৩রা মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার, ১৮ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৮ই রজব, ১৪৪২ হিজরি

শিরোনামঃ-
  • হোম
  • বিশেষ প্রতিবেদন
  • ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দ উপজেলা কমপ্লেক্সের সামনে স্থাপিত ট্রাকের ওজন স্কেলের বেহাল দশা।

ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দ উপজেলা কমপ্লেক্সের সামনে স্থাপিত ট্রাকের ওজন স্কেলের বেহাল দশা।

admin6

আপডেট টাইম : অক্টোবর ০২ ২০১৬, ২০:০৪ | 639 বার পঠিত

রাজবাড়ী প্রতিনিধি ।।- ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দ উপজেলা কমপ্লেক্সের সামনে স্থাপিত ট্রাকের ওজন স্কেলের বেহাল দশা। এই স্কেল থেকে সরকারের প্রতিদিন প্রায় ২লাখ টাকা আয় হলেও মেরামতের অভাবে প্রতিনিয়তই ট্রাক চালকদের দুর্ভোগে পড়তে হয়। দৌলতদিয়া ঘাটে ফেরীতে ওঠার আগে এই স্কেলে ট্রাক ওজন করা হয়। প্রতিদিন প্রায় ১হাজার ট্রাক এই রুটে চলাচল করে। ফেরীতে ওঠার সময় প্রতিটি ট্রাককে নির্দিষ্ট পরিমাণ মালের অতিরিক্ত মাল বহন করলে টনপ্রতি ১২০ টাকা হারে অতিরিক্ত মাসুল দিতে হয়। স্কেলটি যেভাবে আয় হয়, সেভাবে নজরদারী নাই। সরেজমিনে দেখা যায়, স্কেলের দুই পাশে কালো কালো ধারালো ঝামা ইট ফেলে গর্ত ভরাট করা হয়েছে। এর ফলে প্রায়ই মালবোঝাই ট্রাকের টায়ার বার্স্ট হয়। এতে ঢাকাগামী মাল বোঝাই ট্রাক চালকরা অতিষ্ঠ হয়ে পড়েন। আড়াই বছর আগে ঢাকার ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স বেলাল এন্ড ব্রাদার্স নামে একটি কোম্পানী স্কেলটি স্থাপন করে। তৎকালীন সময় প্রায় দুই কোটি টাকা ব্যয়ে এটি স্থাপন করা হয়। স্থাপনের পর থেকেই বার বার স্কেলটি বিকল হয়ে পড়ছে। অভিজ্ঞ মহল জানায়, নিম্নমানের মালামাল ব্যবহারের ফলেই এ ধরণের ঘটনা ঘটছে। ওই সময়ই স্কেলটির দুই পাশে কাঁচা মাটির উপর নামমাত্র কার্পেটিং করে কোম্পানী। ৩মাস যেতে না যেতেই কার্পেটিং উঠে স্কেলের দুই পাশে কাদামাটির রাস্তায় পরিণত হয়। সে সময় থেকেই ইট-বালু ফেলতে ফেলতে বর্তমানে এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। স্কেলের উপরে চেকার প্লেট ভেঙ্গে যাওয়ায় ট্রাক চালকরা ঝুঁকি নিয়ে গাড়ী পার করেন। মাঝে মাঝে গাডার, চেকার প্লেট পাল্টানোর নামে লাখ লাখ টাকা খরচ করা হয়। অথচ দীর্ঘ মেয়াদী কোন ব্যবস্থা নেওয়া হয় না। এ ব্যাপারে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়ার রুটের বিআইডব্লিউটিসির সহকারী এজিএম আব্দুল কুদ্দস জানান, দৌলতদিয়া ও পাটুরিয়া ঘাটের দুইটি স্কেল মেরামতের জন্য ঢাকার মেসার্স এ.কে ভুঁইয়া এন্ড কোম্পানীকে টেন্ডারের মাধ্যমে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। স্কেল দু’টি মেরামতের জন্য ১লাখ ১৯হাজার টাকা করে ২লাখ ৩৮হাজার টাকা বরাদ্দ হয়েছে। বিআইডব্লিউটিসি মালামাল সরবরাহ করবে এবং ঐ প্রতিষ্ঠান মেরামতের কাজ করবে। দুই পাশের এ্যাপ্রোচ সড়ক পরে মেরামত করা হবে। এক প্রশ্নের জবাবে সহকারী এজিএম আব্দুল কুদ্দস বলেন, স্কেলটি স্থাপনের সময় আমাদের অভিজ্ঞতা না থাকায় বুঝে উঠতে পারি নাই যে স্কেলটি আরো মজবুত করা দরকার ছিল। তবে আগামীতে এগুলো আরো টেকসই ও মজবুত করে স্থাপন করার পরিকল্পনা আমাদের আছে।

Please follow and like us:

পাঠক গনন যন্ত্র

  • 4397231আজকের পাঠক সংখ্যা::
  • 9এখন আমাদের সাথে আছেন::

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৮৮০৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET