। স্থানীয় দাদন ব্যবসায়ীরা কুইচ্চা শিকারের চাই, ফাঁদসহ আনুসাঙ্গিক সরঞ্জাম কেনার জন্য মোটা অংকের দাদন দিয়ে তাদের কাছ থেকে ব্যবসায়ীদের নির্ধারিত মূল্যে কুইচ্চা কিনছে। ফলে বাজারে বেশী দাম থাকা সত্তেও ২শ ৫০ টাকা থেকে ৩শ টাকা কেজি দরে দাদন ব্যবসায়ীদের কাছে কুইচ্চা বিক্রি করতে বাধ্য করা হয় শিকারীদের। গ্রামগঞ্জ থেকে আহরনকৃত কুইচ্চা প্লাষ্টিক ড্রামে করে বিক্রির জন্য মোকামে নিয়ে আসা হয়। সেখানে প্রক্রিয়ার মাধ্যমে সংগ্রহকরা কুইচ্চা পাইকাররা ট্রাকে নিয়ে যায় ঢাকায়। উপজেলার গৈলা, আগৈলঝাড়া সদর, পয়সারহাট, সাহেবেরহাট অন্যতম। এসব মোকাম থেকে ঢাকার বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কাছে পাইকাররা তা বিক্রি করে ৪শ থেকে ৫শ টাকায়। পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষাকারী কুইচ্চা অহরহ শিকারের ফলে দিন দিন এর সংখ্যা কমে যাচ্ছে। ফলে পরিবেশের উপর বিরুপ প্রভাব পরছে বলেও পরিবেশবাদীরা জানান। উপজেলার গৈলা রথখোলা বাসস্টান্ডের মৎস ব্যবসায়ী প্রদীপ বাড়ৈ জানান, আগৈলঝাড়া থেকে প্রতি সপ্তাহে ড্রামে ভরে পাঁচ থেকে সাত ট্রাক কুইচ্চা ঢাকায় পাঠানো হয়। প্রতি ট্রাকে ১৫ থেকে ২০ ড্রাম কুইচ্চা থাকে। একেক ড্রামে থাকে ১৮০ থেকে ২০০ কেজি কুইচ্চা। ৩০০ টাকা কেজি হিসেবে এ মাছের মূল্যে দাঁড়ায় প্রায় ৬০ লাখ টাকা। প্রতি মাসে আগৈলঝাড়া থেকে ২ কোটি ৪০ লাখ টাকার কুইচ্চা ঢাকার বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কাছে বিক্রি করা হয়। কুইচ্চা শিকারীরা জানান, বানিজ্যিকভাবে কুইচ্চা চাষ করা হলে আরও বেশি উৎপাদন হত। দুস্থ পরিবারগুলো স্বাবলম্বী হওয়ার পাশাপাশি দেশ আয় করত অভাবনীয় বৈদেশিক মূদ্রা।

Please follow and like us:

পাঠক গনন যন্ত্র

  • 4594042আজকের পাঠক সংখ্যা::
  • 6এখন আমাদের সাথে আছেন::

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৮৮০৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com নিউজ রুম।

Email-Cvnayaalo@gmail.com সিভি জমা।

 

 

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET