২৫শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, রবিবার, ১০ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৪ই জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি

শিরোনামঃ-

নতুন কমিটির সদস্যদের নিয়ে জিয়ার মাজারে খালেদা

Khorshed Alam Chowdhury

আপডেট টাইম : আগস্ট ২৩ ২০১৬, ০৪:৪৮ | 649 বার পঠিত

28441_b2নয়া আলো ডেস্ক- বিএনপির নবনির্বাচিত কমিটির নেতাদের নিয়ে দলের প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের সমাধিতে ফুলেল শ্রদ্ধা জানিয়েছেন চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। বিপুলসংখ্যক নেতাকর্মীর শোডাউনের মধ্য দিয়ে গতকাল বিকালে তিনি এ শ্রদ্ধা জানান। জিয়াউর রহমানের  সমাধিতে শ্রদ্ধা জানানোর পর সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, কাউন্সিলের মাধ্যমে কিছুদিন আগে নির্বাহী কমিটি গঠন করেছেন চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। তাই কমিটির নেতাদের নিয়ে দলের প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের সমাধিতে শ্রদ্ধা জানাতে এসেছেন। তারা আজ এখান থেকে শপথ নিয়েছেন যে, বাংলাদেশের গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠা ও পুনরুদ্ধারে অগ্রণী ভূমিকা পালন করবেন। আমরা আশা করি, নতুন কমিটির মাধ্যমে দেশে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার হবে। মির্জা আলমগীর অভিযোগ করে বলেন, আওয়ামী লীগ একনায়কতন্ত্র ও একদলীয় ব্যবস্থা কায়েমের চেষ্টা করছে। তাই ২১শে আগস্ট গ্রেনেড হামলার সঙ্গে বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে জড়ানোর চেষ্টা করছে। ওই মামলায় প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় চার্জশিটে তারেক রহমানের নাম ছিল না। এ সরকার ক্ষমতায় আসার পর চতুর্থবার যে চার্জশিট দেয়া হয়, সেখানে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে তারেকের নাম জড়ানো হয়েছে। অন্যায়ভাবে আমাদের নেতাদের নাম জড়ানো হয়েছে। আমরা এর তীব্র নিন্দা জানাই। তিনি বলেন, আমরা চাই- ২১শে আগস্টের হত্যাকাণ্ডের সুষ্ঠু তদন্ত করে প্রকৃত হত্যাকারীকে দৃষ্টান্তমূলক সাজা দেয়া হোক। ২১শে আগস্টের ঘটনার সঙ্গে বিএনপি নেতাদের জড়িত থাকার অভিযোগ প্রসঙ্গে মির্জা আলমগীর বলেন, বরাবরই আমরা লক্ষ্য করেছি, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, যারা একসময়ে গণতন্ত্রের পক্ষে লড়াই করেছে, মানুষের অধিকার আদায়ের জন্য লড়াই করেছে, তারা আজকে সম্পূর্ণভাবে একনায়কতন্ত্র এবং একদলীয় শাসন ব্যবস্থার প্রতিষ্ঠার জন্য এগিয়ে চলেছে। তিনি বলেন, সরকার এখানে কোনো ?হত্যাকাণ্ডের সুষ্ঠু বিচার করেনি। সুষ্ঠু বিচার করেনি দেখেই আজকে বিভিন্ন হত্যাকাণ্ড বেড়ে গেছে। আপনারা দেখেছেন, ক্রসফায়ার ও গান ব্যাটেলে কথা বলে কোনো বিচার ছাড়াই মানুষকে হত্যা করা হচ্ছে। রামপালে বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্রের সমালোচনা করে বিএনপি মহাসচিব মির্জা আলমগীর বলেন, আমাদের অবস্থান পরিষ্কার। আমরা মনে করি, বাংলাদেশের স্বার্থ ক্ষুণ্ন করে সুন্দরবনকে বিনষ্ট করে, পরিবেশকে দূষিত করে, রামপালে প্রস্তাবিত বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণের যে কথা চলছে, আমরা তার বিরোধিতা করি। আমরা মনে করি, বিদ্যুৎ আমাদের দরকার। তবে সেটা অবশ্যই আমার সুন্দরবনকে বাদ দিয়ে করতে হবে, সুন্দরবনকে রক্ষা করতে হবে। এর আগে গতকাল বিকাল সোয়া ৫টায় শেরেবাংলা নগরে জিয়াউর রহমানের সমাধিতে পৌঁছেন খালেদা জিয়া। দুপুর থেকে সেখানে জমায়েত হওয়া হাজার হাজার নেতাকর্মী করতালি দিয়ে তাকে স্বাগত জানান। কর্মীদের ভিড় ডিঙিয়ে খালেদা জিয়াকে সমাধি পর্যন্ত নিয়ে যেতে নিরাপত্তাকর্মীদের বেশ বেগ পেতে হয়। পরে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতার কবরে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ শেষে নেতাকর্মীদের নিয়ে বিশেষ মোনাজাতে অংশ নেন খালেদা জিয়া। এ সময় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, তরিকুল ইসলাম, ব্রি. জেনারেল (অব.) হান্নান শাহ, মির্জা আব্বাস, নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ, সেলিমা রহমান, ইনাম আহমেদ চৌধুরী, খন্দকার মাহবুব হোসেন, মোহাম্মদ শাহজাহান, আবদুল আউয়াল মিন্টু, মেজর জেনারেল (অব.) রুহুল আলম চৌধুরী, অধ্যাপক ডা. জাহিদ হোসেন, শামসুজ্জামান দুদু, আহমেদ আজম খান, ব্যারিস্টার আমিনুল হক, শাহজাহান ওমর বীরউত্তম, নিতাই রায় চৌধুরী, অ্যাডভোকেট জয়নাল আবেদীন, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমানউল্লাহ আমান, অধ্যাপিকা তাজমেরী ইসলাম, কাজী আসাদ, হাবিবুর রহমান হাবিব, আনহ আখতার হোসেইন, জয়নুল আবদিন ফারুক, ব্যারিস্টার হায়দার আলী, নাজমুল হক নান্নু, আফরোজা খান রীতা, লুৎফুর রহমান খান আজাদ, তৈমূর আলম খন্দকার, যুগ্ম মহাসচিব ব্যারিস্টার মাহবুবউদ্দিন খোকন, সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, মজিবুর রহমান সরোয়ার, খায়রুল কবীর খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক শামা ওবায়েদ, সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স সহ বিএনপি কেন্দ্রীয় ও ঢাকা মহানগর এবং বিভিন্ন অঙ্গ দলের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন। এদিকে নতুন কমিটির এ পুষ্পার্ঘ্য অর্পণকে কেন্দ্র করে বিএনপি ও অঙ্গ দলের নেতাকর্মীদের ঢল নেমেছিল শেরেবাংলা নগরে। দীর্ঘদিন আন্দোলন কর্মসূচির বাইরে থাকা নেতাকর্মীদের মধ্যে দেখা গেছে ব্যাপক উচ্ছ্বাস-উদ্দীপনা। দুপুরের পর থেকে আগত নেতাকর্মীরা নেতাদের ব্যানার-ফেস্টুনসহ খণ্ড খণ্ড মিছিল নিয়ে স্লোগান দিতে দিতে জিয়ার সমাধি প্রাঙ্গণ মুখরিত করে তোলেন। খালেদা জিয়া পৌঁছার আগে কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে যায় সমাধিস্থল। কবর প্রাঙ্গণের দেয়ালে টানানো হয় বিশাল আকারের জাতীয় পতাকা ও বিএনপির দলীয় পতাকা। উল্লেখ্য, ১৯শে মার্চ ঢাকার ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউটে দলের ষষ্ঠ জাতীয় কাউন্সিল অনুষ্ঠানের সাড়ে চার মাস পর গত ৬ই আগস্ট ৫৯১ সদস্যবিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করে বিএনপি। নতুন কমিটির পর এটাই বিএনপির বড় শোডাউন।

Please follow and like us:

পাঠক গনন যন্ত্র

  • 4645621আজকের পাঠক সংখ্যা::
  • 2এখন আমাদের সাথে আছেন::

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৮৮০৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com নিউজ রুম।

Email-Cvnayaalo@gmail.com সিভি জমা।

 

 

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET