২৫শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শুক্রবার, ১১ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৪ই জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি

শিরোনামঃ-

ছেলে না হওয়ায় তিন তালাক!

প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

আপডেট টাইম : নভেম্বর ০৫ ২০১৬, ১২:০৪ | 652 বার পঠিত

নয়া আলো ডেস্ক-ভারতের যোধপুরের নারী ফারহা খানকে রাগের মাথায় রাস্তাতেই তিন তালাক দিয়ে দিল তার স্বামী ইরফান খান। নিজেদের বাসার সামনে উপস্থিত লোকজনের সামনে তিনবার ‘তালাক’ উচ্চারণ করেন। ইনখবর ডটকম ও ইনডিয়া টিভিতে শেয়ার করা সেই তালাকের ভিডিওতে দেখা যায় উপস্থিত অনেক মানুষের সামনেই তালাক-তালাক-তালাক উচ্চারণ করেন স্বামী ইরফান।

আর স্ত্রী ফারহা কাঁদতে কাঁদতে স্বামীর কাছে ক্ষমা চাচ্ছিলেন আর তাদের বাচ্চা মেয়ের কথা বলছিলেন। কিন্তু স্বামীকে কর্ণপাত করতে দেখা যায়নি। ওদিকে বাবা-মায়ের মধ্যে এই সমস্যায় ভ্যাবাচেকা খেয়ে কেবল কেঁদেই যাচ্ছিল তাদের তিন-চার বছর বয়সী মেয়ে।

যোধপুরের বাসিন্দা ইরফান ও ফারহা নয় বছর ধরে সংসার করে আসছিলেন। এর মধ্যে তারা একটি কন্যা সন্তানের জন্ম দেন যার বর্তমান বয়স আনুমানিক তিন বা চার। তবে মাত্র তিন তালাকে সে সম্পর্কের ইতি টানতে চাচ্ছেন স্বামী ইরফান খান।

স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বিচ্ছেদের জন্য ইসলামী ব্যক্তিগত আইন হচ্ছে তিনটি ধাপে তালাক দিতে হবে এবং এতে সময়ের ব্যবধান থাকতে হবে। কিন্তু অনেক মুসলিম পুরুষই রাগের মাথায় তিন তালাক দিয়ে দেন। ভারতের যোধপুরের এই তালাকের ঘটনাটিও এমন। এই তালাকের বিরুদ্ধে আইনী লড়াইয়ের সাথে সাথে স্বামীর বাড়ির সামনেই অবস্থান করছেন রাগের মাথায় তালাকপ্রাপ্তা ওই নারী।

বিয়ের কয়েক বছর হয়ে গেলেও তাদের কোনো ছেলে সন্তান হয়নি। কিছুদিন আগে একটি কন্যা সন্তানের জন্ম হয়। এটা নিয়ে স্বামীর পরিবার তাকে বিভিন্নভাবে অপমান করে আসছিল বলে জানান ফারহা খান।

স্বামী ইরফান খান বলেন, ‘আমার স্ত্রীর কাছে নিয়মিত নির্যাতিত হয়ে আসছিলাম। সে আমাকে বেশ কয়েকবার অপমান করেছে, মারধর করেছে। আমি প্রমাণ দেখাতে পারব। অনেক বছর ধরে আমাকে কোনো সন্তান দিতে পারেনি। তার চিকিৎসায় আমার ৬-৭ লাখ রুপি খরচ হয়েছে। সে কিছুদিন আগে মা হয়েছে কিন্তু আচার আচরণে কোন উন্নতি হয়নি।’

স্বামীর বিরুদ্ধে পাল্টা অভিযোগ করে ফারহা খান জানান, স্বামীর হাতে নিয়মিত হয়রানির শিকার হয়ে আসছিলেন তিনি। তিনি বলেন, ‘আমার কন্যা সন্তান হওয়ার পর আমার প্রতি অমনোযোগী হয়ে পড়ে স্বামীর পরিবার। আমি তার সাথে সংসার করতে চাই এবং আমি বিশ্বাস করি মৌখিক তালাক ইসলাম সমর্থিত নয়।’

থানায় অভিযোগ করার পর এখন শ্বশুরবাড়ির সামনে অবস্থান কর্মসূচি নিয়েছেন ওই নারী। বিয়ের পুনঃস্থাপন করার জন্য তার এই অবস্থান কর্মসূচি।

Please follow and like us:

পাঠক গনন যন্ত্র

  • 4594058আজকের পাঠক সংখ্যা::
  • 7এখন আমাদের সাথে আছেন::

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৮৮০৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com নিউজ রুম।

Email-Cvnayaalo@gmail.com সিভি জমা।

 

 

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET