২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার, ৫ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১২ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি

শিরোনামঃ-
  • হোম
  • অপরাধ দূনীর্তি
  • ছাগলনাইয়ায় রেহানা আক্তার সুমী নামক নারীকে নির্যাতনের অভিযোগে যুবলীগ নেতা টিপুর বিরুদ্ধে ফেনী মডেল থানায় অভিযোগ

ছাগলনাইয়ায় রেহানা আক্তার সুমী নামক নারীকে নির্যাতনের অভিযোগে যুবলীগ নেতা টিপুর বিরুদ্ধে ফেনী মডেল থানায় অভিযোগ

নয়া আলো অনলাইন ডেস্ক।

আপডেট টাইম : জুলাই ২৩ ২০২১, ২১:৪৯ | 1641 বার পঠিত

ছাগলনাইয়া উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক দিদারুল আলম ভুঁইয়া টিপু রেহানা আক্তার সুমী (৩৫) নামক নারীকে বিয়ের প্রলোভনে শ্লীলতাহানি ও মারধরের অভিযোগে ফেনী মডেল থানায় এজাহার দায়ের করেছে ভিকটিম রেহানা আক্তার সুমী। গত ১৮ জুলাই সুমি বাদি হয়ে ফেনী মডেল থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। লিখিত অভিযোগে দিদারুল আলম টিপু (৪০), তার স্ত্রী লাভলী, মোঃ হানিফ বাবুল, সবুজ প্রকাশ লাল সবুজ, সেলিম, মোঃ সমির ও মাসুদ রানাসহ মোট সাত জনকে আসামি করা হয়েছে।
এজাহারে সুমী উল্লেখ্য করে, গত ৩ জুন দিদারুল আলম টিপু আমাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে চট্টগ্রাম থেকে ফেনী পৌরসভার পুর্ব উকিল পাড়া পেট্টোল বাংলা কবির আহাম্মদের ভাড়া বাসায় নিয়ে এসে দীর্ঘ দুই মাস যাবত তালাবদ্ধ করে আটক করে রাখে। পরবর্তীতে আমাকে ফেনী শহরের পুরাতন পুলিশ কোয়ার্টার টিপুর গাড়ীর চালক ইমনদের বাসায় নিয়ে গিয়ে ৬ মাস রাখে। এসময় তাকে বিয়ের কথা বললে গত ১লা মার্চ ২০২১ ইং তারিখে পেট্টো বাংলার বৃত্তিকা ভবনে স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে আমাকে নিয়ে ভাড়া বাসায় উঠে। সেখানে চার মাস আমার সাথে নিয়মিত শারীরিক সম্পর্ক করে। এর ফলে আমি গর্ভধারন করলে টিপু আমাকে ম্যাস্ক হাসপাতালে পরীক্ষার জন্য নিয়ে যায়। পরীক্ষার রিপোর্টে গর্ভধারনের বিষয়টি নিশ্চিত হলে ১৪ মার্চ ২০২১ ইং তারিখে জোর পুর্বক ঔষধ খাইয়ে আমার গর্ভের সন্তান নষ্ট করে। এরপর পুনরায় গর্ভ ধারন করলে আমার অনিচ্ছায় জোর পুর্বক গত ৯ জুলাই ২০২১ ইং তারিখে টিপু হাসপালে নিয়ে আমার গর্ভের দ্বিতীয় সন্তানটিও নষ্ট করে। এরপর পুনরায় তাকে আমি বিয়ে প্রস্তাব দিলে ১১ জুলাই ২০২১ ইং তারিখে দিদারুল আলম টিপু (৪০), তার স্ত্রী লাভলী, মোঃ হানিফ বাবুল, সবুজ প্রকাশ লাল সবুজ, সেলিম, মোঃ সমির ও মাসুদ রানা টিপুর পরিবারের সহযোগিতায় আমাকে মারধর করে ঘর থেকে বের করেদেয়। পরবর্তীতে আমি অসুস্থ অবস্থায় খালাতো বোনের বাসায় আশ্রয় নিয়েছি। গত ১৫ জুলাই ঐ বাসার তৃতীয় তলার এক ভাড়াটিয়ার ফোন কলের মাধ্যমে জানতে পারি টিপু সার সহযোগিদের সহযোগিতায় ঘরের সকল আসবাবপত্র নিয়ে যায়। বর্তমানে টিপুকে বিয়ের বিষয়ে কথা বললে সে আমাকে হত্যার হুমকি দিচ্ছে। এর আগে টিপু এবং তার সহযোগিরা আমাকে বিভিন্নভাবে প্রলুব্দ করে ঘোপাল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আজিজুল হক মানিকের বিরুদ্ধে জোর পুর্বক সাংবাদিক সম্মেলন ও ফেনীর  আদালতে নারী নির্যাতনের অভিযোগে একটি সিআর মামলা ( নং-১৯২/২০২০ইং) করায়। এ ঘটনায় আমি চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি।
অভিযোগকারী রেহানা আক্তার সুমিকে মারধরের ভিডিও চিত্রের বিষয়ে জানতে চাইলে সে বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, টিপু আমাকে মারধর করার সময় যে ভিডিওটি করা হয়েছে সেটা সত্য।
অন্যদিকে, এ বিষয়ে অভিযুক্ত দিদারুল আলম টিপু জানান, আমি সুমীকে মারধর করিনি। সে আমি ও আমার স্ত্রীর সাথে উল্টাপাল্টা আচরণ করেছে। আমার পরিবারে অশান্তি সৃষ্টি করছে সুমি।
Please follow and like us:

পাঠক গনন যন্ত্র

  • 4722818আজকের পাঠক সংখ্যা::
  • 8এখন আমাদের সাথে আছেন::

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৮৮০৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com নিউজ রুম।

Email-Cvnayaalo@gmail.com সিভি জমা।

 

 

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET