১৬ই অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার, ৩১শে আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৯ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

শিরোনামঃ-

চৌদ্দগ্রামে যুবলীগ কর্মীকে গুলি করে হত্যা

Khorshed Alam Chowdhury

আপডেট টাইম : সেপ্টেম্বর ০৪ ২০১৬, ০২:৩০ | 654 বার পঠিত

hotta_10নিজস্ব প্রতিনিধি-  কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে পূর্ব বিরোধের জের ধরে আবু বকর ছিদ্দিক প্রকাশ রানা নামের এক যুবলীগ কর্মীকে কুপিয়ে ও গুলি করে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষের লোকেরা। নিহত রানা উপজেলার চিওড়া ইউনিয়নের গুর্নিশকরা গ্রামের শহিদ উল্যাহর পুত্র। শুক্রবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে স্থানীয় পাতড্ডা বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। হামলায় বছির নামে তার এক বন্ধুও আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় গতকাল রানার মা রেহানা বেগম বাদী হয়ে আওয়ামী লীগ নেতা আবদুল হাই কানু, তার ছেলে গোলাম মোস্তফা ভূঁইয়া বিপ্লবসহ ১৮ জনের   নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা আরো ৮-১০ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন।
মামলায় রেহানা বেগম উল্লেখ করেন, রানা একজন প্রবাসী ছিল। কিছুদিন পূর্বে সে দেশে আসে এবং নিজেকে সমাজ সেবামূলক কর্মকাণ্ডে জড়িত করে। আসামিদের বিভিন্ন অপরাধমূলক কাণ্ডে বাধা দিলে শত্রুতার সৃষ্টি হয়। এরই জের ধরে আসামিরা রানাকে প্রকাশ্যে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। যা ইউপি চেয়ারম্যানকে মৌখিকভাবে জানানো হয়। শুক্রবার বিকাল সাড়ে ৫টায় রানা পাতড্ডা বাজারে গেলে তার বন্ধু সনপুর গ্রামের আবদুল হাকিমের ছেলে বছির (২৬), লুদিয়ারার রুহুল আমিন চৌধুরীর ছেলে প্রান্ত, বাবুল মিয়ার ছেলে রিয়াজ, আলাউদ্দিনের ছেলে ফাহাদ, মৃত আফজাল হোসেনের ছেলে আহাম্মদ, মৃত সোহরাবের ছেলে রহিমের সঙ্গে দেখা হয়। তারা বাজারের সৌদিয়া হোটেলে নাস্তা শেষে রাত ৮টার দিকে বাজারের পশ্চিম পাশে লুদিয়ারা ব্রিজের ওপর বসে আড্ডা দিচ্ছিল। হঠাৎ করে আবদুল হাই কানুর হুকুমে তার ছেলে গোলাম মোস্তফা ভূঁইয়া বিপ্লবের নেতৃত্বে একদল যুবক পিস্তল, কাটা রাইফেল পাইপগ্যান, কিরিচ ও লোহার রড দিয়ে তাদের ওপর অতর্কিত হামলা চালায়। এ সময় হামলাকারী বিপ্লব বলে ‘সব শালার বাচ্চাদের শেষ করিয়া দে। মামলা মোকদ্দমা আমি দেখবো’। হামলায় রানার বুকে ও দুই পায়ে মোট ৮টি গুলিবিদ্ধ হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। পরে তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে অস্ত্রধারীরা মুখে, মাথা ও পায়ে কুপিয়ে মারাত্মকভাবে আহত করে। এছাড়াও তারা বছিরকে একইভাবে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। খবর পেয়ে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে আসলে অস্ত্রধারীরা পালিয়ে যায়। আহত অবস্থায় রানা ও বছির উদ্ধার শেষে চৌদ্দগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত ডাক্তার রানাকে মৃত ঘোষণা করেন। আশঙ্কাজনক অবস্থায় বছিরকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পুলিশ নিহতের লাশটি উদ্ধার শেষে ময়নাতদন্তের জন্য গতকাল সকালে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে। এ ঘটনায় নিহত রানার মা বাদী হয়ে ১৮ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা আরো ৮-১০ জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা করেছেন। ঘটনার পর থেকে আসামিরা এলাকা ছেড়ে পালিয়েছে বলে জানা গেছে।
এ ব্যাপারে চৌদ্দগ্রাম থানার সেকেন্ড অফিসার মোসলেহ উদ্দিন জানান, ‘নিহতের লাশটি উদ্ধার শেষে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। বতর্মানে ওই এলাকায় পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে’।

Please follow and like us:

পাঠক গনন যন্ত্র

  • 4751745আজকের পাঠক সংখ্যা::
  • 4এখন আমাদের সাথে আছেন::

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৮৮০৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com নিউজ রুম।

Email-Cvnayaalo@gmail.com সিভি জমা।

 

 

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET