২৭শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার, ১৩ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৩ই জমাদিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি

শিরোনামঃ-

ঘুমের ওষুধের বিকল্প কিছু খাবার

Khorshed Alam Chowdhury

আপডেট টাইম : এপ্রিল ২২ ২০১৬, ০০:০০ | 671 বার পঠিত

নিউজ ডেস্ক : একটা সুন্দর সুস্থ জীবনের জন্য সারাদিনের সমস্ত ক্লান্তির পর ঘুমটা খুবই জরুরি। সারাদিনে অন্তত ৭ থেকে ৮ ঘণ্টা ঘুম খুবই জরুরি। ঘুম না হলে দেখা দিতে পারে প্রচুর শারীরিক এবং মানসিক সমস্যা।
sleep
কিন্তু এই ঘুমের সমস্যা আমাদের প্রত্যেকের মধ্যেই রয়েছে। আমাদের মধ্যে অনেকেই ক্লান্ত থাকার পরেও ঘুমোতে পারেন না। খারাপ মুড এবং অনিদ্রা শরীরের পক্ষে খুবই ক্ষতিকর।

কিছু খাবার রয়েছে, যা আমাদের ঘুমের সাহায্য করে। দেখে নেওয়া যাক সেগুলি কী কী।

পাকা কলা
কলা খেলে রাতে ভালো ঘুম হয়। কলাকে ঘুমের ঔষধের বিকল্পও বলা যেতে পারে। কলায় আছে ম্যাগনেসিয়াম যা মাংসপেশীকে শিথিল করে। এছাড়াও কলা খেলে মেলাটোনিন ও সেরোটোনিন হরমোন নির্গত হয়ে শরীরে ঘুমের আবেশ নিয়ে আসে। তাই যাদের ঘুম হয় না তারা রাতের খাবারে কলা রাখতে পারেন।

হালকা গরম দুধ
হালকা গরম দুধ হতে পারে ঘুমের ওষুধের বিকল্প। অনেকেরই রাতের ঘুমে সমস্যা হয়। যারা রাতে ঠিক সময়ে ঘুমাতে পারছেন না কিংবা বিছানায় শুয়ে এপাশ ওপাশ করছেন তারা রাতে ঘুমানোর আগে হালকা গরম দুধ খেয়ে ঘুমাতে পারেন।

দুধে আছে ট্রাইপটোফান ও এমিনো এসিড যা ঘুম ঘুম ভাব সৃষ্টি করে। এছাড়াও দুধের ক্যালসিয়াম মস্তিষ্কে ট্রাইপটোফান ব্যবহারে সহায়তা করে। এক গ্লাস দুধ খেলে আপনার মানসিক চাপ অনেকটাই কমে যায় এবং শরীর কিছুটা শিথিল হয়ে ঘুমে সহায়তা করে।

মধু
মস্তিষ্কে ওরেক্সিন নামের একটি নিউরোট্রান্সমিটার আছে যা মস্তিষ্ককে সচল রেখে ঘুমের ব্যাঘাত ঘটায়। রাতে ঘুমানোর আগে মধু খেলে মস্তিষ্কে গ্লুকোজ প্রবেশ করে এবং ওরেক্সিন উৎপাদন বন্ধ করে দেয় কিছুক্ষণের জন্য যা আপনাকে দ্রুত ঘুমিয়ে পড়তে সহায়তা করবে।

মিষ্টি আলু
মিষ্টি আলু পটাশিয়ামের অনেক ভালো একটি উৎস যা আমাদের মাংসপেশি, নার্ভ শিথিল করতে কাজ করে। এতে করে আমাদের মস্তিষ্কও অনেকাংশে রিলাক্সড হয়। নিউট্রিশনাল বায়োকেমিস্ট শন ট্যালবট বলেন, ‘মাত্র অর্ধেকটা পরিমাণে মিষ্টি আলু ঘুমের জন্য অনেক ভালো কারণ এতে রয়েছে পটাশিয়াম এবং কার্বস’।

কাজুবাদাম
উচ্চ ম্যাগনেসিয়াম সমৃদ্ধ খাবার কাজুবাদাম পেশিকে শিথিল করে ঘুম নিয়ে আসে চোখে। এছাড়া ঘুমন্ত অবস্থায় রক্তে চিনির মাত্রা স্থিতিশীল রাখার কাজ করে কাজুবাদামে থাকা বিশেষ ধরনের আমিষ, যা দেহে অ্যাড্রিনালিন বা বৃক্করসের মাধ্যমে বিপাকক্রিয়া চক্রটি ঘটার সময়ে ঘুম ভাঙতে দেয় না।

চেরি
সকালে চেরি ফলের শরবত পানেও রাতের ঘুম ভালো হয়, কারণ এতে আছে বিপুল পরিমাণ মেলাটোনিন। এই মেলাটোনিনের কারণে দেহের বিশ্রাম বা ঘুম ও শক্তির চক্রাকার সম্পর্ক নিয়ন্ত্রিত হয়।

সিরিয়াল
স্বল্প চিনিযুক্ত ও আঁশ জাতীয় শস্যের তৈরি সিরিয়াল একবাটি খেলেও তা ভালো ঘুমের জন্য সহায়ক হবে। ভালো ঘুম পাওয়ার জন্য দেহের রক্তপ্রবাহতে ট্রিপ্টোফ্যান নামের উপাদান প্রয়োজন। আর এই উপাদানটি বাড়াতে সাহায্য করে কার্বোহাইড্রেটের যৌগ সমৃদ্ধ খাদ্য, যে গুণটি রয়েছে সিরিয়ালের।

ডার্ক চকোলেট
দুধের তৈরি চকোলেটের বদলে খানিকটা ডার্ক চকোলেট ভালো ঘুমের জন্য দারুণ সহায়ক। ডার্ক চকোলেটে থাকা সেরোটোনিন নামের উপাদানটি দেহকে শিথিল এবং মনকে প্রশান্ত করে।

Please follow and like us:

পাঠক গনন যন্ত্র

  • 4328973আজকের পাঠক সংখ্যা::
  • 0এখন আমাদের সাথে আছেন::

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৮৮০৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET