১৩ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার, ৩০শে চৈত্র, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ৩রা শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

শিরোনামঃ-
  • হোম
  • করোনা-ভাইরাস
  • তাহেরপুরে ফেসবুকে ছবি পোষ্টকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের হাত থেকে রক্ষা করলো পুলিশ




তাহেরপুরে ফেসবুকে ছবি পোষ্টকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের হাত থেকে রক্ষা করলো পুলিশ

প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

আপডেট টাইম : জানুয়ারি ০২ ২০১৮, ২২:৫৭ | 727 বার পঠিত | প্রিন্ট / ইপেপার প্রিন্ট / ইপেপার

নাজিম হাসান,রাজশাহী প্রতিনিধি:-  রাজশাহীর বাগমারার তাহেরপুর পৌরসভা এলাকায় ফেসবুকে ছবি পোষ্টকে কেন্দ্র করে আওয়ামীলীগের দু’গুরুপের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের হাত থেকে বড় ধরনের রক্ষা করলো পুলিশ। পোষ্টকে কেন্দ্র করে গতকাল মঙ্গল সকাল থেকেই তাহেরপুরের বিভিন্ন রাস্তায় অবস্থান নেয় দু’গুরুপের লোকজন। পরে পুলিশ গিয়ে পরি¯্হিিত নিয়ন্ত্রণে আনেন। এতে পৌরসভা বাজারে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে এবং লোকজন বিভিন্ন দোকানপাট বন্ধ করে রাখে। পুলিশ ও এলাকাবাসি সুত্রে জানাগেছে, বাগমারা আসনের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হকের সমর্থকরা মেয়র আবুল কালাম আজাদের পুরাতন বাড়ি ও বর্তমান বাড়ির ছবি তুলে সাংবাদিক এস.এম সামসুজ্জোহা মামুন শাহ’র নাম ব্যবহার করে ফেসবুকে ছবি পোষ্ট করে। এতে মেয়র আবুল কালাম আজাদের লোকজন ক্ষিপ্ত হয়ে তাহেরপুর ভুমি অফিসের সামনে অবস্থান নেয়। পরে বেলা সোয় ১১টার দিকে সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হকের সমর্থকরা সেখানে প্রতিহেতের ঘোষণা দিয়ে অবস্থান নিতে গেলে পুলিশ তাদেরকে বাধা দেন। এতে দুই পক্ষের মধ্যে বড় ধরনের সংঘর্ষের ঘটনার হাত থেকে রক্ষা পায় তাহেরপুরবাসি। এবিষয়ে সাংবাদিক এস.এম সামসুজ্জোহা মামুন শাহ জানান,আমার নাম ব্যবহার করে ফেসবুকে ছবি পোষ্ট করা হয়েছে। কিন্ত আমি এ ধরনের কোনো রকম ছবি উঠায়নি। অথচ আমার নাম ব্যবহার করে ফেসবুকে ছবি পোষ্ট দেওয়া হয়েছে। এবং আমার ফেসবুক আইডি নেই। এইটা একটা দু:খ জনক ঘটনা এবং আমি এর তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি। মেয়র আবুল কালাম বলেন, আমার জনপ্রিয়তাই ইশানিত হয়ে এমপি সমর্থকরা তার নিজ নির্বাচনী এলাকায় শান্ত পরিবেশকে অশান্ত করার চেষ্টা করছেন। আমি আমার লোকজনদের শান্ত থাকার পরামশ্য দিয়েছি। এবং সময় এলে এলাকার জনগণই তাদেরকে জবাব দিবেন। তাহেরপুর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ এস আই লুৎফর রহমান জানান, সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হকের সমর্থক এবং মেয়র আবুল কালাম আজাদের সমর্থকদের মধ্যে ফেসবুকে ছবি পোষ্টকে কেন্দ্র করে উত্তেজিত হয়ে উঠেন। এবং তারা তাহেরপুর ভুমি অফিসের গেটের সামনে অবস্থান নেয়। পরে পুলিশ খবর পেয়ে এ এস আই দাউদের নেত্বতে অতিরিক্ত পুলিশ সেখানে গিয়ে বাধা দিয়ে লাঠি চার্জ করে ছত্রভঙ্গ করে দেয়। এবং আতঙ্কে কলেজ এলাকার সব দোকানপাট বন্ধ হয়ে যায়। পুলিশের প্রচেষ্টায় কোনো বড় ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। তবে এলাকা এখন সান্ত এবং পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে বলে এস আই লুৎফর রহমান জানান

Please follow and like us:

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৬০১৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com নিউজ রুম।

Email-Cvnayaalo@gmail.com সিভি জমা।

 

 

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET