১০ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার, ২৭শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৭শে রমজান, ১৪৪২ হিজরি

শিরোনামঃ-
  • হোম
  • দেশজুড়ে
  • গাজীপুরে যান চলাচল ছিল সীমিত রাষ্ট্রায়ত্ব ব্যাংকগুলোতে উপচেপড়া ভীড়

গাজীপুরে যান চলাচল ছিল সীমিত রাষ্ট্রায়ত্ব ব্যাংকগুলোতে উপচেপড়া ভীড়

সাইফুল আলম সুমন, গাজীপুর করেসপন্ডেন্ট।

আপডেট টাইম : এপ্রিল ১৩ ২০২১, ১৯:৫৮ | 651 বার পঠিত

গাজীপুরের বিভিন্ন রাষ্ট্রায়ত্ব ব্যাংকসমূহে মঙ্গলবার দিনভর গ্রাহকদের উপচেপড়া ভীড় লক্ষ্য করা গেছে। নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের বাজারগুলোতেও কেনাবেচার হিড়িক ছিল। করোনা সংক্রমনে ব্যাংক-বীমা বন্ধ ঘোষণার কারণে গ্রাহকদের ভীড় ছিল বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা। যাত্রীবাহী যানবহানের ওপর চলাচল সীমিত থাকলেও মঙ্গলবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত রাজধানী ছেড়েছেন অনেকে।

শ্রীপুর উপজেলার পিয়ার আলী বিশ^বিদ্যালয় কলেজের সহকারী অধ্যাপক মো. সোহরাব হোসেন বলেন, সকাল ১০টায় তিনি অগ্রণী ব্যাংকে টাকা উত্তোলন করতে এসে বিকেল সাড়ে তিনটা পর্যন্ত অপেক্ষা করে টাকা উঠাতে পারেননি।

ভাংনাহাটী রহমানিয়া কামিল মাদ্রাসার শিক্ষক আসাদুজ্জামান বলেন, তিনিও একই সময়ে এসে দুপুর ১টা পর্যন্ত লাইনে দাঁড়িয়ে ছিলেন। পরে আবার ২টার দিকে এসে আরও এক ঘন্টা অপেক্ষা করে টাকা উত্তোলন করতে পারেননি। সকাল থেকে লাইনে দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করছেন শ্রীপুর পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক আহসান কবির।

পটকা সিনিয়র মাদ্রাসার শিক্ষক তোফায়েল আহমেদ বলেন, তিনিও একই অবস্থার শিকার হয়েছেন। তাঁর মতো অনেক গ্রাহক দীর্ঘক্ষণ লাইনে দাঁড়িয়ে ক্লান্ত হয়ে পড়েছেন। ব্যাংক কর্তৃপক্ষ বলছেন সার্ভার কাজ করছে না।

অগ্রণী ব্যাংক শ্রীপুর শাখার ব্যবস্থাপক মুহাম্মদ শাহজাহান খান জানান, এ সমস্যাটি ব্যাংকের সার্ভারের সমস্যার কারণে হয়েছে। উপজেলার ৬টি শাখাতেই একই অবস্থা। হঠাৎ হঠাৎ সার্ভারে লাইন পাওয়া গেলেও তা ছিল খুব ধীর গতি।

সোনালী ব্যাংক শ্রীপুর থানা হেডকোয়ার্টার শাখায় গিয়ে দেখা গেছে, নগদ উত্তোলন ও জমাদানের সারিতে দীর্ঘ লাইন। উত্তোলনের সারি থেকে স্বাভাবিকভাবেই চাপ কমছে। গ্রাহকেরা টাকা উত্তোলন করতে পারছেন।

নগদ জামাদনের সারিতে দাঁড়ানো আবুল কাশেম ডিমান্ড ড্রাফট করতে বেলা ১১টায় দাঁড়িয়েছেন। দুপুর পৌণে ২টায় তিনি ডিমান্ড ড্রাফটের টাকা জমা করতে সক্ষম হন। তিনি অভিযোগ করেন একটিমাত্র কাউন্টার থেকে নগদ গ্রহণ করা হচ্ছে। মাসিক সঞ্চয়, ডিমান্ড ড্রাফট ও যে কোনো নগদ জমা সাধারণ গ্রাহকদের একটিমাত্র কাউন্টারের মাধ্যমেই জমা দিতে হচ্ছে। জমাদানের দীর্ঘ সারি থাকা সত্তে¡ও নগদ গ্রহনের গতি ছিল খুবই কম।

টাকা জমা দিতে আসা গ্রাহক জসীম উদ্দিন বলেন, তিনি বেলা ১১টায় এসে লাইনে দাঁড়িয়েছেন। দুপুর আড়াইটায় টাকা জমা দিতে সক্ষম হন। করোনা সংক্রমনে লকডাউনের কারণে আবার কবে ব্যাংক খোলা হয় তার নিশ্চয়তা নেই। অনিশ্চয়তার শঙ্কা থেকে তিনি মঙ্গলবার তার সঞ্চয় হিসাবে টাকা জমা করতে আসেন।

এসব বিষয়ে সোনালী ব্যাংক শ্রীপুর থানা হেডকোয়ার্টার শাখার ব্যবস্থাপক মো. রেজাউল হক বলেন, করোনা সংক্রমনে ব্যাংকে মঙ্গলবার গ্রাহকদের চাপ বেশি ছিল। তাছাড়া তাঁর একজন কর্মকর্তা দুর্ঘটনায় অসুস্থ হওয়ায় নগদ জমাদান কাউন্টার একটি অব্যবহৃত ছিল। অন্যদিকে, সোমবার দুপুরে হঠাৎ করে জাল টাকা শনাক্তকারী যন্ত্র অচল হয়ে পড়ে। এর জন্য ওইদিন জমাদান কাউন্টারে পাঁচটি ১ হাজার টাকার নোট জাল ধরা পড়ে। পরে তা ধংস করে দেওয়া হয়। ফলে মঙ্গলবার যন্ত্র ছাড়া টাকা যাচাই বাছাই করে জমা নেওয়ায় নগদ গ্রহণের ক্ষেত্রে কিছুটা ধীরগতি পরিক্ষিত হয়েছে।

ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের মাওনা চৌরাস্তা কাঁচামালের আড়তদার আব্দুর রশীদ বলেন, মঙ্গলবারের চেয়ে সোমবার মালামাল সরবরাহের চাপ বেশি ছিল। তবে মঙ্গলবার খুচরা বাজারগুলোতে ক্রেতাদের পণ্য কেনাকাটায় বাড়তি চাপ ছিল।

জিএমপি’র (গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ) টঙ্গী স্টেশন রোড এলাকার ট্রাফিক পরিদর্শক তরিকুল আলম বলেন, ঢাকা থেকে গাজীপুরে যাত্রীবাহী যানবাহন প্রবেশ করতে দেওয়া হয়নি। আবার গাজীপুর থেকেও যাত্রীবাহী কোনো যানবাহন রাজধানী এলাকায় প্রবেশ করতে দেওয়া হয়নি। মঙ্গলবার সকাল থেকে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে যানবাহনের চাপ ছিল বেশি। দুপুর ১টা পর্যন্ত ঢাকা মহানগর এলাকা থেকে অনেক লোক গাজীপুর মহানগরে সীমানায় প্রবেশ করে বিভিন্ন গন্তব্যের উদ্দেশে বের হয়েছে। আঞ্চলিক যানবাহনগুলো দিয়ে সাধারণ যাত্রীরা যাতায়াত করেছে। দুপুর ২টার পর থেকে যাত্রী সাধারণের চাপ কম দেখা গেছে।

গাজীপুর সদর উপজেলার মন্ডল গার্মেন্টস লিমিটেডের সুইং শাখার শ্রমিক রনি সরকার বলেন, কারখানাগুলো বন্ধ না হওয়ায় তারা কেউ এবার গ্রামের বাড়িতে যাননি। তবে মঙ্গলবারও উৎপাদন হয়েছে এবং যথারীতি তা অব্যাহত থাকবে। কারখানা থেকে তাদের জন্য বিশেষ বাস সোমবার থেকেই ব্যবস্থা করা হয়েছে।

Please follow and like us:

পাঠক গনন যন্ত্র

  • 4521240আজকের পাঠক সংখ্যা::
  • 7এখন আমাদের সাথে আছেন::

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৮৮০৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com নিউজ রুম।

Email-Cvnayaalo@gmail.com সিভি জমা।

 

 

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET