২২শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার, ৮ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৫ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

শিরোনামঃ-




একজন সংগঠক আজাদ সরকার লিটন

খোরশেদ আলম চৌধুরী, স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট।

আপডেট টাইম : নভেম্বর ০৮ ২০২৩, ২১:১৯ | 731 বার পঠিত | প্রিন্ট / ইপেপার প্রিন্ট / ইপেপার

আজিম উল্যাহ হানিফ-
আজাদ সরকার লিটন একজন দক্ষ সংগঠক, লেখক, সমাজসেবক। তিনি ১৯৭৭ সালের ১১ মার্চ বি-বাড়িয়া জেলার কসবা উপজেলার ১০নং বায়েক ইউনিয়নের চারুয়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। পিতা- মৃত আবদুল গণি মেম্বার, মাতা- মৃত হারিজা খাতুন। পরিবারে ৪ ভাই, ৮ বোনের বিশাল পরিবারে আদর ভালোবাসায় বড় হয়েছেন। বর্তমানে ৩ ভাই ও ১ বোন পৃথিবীতে নাই। তিনি চারুয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে প্রাথমিক শিক্ষা শেষ করে শিক্ষা সদন বায়েক উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি কমপ্লিট করেন। ইন্টারমিডিয়েট পড়েন কসবা কলেজে। ২০০৫ সালে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। লাইফ পার্টনার হলেন-কুমিল্লার বি-পাড়া উপজেলার চান্দলা গ্রামের বড়বাড়ীর রোকসানা সরকার। দাম্পত্য জীবনে চার মেয়ে রয়েছে। বড় মেয়ে আদিবা সরকার ইন্টার ১ম বর্ষে অধ্যয়নরত, মেঝু মেয়ে অনিতা সরকার ৮ম শ্রেনীতে অধ্যয়নরত, সেঝু মেয়ে আনিশা সরকার ৫ম শ্রেনীতে অধ্যয়নরত, ছোট মেয়ে আরিশা সরকার প্লে ক্লাসে অধ্যয়নরত।

১৯৯৭ সালে ‘নবাব ফয়জুন্নেছা ফাউন্ডেশন’ প্রতিষ্ঠা করেন। সাথে ছিলেন নবাব পরিবারের সৈয়দ মো: সায়েদুল হক, আজিজুল হক, রাশিদুল হক, প্রফেসর আমির আলী চৌধুরী, আরো ছিলেন- শান্তিরঞ্জন ভৌমিক, দিলনাশি মোহসেন, পাপড়ী বসু, সাকিনা বেগম, বেগম জোবায়দা হান্নান, তরব আলী, ভাষাসৈনিক আবদুল জলিল প্রমুখ। আজাদ সরকার লিটন হন এই সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক। সেই থেকে আজো দীর্ঘ ২৬ বছর সংগঠনটিকে নেতৃত্ব দিয়ে আসছেন। সংগঠনটির ব্যানারে ফয়জুন্নেছার স্মরণে মোট ৪টা ম্যাগাজিন বের করেন। ২০০৭ সালে ‘কোল্লাপাথর শহীদ স্মৃতি পর্যটন কেন্দ্র বাস্তবায়ন পরিষদ’ গঠন করেন। সংগঠনটিতে তিনি হন আহবায়ক। সাথে পেয়েছেন এডভোকেট আহমেদ আলী, জোবায়দা খাতুন পারুল এমপি, ভাষাসৈনিক আবদুল জলিলকে। সংগঠনটির ব্যানারে দীর্ঘ ১৬ বছরে ম্যাগাজিন বের হয়েছে ৩টি। ২০১৮ সালে প্রতিষ্ঠা করেন ‘নিরাপদ চালক চাই বাংলাদেশ’ নামক সংগঠনটি। তিনি হন সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি। সেক্রেটারি হন বেলায়েত হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক হন রাহাত চৌধুরী। সংগঠনটিতে উপদেষ্টা হিসেবে অনেকের মধ্যে ছিলেন ভাষাসৈনিক আবদুল জলিল, কবি এস এম আবুল বাশার প্রমুখ। সংগঠনটির দীর্ঘ ৫ বছরে একটি ম্যাগাজিন বের হওয়ার কাজ প্রক্রিয়াধীন। নবাব ফয়জুন্নেছা চৌধুরীর লাকসামের বাড়ি সংরক্ষণের জন্য সরকারের কাছে আবেদন করে-গেজেট আকারে ২০১৭ সালে অন্তর্ভূক্ত করা হয়। ফয়জুন্নেছার জন্ম ও মৃত্যু দিবস সরকারি ও জাতীয়ভাবে পালনের আবেদন করে আসছি। সেই সাথে বৃহত্তর কুমিল্লা অঞ্চলে ১৯৯৭ সাল থেকেই পালন করে আসছি।

১৯৯৭ সালে সংগঠনটি যাত্রা শুরুর পক্ষ থেকে এইযাবত কালে নবাব ফয়জুন্নেছার নামে সারাদেশের বিভিন্ন বিশ^বিদ্যালয়, সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে তার নামে কক্ষ, ভবণের নামকরণ করা হয়। আজাদ সরকার লিটন জড়িত আছেন নানান সামাজিক-সাহিত্য-সাংস্কৃতিক সংগঠনের সাথে জড়িত রয়েছেন। সকল যৌক্তিক আন্দোলনে পরোক্ষ ও প্রত্যক্ষভাবে জড়িত তিনি। জড়িত আছেন- কুমিল্লা কবি ফোরামের উপদেষ্টা, উষার আলো সেবা পরিষদের উপদেষ্টা, বিমানবন্দর বাস্তবায়ন কমিটির উপদেষ্টা, কুমিল্লাস্থ বি-বাড়িয়া জেলা কল্যাণ সমিতির সমাজকল্যাণ সম্পাদক, রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির জীবন সদস্য, সুশাসনের জন্য নাগরিক সুজনের নিবার্হী সদস্য, ভোক্তার যুগ্ম সম্পাদক, কমলাঙ্ক সাহিত্য একাডেমির সদস্য, চারুয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সহ-সভাপতি, বাংলা বলয় সাংস্কৃতিক সংগঠনের সদস্য, কবি এস এম আবুল বাশার স্মৃতি সংসদ’র সদস্য, সাংবাদিক সায়েম মাহবুব স্মৃতি সংসদের সদস্য, ভাষাসৈনিক আবদুল জলিল পরিষদের সদস্য, পথশিশুদের রেলস্টেশন ভিত্তির ইশকুল ‘একটু হাসি’র পরিচালক, লাকসাম লেখক সংঘের সদস্য, নিউ লাইফ হসপিটাল টমছমব্রীজ পরিচালক, প্যারেন্ট ল্যাবরেটরীজ’ঢাকার জোনাল ম্যানেজার, রাজগঞ্জ মের্সাস আলম মেডিকেল হলের প্রোপ্রাইটর হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। দীর্ঘ দুই যুগ ধরে কুমিল্লা শহরে বসবাস করছেন তিনি। স-পরিবারে স্ত্রীকে নিয়ে পবিত্র হজ¦ পালন করার নিয়ত রয়েছে।
লেখক: আজিম উল্যাহ হানিফ, কবি ও কলামিস্ট।

Please follow and like us:

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৬০১৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com নিউজ রুম।

Email-Cvnayaalo@gmail.com সিভি জমা।

 

 

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET