২৫শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার, ৯ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৮ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

শিরোনামঃ-
  • হোম
  • সকল সংবাদ
  • ডুমুরিয়ায় তরমুজে গুড় শিল্পে নতুন সম্ভাবনা কৃষক মৃত্যুজ্ঞয়ের।

ডুমুরিয়ায় তরমুজে গুড় শিল্পে নতুন সম্ভাবনা কৃষক মৃত্যুজ্ঞয়ের।

গাজী আব্দুল কুদ্দুস, চুকনগর.খুলনা করেসপন্ডেন্ট।

আপডেট টাইম : অক্টোবর ১০ ২০২১, ১২:৩২ | 654 বার পঠিত

ডুমুরিয়া উপজেলার সাহস ইউনিয়নের ছোটবন্দ গ্রামের এক তরুণ কৃষক মৃত্যঞ্জয় মন্ডল কৃষি বিভাগের সহযোগিতায় প্রথম বারের মত তরমুজ থেকে গুড় উৎপাদন করে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন।তরমুজে গুড় শিল্পে নতুন সম্ভাবনার উন্মোচন করেছেন তিনি।
তিনি ২০১০ সাল থেকে সিজন/অফসিজন তরমুজ চাষ করে আসছেন। পরপর ১২ বছর তরমুজ চাষ করে এলাকায় সফল তরমুজ চাষী হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। বরাবরই তরমুজ উচ্চ মূল্যের ফসল, তবে কিছু কিছু তরমুজ আকার আকৃতিতে কিছুটা ছোট হয় যেটা বাজারে বিক্রয়ের অযোগ্য হয়ে থাকে। যেটা এলাকায় ক্যাট নামে পরিচিত। এগুলো কোন ক্রমে বিক্রি হয় না। অনেক সময় মাঠেই নষ্ট হয়ে যায়। কোন কোন সময় বৃষ্টিতে পঁচে এগুলোর দূর্গন্ধ সৃষ্টি হয়। মৃত্যুঞ্জয় মন্ডল ঐ সমস্ত ছোট তরমুজ বা ক্যাট নিয়ে ৩বছর যাবৎ গবেষণা করতে থাকে।অবশেষে ২০২১ সালেল ২২ই সেপ্টেম্বর কোন রকম উন্নত প্রযুক্তি ছাড়া একেবারে দেশীয় প্রযুক্তিতে ক্যাট তরমুজ কেটে ভিতরের লাল অংশ বের করে, নেটের মাধ্যমে নির্যাশ বা রস বের করে উনুনে জালিয়ে গুড় তৈরি করেন। প্রাকৃতিক উপায়ে তৈরি এ গুড় অত্যন্ত সুস্বাদু এবং অনেক দিন পর্যন্ত সংরক্ষণ করা যায়। মৃত্যঞ্জয় মন্ডল বলেন, তরমুজের রসে মিষ্টতা থাকার কারনে আমার মনে হয়েছিল এর থেকে গুড় তৈরি করা সম্ভব এবং আমি সেটা চেষ্টা করে সফলতা পেয়েছি। আমি এপর্যন্ত প্রায় ৮থেকে১০ কেজি গুড় তৈরি করেছি।
আমি নিজে, গ্রামের প্রতিবেশী, উপজেলা কৃষি অফিসার মোঃ মোসাাদ্দে হোসেন স্যারকে খেতে দিয়েছি।উনারা সকলেই প্রশংসা করেছেন। এমনকি গ্রামের কিছু লোক তিনশত টাকা কেজি দরে কিনতে চেয়েছেন। আগামীতে আমি তরমুজ থেকে গুড় উৎপাদন আরও বৃদ্ধি করব।

মৃত্যঞ্জয় মন্ডল আরও বলেন গুড় উৎপাদনের খবর শুনে আশেপাশের গ্রাম থেকে প্রতিদিন শত শত লোক দেখতে আসছে কিভাবে তরমুজ থেকে গুড় উৎপাদন করা হয়। এলাকার অনেক কৃষক আগামী তরমুজের সিজনে তরমুজ চাষ করে গুড় উৎপাদন করে বাজারজাত করার কথা ভাবছেন।

সাহস ইউনিয়নের ছোটবন্দ গ্রামের কৃষক শিবপদ মন্ডল বলেন, আমি প্রায় প্রতিদিনই মৃত্যঞ্জয় মন্ডলের তরমুজ থেকে গুড় তৈরির দৃশ্য দেখতে আসি। আমি আগামী সিজনে তরমুজ থেকে গুড় তৈরি করার চিন্তা ভাবনা করছি।
সাবেক ইউপি সদস্য রণজিৎ মন্ডল বলেন, ডুমুরিয়া কৃষি বান্ধব উপজেলা হওয়ায় সাহস ইউনিয়নের প্রতান্ত এলাকার মৃত্যঞ্জয় মন্ডল পৈর্তিক সুত্রে কৃষি পেশায় জড়িত। সে বিভিন্ন সময়ে নতুন কিছু করার প্রত্যয়ে সবসময় এগিয়ে থাকে। তারই ধারাবাহিকতায় তরমুজ থেকে গুড় উৎপাদন করতে সক্ষম হয়েছে। আমি তার কাছ থেকে কয়েক কেজি তরমুজ গুড় কিনতে আগ্রহী প্রকাশ করায়। মৃত্যঞ্জয় মন্ডল আমাকে আশ্বাস দিয়েছে আগামীতে আমাকে তরমুজ গুড় তৈরি করে দিতে।

ডুমুরিয়া উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ মোঃ মোছাদ্দেক হোসেন বলেন, এটি কৃষিতে এক দারুণ অর্জন। আমাদের দেশের গুড় শিল্প দিন দিন হারিয়ে যাচ্ছে।  তাল ও খেজুর গাছের সংখ্যা দিনদিন কমে যাচ্ছে। ফলে অদুর ভবিষ্যতে গুড় শিল্প হুমকির দিকে চলে যাচ্ছে। আমাদের উপকূলীয় লবনাক্ত এলাকা তরমুজ চাষের অত্যন্ত উপযোগী। আমাদের সিজনে কৃষক অনেক সময় নায্য মূল্য পায় না। তরমুজের ক্যাট গুলো বিক্রি হয় না। বানিজ্যিকভাবে ঐ তরমুজ নিয়ে গুড় তৈরি করলে কৃষক একদিকে যেমন তার উৎপাদিত পণ্যের নায্য মূল্য পাবে। অপরদিকে ফসল অপচয় রোধ হবে। আমরা মৃত্যুঞ্জয়ের মত কৃষকদেরকে নিয়মিত প্রশিক্ষণ, প্রদর্শণী ও মাঠে পরামর্শসহ অন্যান্য সহযোগিতা দিয়ে যাচ্ছি। আগামীতে এটি আরও বৃদ্ধি পাবে।

Please follow and like us:

পাঠক গনন যন্ত্র

  • 4764686আজকের পাঠক সংখ্যা::
  • 6এখন আমাদের সাথে আছেন::

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৮৮০৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com নিউজ রুম।

Email-Cvnayaalo@gmail.com সিভি জমা।

 

 

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET