১৮ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, রবিবার, ৫ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৫ই রমজান, ১৪৪২ হিজরি

শিরোনামঃ-

ইতিহাস ও ঐতিহ্যে ঘেরা মাদ্রাসা শর্শাদি দারূল উলূম

Khorshed Alam Chowdhury

আপডেট টাইম : অক্টোবর ১২ ২০১৬, ১৬:৪৯ | 890 বার পঠিত

2016-10-07-18-24-18-1মোঃ রিয়াদ হোসেন, ফেনী সদর প্রতিনিধি :
আল জামিয়া আল ইসলামিয়া দারুল উলূম শর্শদি মাদ্রাসাটি একটি কাওমী মাদ্রাসা ; যা ফেনী সদর উপজেলার শর্শদি ইউনিয়নের শর্শদিতে অবস্থিত। এটি প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল ১৯৪৩ সালে (হিজরী ১৩৬৪) মোতাবেক। এটি ফেনী জেলায় অবস্থিত অন্যান্য কাওমী মাদ্রাসাগুলোর মধ্যে প্রাচীনতম মাদ্রাসা হিসেবে সুপরিচিত। আল জামেয়া আল ইসলামিয়া জমিরিয়া পটিয়া মাদ্রাসার  কার্যক্রম অনুসারে এই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানটি কার্যক্রম পরিচালিত হয় । সারা বাংলাদেশে ভালো ফলাফল করা এই মাদ্রাসার বর্তমান লেখা-পড়ার মান অনেক উন্নত। বাংলাদেশ আনজুমানে ইত্তেহাদুল মাদারিস কওমি মাদ্রাসা বোর্ডর অধীনে প্রতি বছর পরীক্ষায় অংশগ্রহন করে নিজেদের স্থান নিশ্চিত করছে এই প্রতিষ্ঠান। তাছাড়াও বেফাকুল মাদারিস কওমি মাদরাসা বোর্ডর অধীনেও এই মাদ্রাসার ছাত্ররা অংশগ্রহন করে সাফল্য অর্জন করে আসছে।

ইলমে দ্বীনের সংরক্ষণ ও তার ব্যাপক প্রচার প্রসারের মাধ্যমে, সমাজের সর্বস্তরে আহকামে খোদাওয়ান্দী ও সুন্নাতে নববী প্রতিষ্ঠা,  নিয়মতান্ত্রিক তা’লীম তবিয়তের মাধ্যমে হক্কানী আলেম এবং দ্বীনের দায়ী তৈরী করার লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য নিয়ে মাদ্রাসাটি প্রতিষ্ঠিত হয়।

আলহাজ্ব হযরত মাও: শাহ সূফী নূর বখশ (রহঃ) ও হযরত মাও: নজীর আহমদ শহীদ (রহঃ) কর্তৃক ১৯৪৩ সালে প্রতিষ্ঠার পর থেকে আল জামিয়া আল ইসলামিয়া দারুল উলূম ৭৩ বছর সুদীর্ঘ পথ অতিক্রম করে এসেছে। মুসলিম উম্মাহ’র স্বার্থে এই প্রতিষ্ঠানটি এখনো সংগ্রাম করে যাচ্ছে। মাদ্রাসিটিকে কেন্দ্র করে এই অঞ্চলে বহু মাদ্রাসা, মক্তব, মসজিদ ও ইসলামিক বই ঘর প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। ইতিহাস ও ঐতিহ্যের বিবেচনায় এখানে রয়েছে প্রায় ৪’শ বছরের পুরনো মসজিদ। কম-বেশি প্রতিদিনই এই দর্শনীয় মসজিদটি দেখতে আসা দর্শনার্থীদের দেখা মিলে।আপনারাও আসতে পারেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রত্নতত্ত্ব অধীদপ্তরের রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্বে থাকা এই মসজিদটি দেখতে।

তাছাড়া এই মাদ্রাসার উদ্যোগে প্রতি বছর তাফসীরুল কোরআন মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।মাহফিলস্থল হাজার-হাজার মুসল্লিদের অংশগ্রহনে কানায় কানায় ভরে উঠে।আসছে ২০১৭ সালের ২৭ ও ২৮ শে জানুয়ারি রোজ শুক্র ও শনিবার পরবর্তী মাহফিলের দিন ধার্য করেছে মাহফিল বাস্তবায়ন কর্তৃপক্ষ। এতে দেশবরেণ্য বহু ওয়ামায়ে কেরাম বয়ান পেশ করবেন।

নববী শিক্ষার আলোকে প্রতিটি মানুষকে ইনসানে কামেল রুপে গড়ে তোলার জন্য মাদ্রাসার সুদূর প্রসারী শিক্ষা প্রকল্পের অধীনে বেশ কয়েকটি বিভাগ রয়েছে। এরমধ্যে  আকর্ষণীয় নূরানী বিভাগ, কেরাত বিভাগ, হিফজ বিভাগ, পূর্ণাঙ্গ কিতাব বিভাগ, ফতওয়া বিভাগ ও দাওয়াত বিভাগ অন্যতম। প্রতিষ্ঠানটিতে প্রায় ৯০০ জন ছাত্রের জন্য শিক্ষক রয়েছে ৪৭ জন। সূদীর্ঘ ২৯ বছর মুহতামিম থাকার পর বার্ধক্যজনীত কারনে হযরত মাওঃ নূরুল ইসলাম এনায়েতপুরী (রহঃ) ইন্তেকাল করলে আলহাজ্ব হযরত মাওঃ আল হাফেজ রশীদ আহমদ (দাঃ) মাদ্রাসা পরিচালনার দায়িত্বভার গ্রহণ করেন।উল্লেখ্য: এর পূর্বেও তিঁনি ১০ বছর মুহতামিম হিসেবে মাদ্রাসার দায়িত্ব পালন করেছিলেন। তাছাড়াও তিঁনি একসময় কুয়েতের রাষ্ট্রদূত মসজিদের খতিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। কুয়েতে থাকা অবস্থায় তিঁনি বাংলাদেশের মসজিদ ও মাদ্রাসা নির্মাণসহ বহু উন্নয়নমূলক কাজের জন্য মোটা অংকের অনুদান নিয়ে দেশে আসতেন। বর্তমানে বাংলাদেশে পরিলক্ষিত  কুয়েতি সংস্থার নির্মিত প্রায় ৩’শ মসজিদের স্বপ্নদ্রষ্টাই এই মুহতামিম।কুয়েতি সংস্থার বাংলাদেশের প্রধান হিসেবেও আলহাজ্ব হযরত মাওঃ আল হাফেজ রশীদ আহমদ (দাঃ) সকলের কাছে সুপরিচিত।

Please follow and like us:

পাঠক গনন যন্ত্র

  • 4491836আজকের পাঠক সংখ্যা::
  • 3এখন আমাদের সাথে আছেন::

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৮৮০৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com নিউজ রুম।

Email-Cvnayaalo@gmail.com সিভি জমা।

 

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET