৫ই মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শুক্রবার, ২০শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২০শে রজব, ১৪৪২ হিজরি

শিরোনামঃ-
  • হোম
  • সকল সংবাদ
  • ডুমুরিয়ায় ইজারা নেয়া জলমহল লুটপাটের অপচেষ্টাঃ প্রশাসনের হস্তক্ষেপে রক্ষা

ডুমুরিয়ায় ইজারা নেয়া জলমহল লুটপাটের অপচেষ্টাঃ প্রশাসনের হস্তক্ষেপে রক্ষা

admin6

আপডেট টাইম : অক্টোবর ১৯ ২০১৬, ১৯:১১ | 632 বার পঠিত

আব্দুল লতিফ মোড়ল ,ডুমুরিয়া (খুলনা) থেকেঃ-

ডুমুরিয়ায় সরকারি ভাবে জলমহল ইজারা নিয়ে মাছ চাষ করে বিপাকে পড়েছে মৎস্যজীবি সমিতির সদস্যরা। প্রশাসন ও পুলিশের হস্তক্ষেপে অবশেষে বড় ধরণের সংঘাত ও মৎস্য জীবিদের চাষকৃত মাছ লুটপাটের হাত থেকে রক্ষা পেল জলমহল। ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল বুধবার উপজেলার গুটুদিয়া ইউনিয়নের বিলপাবলা এলাকায়। এ ঘটানায় এলাকায় টানটান উত্তেজনা বিরাজ করছে।
সংশিষ্ট সূত্র ও স্থানীয় গ্রামবাসী জানায়, ডুমুরিয়া উপজেলার গুটুদিয়া ইউনিয়নে পূর্ব ও পশ্চিম বিলা পাবলা গ্রাম ঘেষে ১৯৬ একর জমি নিয়ে বয়ে গেছে গগনা নদীর জলাশয়। ওই জলাশয়ে খন্ডখন্ড ভাগে বিভক্ত করে গত কয়েক বছর যাবৎ স্থানীয় প্রভাবশালীরা অবৈধভাবে মাছ চাষ করে আসছিল। ফলে প্রতি বছর সরকার মোটা অংকের রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছিল। চলতি বছর খুলনার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) ওই জলমহলটি এলাকার পূর্ব ও পশ্চিম বিলপাবলা গ্রামের স্থানীয় বিভিন্ন মৎস্যজীবি সমবায় সমিতির মাধ্যমে ৩ বছর মেয়াদে প্রতি বছর ৪ লাখ টাকা হারে রাজস্ব পরিশোধের চুক্তিতে ইজারা দেয়া হয়। মৎস্যজীবি সমিতির সদস্যরা সরকারের নিয়ম মেনেই সেখানে মাছ চাষ শুরু করেছে।
স্থানীয় মৎস্যজীবি সমবায় সমিতির সভাপতি সুধির বিশ^াস জানান, ডুমুরিয়া সদরসহ স্থানীয় বেশ কয়েকজন প্রভাবশালী নেতাদের ইন্দোনে এলাকায় জলাবদ্ধতা সৃষ্টির অজুহাত দেখিয়ে ওই ১৯৬ একর জলাশয়ের মাছ লুট করার মানসে বেশকিছু সার্থান্নেশী গ্রামবাসীকে নিয়ে বুধবার সকাল ৮টা থেকে এলাকার বিভিন্ন স্থানে ৫টি পয়েন্টে প্রায় পাঁচ শতাধিক গ্রামবাসীকে জড় করে ওই জলাশয়ে হানা দেয়ার অপচেষ্টা চালায়। এদিকে খবর পেয়ে জলাশয় ইজারাদাররা ও মাছ চাষের সাথে সংশ্লিষ্টরা এ ঘটনাটি প্রতিহত করার লক্ষ্যে তারাও নারী-পুরুষের সমন্বয়ে প্রতিরোধের জন্য সংগঠিত হয়। এলাকায় এমন খবর ছড়িয়ে পড়লে ডুমুরিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার সিফাত মেহনাজ, ডুমুরিয়া থানা, পাশর্^বর্তী হরিণটানা থানা ও আড়ংঘাটা থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে সক্ষম হয়। যে কারণে এলাকায় বড় ধরণের কোন অপ্রিতিকর ঘটনা ঘটেনি বলে জানা গেছে।
জলাশয় উম্মুক্ত করা পক্ষে আসা আবুল হাসান ও শিশির ফৌজদার জানান, এলাকায় স্থায়ী জলাবদ্ধতা নিরাসনে মাছ চাষ বন্ধ করা দরকার। সে কারণে গ্রামবাসীকে সাথে নিয়ে তারা এখানে এসেছিলেন জলাশয় উম্মুক্ত করতে। এ প্রসঙ্গে গুটুদিয়া ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তফা সরোয়ার বলেন, ওই এলাকার জলাশয়গুলি একটি প্রভাবশালী মহল দীর্ঘদিন যাবৎ অবৈধ ভাবে ভোগ দখল করে আসছিল। চলতি বছর এলাকার মৎস্যজীবিরা সমবায় সমিতির সদস্যরা ইজারা নিয়ে মাছ চাষ করছে। পূর্বে অবৈধ ভাবে দখলদার ওই সার্থন্নেশী মহলটি এবং বিগত ইউপি নির্বাচনে আওয়ামীলীগের নৌকা প্রতীকের বিরুদ্ধে অবস্থানকারী পরাজিত প্রার্থীরা একত্রিত হয়ে বৈধ ভাবে ইজারা নেওয়া জলাশয় উন্মুক্তের নামে লুটপাটের অপচেষ্টা চালিয়ে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে ব্যর্থ হয়েছে।
এ বিষয়ে ডুমুরিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার সিফাত মেহনাজ বলেন, ওই জলাশয় যে আবস্থায় রয়েছে, সেই অবস্থায় আপাতত থাকবে। তবে দুই পক্ষেকে সময় বেঁধে দেয়া হয়েছে এবং উভায় পক্ষকে তাদের নিজ নিজ কাগজপত্র দেখাতে বলা হয়েছে। এরপর সিদ্ধান্ত দেয়া হবে।

Please follow and like us:

পাঠক গনন যন্ত্র

  • 4401377আজকের পাঠক সংখ্যা::
  • 16এখন আমাদের সাথে আছেন::

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৮৮০৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET