২রা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার, ১৮ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ২০শে শাবান, ১৪৪৫ হিজরি

শিরোনামঃ-
  • হোম
  • কৃষি সংবাদ
  • তাড়াশে বিনা চাষে রসুনের বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা” স্বপ্ন দেখছে কৃষক




তাড়াশে বিনা চাষে রসুনের বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা” স্বপ্ন দেখছে কৃষক

শফিকুল ইসলাম. তাড়াশ,সিরাজগঞ্জ ,করেসপন্ডেন্ট।

আপডেট টাইম : ফেব্রুয়ারি ০৬ ২০২৪, ২১:৩৬ | 623 বার পঠিত | প্রিন্ট / ইপেপার প্রিন্ট / ইপেপার

সিরাজগঞ্জের তাড়াশের বিভিন্ন এলাকায় এ বছর বিনা চাষে রসুনের ব্যাপক আবাদ করা হয়েছে। বন্যার পানি কার্তিকের শেষে অগ্রহায়ণের শুরুতে মাঠ থেকে নেমে যাওয়ার সাথে সাথে পলিমাটি শুকিয়ে যাওয়ার আগেই কাঁদা মাটিতেই এ রসুন চাষ করে থাকে। তখন কৃষকেরা কোনো রকম হালচাষ ছাড়াই রসুন বপনে ব্যস্ত হয়ে পরেন। আর এ পদ্ধতিতে মসলা জাতীয় ফসল রসুন উৎপাদন করে লাভবান হচ্ছেন এলাকার শতশত কৃষক। বিনা চাষে রসুন আবাদ কৃষকদের কাছে এখন জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। এখন বোরো আবাদের পাশাপাশি কৃষকরা বিনা চাষে রসুন উৎপাদনে বেশি আগ্রহ দেখাচ্ছেন। এ ছাড়াও উপজেলা কৃষি অফিসও তাদেরকে দিচ্ছেন বিনা চাষে রসুন উৎপাদনে নানা রকম পরামর্শ। বিনা চাষে রসুন আবাদে খরচ কম, বাজার মূল্য ভাল এবং লাভজনক হওয়ায় কৃষকেরা রসুন চাষে প্রতিবছর ঝুঁকে পড়ছেন এমনটাই বললেন নাদোসৈয়দপুর গ্রামের বিল নাদো পাড়ার কৃষক আনিচ মোল্লা। তিনি আরো বলেন, এ পদ্ধতিতে চাষাবাদে চাষের পদ্ধতির চেয়ে দ্বিগুণ রসুন উৎপাদন হয়ে থাকে। উপজেলার ধামাইচ গ্রামের কৃষক নান্টু বলেন, আমি তিন বিঘা জমিতে বিনা চাষে রসুন রোপণ করেছি, বিনা চাষে প্রতিবিঘা রসুন চাষ করতে সর্বমোট ১৫ থেকে ২০ হাজার টাকা লাগে। শেষ পর্যন্ত আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে এবারে চলনবিল এলাকায় রসুনের বাপ্পার ফলন আশা করছি,পাশাপাশি কর্তৃপক্ষের কাছে ফসলের ন্যায্য বাজার নিশ্চিত করার দাবি জানান।
উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, চলতি মৌসুমে তাড়াশ উপজেলার বিভিন্ন মাঠে ৪৭০ হেক্টর জমিতে বিনা চাষে রসুনের আবাদ হয়েছে। বোরো আবাদের চেয়ে রসুনের চাষ লাভ জনক হওয়ায় বোরো ধানের পাশাপাশি রসুনের আবাদ প্রতি বছরই বৃদ্ধি পাচ্ছে। রসুন একটা মসলা জাতীয় ফসল। রসুনের ফলন বৃদ্ধির লক্ষ্যে কৃষি অফিসের দায়িত্ব প্রাপ্ত লোকজন সার্বক্ষনিক কৃষকের পাশে রয়েছেন।
এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, তাড়াশ উপজেলার মাগুড়াবিনোদ ইউনিয়নের নাদোসৈয়দপুর, চরহামকুড়িয়া, মাগুড়াবিনোদ, বিন্নাবাড়ি, বিলনাদো, কাটাবাড়ি, ধামাইচ, সগুনা ইউনিয়নের ঘরগ্রাম, দোবিলা, দেবীপুর, হামকুড়িয়া, নওগাঁ ইউনিয়নের ভাটড়া, নওগাঁ, মহিষলুটিসহ বিভিন্ন মাঠে এ বছর ব্যাপক রসুনের চাষ হয়েছে।  এ সময় মাঠে মাঠে কৃষকেরা রসুনের পরিচর্যায় ব্যস্ত সময় পার করছেন।  এখন চলছে রসুন পরিচর্যার ভরা মৌসুম। বিলের যেদিকে তাকানো যায়  সেদিকেই নারী-পুরুষের পাশাপাশি ছোট ছোট ছেলেরা-মেয়েরাও  রসুনের জমিতে আগাছা পরিস্কার ও পরিচর্যা করছে। আর যে সমস্ত জমির মাটিতে রস কমে গেছে সে সকল জমিতে শ্যালো মেশিন দ্বারা পানি সেচ দেওয়া হচ্ছে।

Please follow and like us:

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৬০১৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com নিউজ রুম।

Email-Cvnayaalo@gmail.com সিভি জমা।

 

 

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET