২রা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার, ১৮ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ২০শে শাবান, ১৪৪৫ হিজরি

শিরোনামঃ-
  • হোম
  • চট্রগ্রাম
  • ছাগলনাইয়ায় এসএসসি পরীক্ষার হলে পর্যবেক্ষকদের খামখেয়ালিতে পরীক্ষার্থীরা ক্ষতিগ্রস্ত




ছাগলনাইয়ায় এসএসসি পরীক্ষার হলে পর্যবেক্ষকদের খামখেয়ালিতে পরীক্ষার্থীরা ক্ষতিগ্রস্ত

মোহাম্মদ ইমন মিয়া, বাঙ্গরা,কুমিল্লা করেসপন্ডেন্ট।

আপডেট টাইম : ফেব্রুয়ারি ০১ ২০১৮, ১৭:০১ | 1177 বার পঠিত | প্রিন্ট / ইপেপার প্রিন্ট / ইপেপার

নজরুল ইসলাম চৌধুরীঃ

ছাগলনাইয়া মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের অধিনে সরকারি কলেজ ভেন্যুতে ও ছাগলনাইয়া পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ভেন্যুর হল পর্যবেক্ষকদের খামখেয়ালি ও অবহেলায় এসএসসি পরীক্ষার্থীরা ২০/২৫ মিনিট পরে প্রশ্নপত্র পেয়েছে এমন অভিযোগ করেছে পরীক্ষার্থীরা। ঘটনাটি ঘটেছে ছাগলনাইয়া সরকারী কলেজ ভেন্যুর ২০৩ নং কক্ষে এবং বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ভেন্যুর ছাগলনাইয়া একাডেমী স্কুলের শিক্ষার্থীরা যে কক্ষে পড়েছে সে কক্ষে। অভিযগকারী পরীক্ষার্থীরা জানায়,বৃহস্পতিবার (১ ফেব্রুয়ারি) বাংলা ১ম পত্র বিষয়ের পরীক্ষায় সকাল ১০ টায় আমাদের বহু নির্বাচনীর উত্তরপত্র দেয়া হয় এবং সাড়ে ১০ টা পর্যন্ত ৩০ মিনিট সময় বহু নির্বাচনীর জন্য দেয়া হয়। বহু নির্বাচনীর উত্তরপত্র জমা দেয়ার পর পরই আমাদের লিখিত (সৃজনশীল)  পরীক্ষার পশ্নপত্র দেয়ার কথা থাকলেও হল পর্যবেক্ষক ৫ জন শিক্ষকের কেউ আমাদের প্রশ্নপত্র নাদিয়ে তারা নৈবিত্তিকের কাগজ নিয়েই ব্যস্ত থাকে। প্রশ্ন দিচ্ছেননা কেন স্যার এমন প্রশ্ন করায় একজন হল পর্যবেক্ষক সালমা আক্তার প্রিয়া নামক এক পরীক্ষার্থীর উপর রেগে বলেন, “তুমি কোন স্কুলের ছাত্রী?  দেখছো না আমরা কাজ করতেছি”। অবশেষে পৌনে ১১ টার সময় প্রশ্ন দেয়া শুরু করেন ঐ শিক্ষকগন। নিজেদের ভুলে পরীক্ষার্থীদের ২০/২৫ মিনিট সময় নষ্ট হয়েছে বুঝতে পেরে হল পর্যবেক্ষকগন পরীক্ষার্থীদের বলেছিলেন নির্দিষ্ট সময়ের ২০ মিনিট পর তোমাদের থেকে উত্তর পত্র নিবো এমন আশ্বাস দিয়েও ১ টা বাজার সাথে সাথেই উত্তরপত্র নিয়েগেছে এমন অভিযোগ করেছে পরীক্ষার্থীরা। ২০/২৫ মিটিন পরে প্রশ্নপত্র পাওয়াতে ঐ হলের কেউই সম্পুর্ন প্রশ্নের উত্তর  লিখতে নাপেরে পরীক্ষার সময় শেষে কেন্দ্র সচিবের নিকট অভিযোগ দিতে যায় কিন্তু তাদেরকে কেন্দ্র সচিবের নিকট যেতে দেয়নি কেন্দ্রের কর্তৃপক্ষ এমটা জানায় অভিযোগকারীরা। বিষটির সত্যতা জানতে সরকারী কলেজ ভেন্যুর দায়িত্বে থাকা টেগ্ অফিসার উপজেলা মৎস কর্মকর্তা নজরুল ইসলামকে জিজ্ঞেস করলে তিনি বলেন, এ অভিযোগ আমার নিকট আসেনি তবে এমন ঘটনা ঘটে থাকলে ব্যবস্থা নেয়া হবে। কেন্দ্র সচিব ছাগলনাইয়া মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ মোয়াজ্জেম হোসেনের নিকট এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, পরীক্ষার সময় শেষ হলে কিছু পরীক্ষার্থী এ অভিযোগ করেছে এমনটা আমি শুনেছি তবে ঐ ভেন্যুর সহকারী কেন্দ্র সচিব ভল্লবপুর স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ আনোয়ার হোসেন পাটোয়ারী, হল সুপার পাঠাননগর নুরুল হক উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাজেদা বেগম ও টেগ্ অফিসার নজরুল ইসলামকে জিজ্ঞস করলে তারা বিষয়টি অসত্য বলে জানায়। এ বিষয়ে ছাগলনাইয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহিদা ফাতেমা চৌধুরীকে জিজ্ঞস করলে তিনি বলেন, সকাল ১১ টার সময় আমি নিজেই সরকারী কলেজ ভেন্যুতে ছিলাম কিন্তু কোনো পরীক্ষার্থী আমাকে এ অভিযোগ দেয়নি, তবে আগামী পরীক্ষার দিন বিষয়টি তদন্ত পুর্বক ব্যবস্থা নিবো। ২০/২৫ মিটিন পর কেনো পরীক্ষার্থীদের প্রশ্নপত্র দেয়া হলো এটি খুবই দুঃখজনক এমন মন্তব্য করতে গিয়ে ছাগলনাইয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মেজবাউল হায়দার চৌধুরী সোহেল বলেন, যে সকল হল পর্যবেক্ষক ঐ হলে ছিলো এবং ঐ ভেন্যুর দায়িত্বে থাকা  সংশ্লিষ্টদের এ বিষয়ে জিজ্ঞাসা করা হবে এবং ঘটনার সত্যতা মিললে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেয়া হবে।

Please follow and like us:

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৬০১৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com নিউজ রুম।

Email-Cvnayaalo@gmail.com সিভি জমা।

 

 

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET