১৬ই অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার, ৩১শে আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৯ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

শিরোনামঃ-

জলাবদ্ধতায় বালিয়াকান্দি মডেল প্রাথমিক বিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা!

Khorshed Alam Chowdhury

আপডেট টাইম : আগস্ট ২৪ ২০১৬, ১৩:১১ | 663 বার পঠিত

14111787_192721817811235_537014551_nরাজবাড়ী প্রতিনিধি :: রাশেদ খান মিলন- টানা দুই দিনের ভারি বর্ষণে বালিয়াকান্দি মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হওয়ায় স্কুল বন্ধ ঘোষণা করেছে কর্তৃপক্ষ। পানি নিস্কাশনের ব্যবস্থা না থাকায় সামান্য বৃষ্টি হলেই বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে হাটু পানি জমা হওয়ার কারণে মারাত্মক ভাবে বিঘ্ন ঘটছে পাঠদান কার্যক্রম। বিদ্যালয়ের প্রবেশ গেট থেকে বিদ্যালয়ের শ্রেণিকক্ষে পানি ঢুকে পড়ায় অভিভাবকরা তাদের সন্তানদেরকে স্কুলে আসতে দিতে অপরাগতা স্বীকার করছে। এদিকে শ্রেণী কক্ষের ভিতরে পানি ঢুকে পড়ায় এবং পাঠদানের অনুপযোগী হওয়ায় স্কুল কর্তৃপক্ষ তাৎক্ষনিকভাবে গতকাল সোমবার ১দিনের ছুটি ঘোষণা করেছেন। স্কুলের প্রধান শিক্ষক চাঁদ সুলতানা জানান, আজকের মধ্যে যদি পানি নিস্কাশনের ব্যবস্থা গ্রহণ না করা হয় তাহলে পরবর্তী সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে। যদি দ্রুত পানি নিস্কাশনের ব্যবস্থা গ্রহণ না করা হয় তাহলে দীর্ঘ মেয়াদী পাঠদান বিঘ্ন ঘটতে পারে বলে বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা আশংকা প্রকাশ করছেন। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, বিদ্যালয়ে প্রবেশের প্রধান ফটক থেকে শুরু করে বিদ্যালয়ের শ্রেণীকক্ষ ও অন্যান্য রুমের মধ্যে হাটু পানি জমা হয়েছে। পুরো বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থী শূন্য। এ সময় একাধিক শিক্ষকরা বলেন, বালিয়াকান্দি মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়টি দিন দিন নানা সমস্যায় জর্জরিত হয়ে পড়ছে। বালিয়াকান্দি শহরের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত এবং লেখাপড়ার মান সন্তোষজনক হওয়ার অভিভাবকদের আস্থার একটি প্রতিষ্ঠান হিসেবে রয়েছে এই প্রাথমিক বিদ্যালয়ের। শিক্ষার্থী অনুপাতে শ্রেণীকক্ষের সংকট দীর্ঘদিনের। শ্রেণী সংকট দুর করার জন্য অনেক আগে থেকেই বালিয়াকান্দি মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের ৩টি শ্রেণিকক্ষ ধার করে চালাতে হচ্ছে শিক্ষা কার্যক্রম। তাছাড়া জরাজীর্ণ ভবনে ঝুকিপূর্ণ অবস্থায় ক্লাস নিতে হচ্ছে আমাদের। বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণীর শিক্ষার্থী সায়েমা সুলতানা রানু ক্ষোভ প্রকাশ করে জানান, সামান্য বৃষ্টিতে টিনের চালার ফুটো দিয়ে পানি পড়ে আমাদের বই খাতা ভিজে যায়। ক্লাসে বসার জায়গা নিয়ে চলে রীতিমতো প্রতিযোগিতা। বছরে ৬মাসই কাদা পানিতে শিক্ষার্থীদের দুর্ভোগের মধ্যে দিয়ে ক্লাস করতে হয় আমাদের। বিদ্যালয় সুত্রে জানাযায়, ১৯১৫ সালে বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠা হয়। বর্তমানে এ বিদ্যালয়ে শিশু থেকে ৫ম শ্রেণীতে মোট শিক্ষার্থী রয়েছে ৫০২জন। এখানে ১৫জন শিক্ষক কর্মরত রয়েছে। স্কুলের প্রধান শিক্ষক চাঁদ সুলতানা জানান, গত রবিবার বৃষ্টিতে ক্লাস রুমের মধ্যে পানি জমে যাওয়ায় নির্দিষ্ট সময়ের আগেই ছুটি দিতে বাধ্য হই। গতকাল সোমবারে যথাসময়ে শিক্ষক ও শিক্ষার্থী উপস্থিত হলেও পানি নিস্কাশন না হওয়ায় সবাই পানি সরানোর ব্যর্থ চেষ্টা করে সংরক্ষিত ছুটি দিতে বাধ্য হই। উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ আবুল কালাম আজাদ বলেন, পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা না করা পর্যন্ত এ দুর্ভোগ কমানো সম্ভব হবে না। বালিয়াকান্দি শহরসহ স্কুল এলাকায় পানি নিষ্কাশনের বিষয়ে দ্রুত প্রকল্প গ্রহন করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। আশা করি এ সমস্যা দ্রুত সমাধান হবে।

Please follow and like us:

পাঠক গনন যন্ত্র

  • 4751745আজকের পাঠক সংখ্যা::
  • 3এখন আমাদের সাথে আছেন::

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৮৮০৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com নিউজ রুম।

Email-Cvnayaalo@gmail.com সিভি জমা।

 

 

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET