৩১শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার, ১৬ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২০শে জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি

শিরোনামঃ-
  • হোম
  • অপরাধ দূনীর্তি
  • ঝিনাইদহে এবার প্রবাসীর স্ত্রীর সাথে পরকীয়া জের ধরে এক মাসে ৩ বার বিয়ে-প্রথম স্ত্রীর আদালতে মামলা !

ঝিনাইদহে এবার প্রবাসীর স্ত্রীর সাথে পরকীয়া জের ধরে এক মাসে ৩ বার বিয়ে-প্রথম স্ত্রীর আদালতে মামলা !

Khorshed Alam Chowdhury

আপডেট টাইম : সেপ্টেম্বর ২৩ ২০১৬, ০২:২৩ | 681 বার পঠিত

laboni-pic-jhenaidahঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ
ঝিনাইদহ সদর উপজেলার নলডাঙ্গা ইউনিয়নের গড়িয়ালা গ্রামে এবার প্রবাসীর স্ত্রীর সাথে পরকীয়া জের ধরে এক মাসে ৩ বার বিয়ে অত:পর প্রথম স্ত্রীর আদালতে মামলার করার ঘটনা ঘটেছে। জানা গেছে, ঝিনাইদহের হরিনাকুন্ডু উপজেলার বেড়াখালি গ্রামের জালাল উদ্দিনের মেয়ে তাসলিমা বয়স (২৮) যার ২০০৪ সালের একই উপজেলার গড়িয়ালা গ্রামের আলমগীর নামে এক যুবকের সাথে বিবাহ হয়।

৮ বছর বিবাহিত জীবনে তাঁদের ঘর আলো করে জন্ম নিয়েছে ২ টি কন্যা সন্তান এক জনের বর্তমান বয়স ৯ বছর ও একজনের বয়স ৫ বছর। প্রায় ৮ বছরের বিবাহিত জীবনের পরিসমাপ্তি লগ্নে স্ত্রী সন্তান নিয়ে পরিবারের অর্থনৈতিক সচ্ছল জীবনের কথা চিন্তা করে প্রায় ৪ বছর আগে পাড়ি জমায় মধ্যে প্রাচ্যের দেশ উমানে।

কুদ্দুসের প্রথম স্ত্রী লাবনী বেগম সুত্রে জানা গেছে, স্বামী প্রবাসে যাওয়ার সাথে সাথে পাশের বাড়ির চাচা শশুর সম্পর্কীয় মৃত ইসমাইল সর্দারের ছেলে আব্দুল কুদ্দুস (৪০) এর সাথে প্রতিনিয়ত গোপন অভিসারে লিপ্ত হতে থাকে। ইতিমধ্যে প্রবাসী স্বামীর দেশে আসার সময় নিকটবর্তী হলে তাসলিমা তার বাপের বাড়ি বেড়াখালি গ্রামে বেড়াতে যায়। সেখান থেকে একদিন রাতে কুদ্দুসের হাত ধরে পালিয়ে যায়।

খবর পেয়ে তার প্রবাসী স্বামী সময়ের আগেই চলে আসে। তারপর খোঁজ খবর করার পর তার প্রবাসী স্বামী থানায় অভিযোগ করলে তারা উভয় হরিনাকুন্ডু থানা পুলিশের হাতে ধরা পড়ে। তারপর প্রবাসী স্বামী দুই সন্তানের কথা বিবেচনা করে পরিবারের সকলের অনুরোধে তাসলিমাকে পুনরায় বিবাহ করে ঘরে তুলে নেয় ।

কিন্তু তাসলিমার মন পড়ে থাকে কুদ্দুসের কাছে প্রায় ১৫ দিন মত প্রবাসী স্বামীর সাথে নিজ বাপের বাড়িতে থাকার পর একদিন প্রবাসী নিজের গ্রামে আসে বাবা মেয়ের সাথে দেখা করতে। এই অবস্থায় তাসলিমা আবার যোগাযোগ করে কুদ্দুসের পালিয়ে যায় হাত ধরে এবং কোর্টে আবার বিবাহ করে। এই নিয়ে গ্রামে বেশ চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে।

গ্রামবাসীরা স্ংবাদিককে জানিয়েছে, এক মেয়ের এক মাসে ৩ বার বিয়ে। তারা না মানছে রাষ্ট্রীয় আইন না মানছে ধর্মীয় আইন। এই ভাবেই ব্যাবিচার করছে বছরের পর বছর ধরে। ছেলের ভাই প্রভাবশালি ও পুলিশের দালাল হওয়ার কারনে তার বিরুদ্ধে কেউ মুখ খুলতে সাহস পাচ্ছে না। ইতিমধ্যে সে গ্রামের অনেক নিরিহ মানুষের কে পুলিশ দিয়ে মিথ্যা হয়রানি করেছে।

কুদ্দুসের প্রথম স্ত্রী লাবনী বেগম আরো জানান, তাসলিমার সাথে কুদ্দুসের গোপন অভিসার প্রায় ৪ বছর ধরে চলে আসছে। আমি একদিন তাদের আপত্তিকর অবাস্থায় দেখতে পেয়ে বাড়ির লোকজনকে জানালে কুদ্দুসের বড় ভাই সাবেক ইউ পি সদস্য নওসের আমাকে সকলের সামনে ১০ হাত নাকে খর দিতে বাধ্য করে এবং বলে যে আমার ভাইয়ের নামে মিথ্যা কথা বলার জন্য এই শাস্তি । আমার উপর প্রায়ই কুদ্দুস অমানবিক নির্যাতন করত। যা আমার স্বামীর পরিবারের সকলে চেয়ে চেয়ে দেখত।

আমাকে একবার নির্যাতন করে মৃত প্রায় হলে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করে ডাক্তারের চিকিৎসার মাধ্যেমে প্রানে বেচে যায়। এই ঘটনার পরে আমাকে মেরে জোর করে বাপের বাড়িতে পাঠিয়ে দেয় এবং বলে ৩ লক্ষ টাকা দিলে সে আমার সাথে সংসার করবে। পরে নোটারী পাবলিকের মাধ্যে তালাক পাঠায়ে দেয়।

এই ঘটনার পর একদিন কুদ্দুস এসে আমার পিতার কাছে বলে যে আমাকে নিয়ে যাবে তাই বলে আমাকে পোস্ট অফিসে নিয়ে আসে। এরপর প্রতারণা করে আমার নামে থাকা ৩০ হাজার টাকা আমাকে দিয়ে উঠিয়ে নিয়ে চলে যায়।

আমার এক ছেলে ও এক মেয়ে, এদের কে নিয়ে আমি এখন কি করব ? তাদের নিয়ে কোথায় যাব ? আমি ইতিমধ্যে ন্যায় বিচার পাওয়ার জন্য নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন, দেন মোহর ও খোরপোষ বাবদ ও যৌতুক নিরোধ আইন ৪ ধারা মোতাবেক আদালতে ৩ টি মামলা দায়ের করেছি।

এই ঘটনা কে কেন্দ্র করে গত শুক্রবারে গ্রামের ১০০ জন লোক কে জরিমানা স্বরূপ খাবারের ব্যবস্থা করতে হয়েছে। আরও জানা গেছে তাদের আবার আব্বাস নামের এক কাজী তাদের নতুন করে বিবাহ পড়ায়।

এলাকা বাসীর প্রশ্ন যেখানে ইসলামে নিয়ম আছে কোন নারী তালাক প্রাপ্ত হলে তাকে পুনরায় বিবাহ দিতে হলে ১০০ দিন অপেক্ষা করতে হয়। সেখানে এই নারীর ক্ষেত্রে এক মাসের ভিতর তিন বার বিবাহ স্বত্ত্বেও ইসলামী নিয়ম কানুনের কি কোনই প্রয়োজন নেই ?

Please follow and like us:

পাঠক গনন যন্ত্র

  • 4657865আজকের পাঠক সংখ্যা::
  • 8এখন আমাদের সাথে আছেন::

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৮৮০৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com নিউজ রুম।

Email-Cvnayaalo@gmail.com সিভি জমা।

 

 

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET