১৯শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার, ৫ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৫ই জমাদিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি

শিরোনামঃ-
  • হোম
  • বাংলার অগ্রগতি
  • নাঙ্গলকোটে ১৬ ইউনিয়নে নির্বাচন ২৮ মে- সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রায় ২০০ জন নির্বাচন হতে পারে দুই ভাগে

নাঙ্গলকোটে ১৬ ইউনিয়নে নির্বাচন ২৮ মে- সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রায় ২০০ জন নির্বাচন হতে পারে দুই ভাগে

Khorshed Alam Chowdhury

আপডেট টাইম : এপ্রিল ২৪ ২০১৬, ১৯:১৫ | 677 বার পঠিত

আজিম উল্যাহ হানিফ:
৫ম ধাপের বা পর্বে ৭৩৩ ইউপির ভোট হতে যাাচ্ছে ২৮ মে শনিবার। তার মধ্যে নাঙ্গলকোট উপজেলার ৩২৯টি গ্রাম জুড়ে নির্বাচনী উত্তাপ বয়ে চলেছে। এ নির্বাচনে উপজেলার ১৬টি ইউনিয়নে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার জন্য গ্রুপিং লবিং করছেন প্রায় ২০০ চেয়ারম্যান পদে প্রার্থীরা।

সংবাদটি লেখার সময় পর্যন্ত সরকার দলীয় আওয়ামীপন্থী প্রার্থীদের মনোনয়ন দেওয়া হয়ে গেছে প্রায়। বিরোধী দলীয় জাতীয়পার্টি ও প্রস্তুতি নিতে চলেছেন। ২০ দলীয় জোটের শরীক দল বিএনপি, জামায়াতে ইসলামী, বাংলাদেশ লেবারপার্টি, শ্রমিক কল্যান ফেডারেশন, জাতীয় পার্টি (কাজী জাফর) ও স্বতন্ত্র প্রার্থীরা মাঠে বেশ সরব। এ পর্বের নির্বাচনে সারাদেশের মত নাঙ্গলকোটেও মনোনয়ন দাখিলের শেষ সময় ২ মে সোমবার, মনোনয়ন পত্র যাচাই বাছাই ৪ মে বুধবার ও ৫ মে বৃহস্পতিবার। প্রার্থীতা প্রত্যাহারের শেষ দিন ১২ মে বৃহস্পতিবার। আর ভোট গ্রহন অনুষ্ঠিত হবে ২৮ মে শনিবার।UP_nirbachan_17

গত ২১ এপ্রিল বৃহস্পতিবার নির্বাচন কমিশন সচিবালয় থেকে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তফসিল ঘোষনা করা হয়। তবে নাঙ্গলকোট ও কুমিল্লা নিবার্চন অফিস সূত্রে জানা গেছে, সীমানা নিয়েসহ ইউনিয়ন সংক্রান্ত কোন ধরনের মামলা মোকদ্দমা থাকলে বা বির্তকিত থাকলে পরবর্তীতে নির্বাচন হবে ওই ইউনিয়নের। নয়তবা ২ মেই অনুষ্ঠিত হয়ে যাবে উপজেলার ১৬ টি ইউনিয়নের নির্বাচন এক সাথেই। এই আসন্ন ইউপি নিবার্চনে নাঙ্গলকোট উপজেলার ১৬টি ইউনিয়ন নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে ব্যাপক গনসংযোগ ও পত্রপত্রিকা আর ফেইসবুকে প্রার্থীসহ সমর্থকদের ব্যাপক প্রচারনা চলছে। এই নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন ধানের শীষ প্রতীকে বিএনপি, নৌকা প্রতীকে আওয়ামীলীগসহ জাতীয় পার্টি, জামায়াতে ইসলামী, বাংলাদেশ লেবারর্পাটিসহ বিভিন্ন দল। উপজেলার ১ নং বাঙ্গড্ডাতে প্রার্থী হচ্ছেন সদ্য বিএনপি থেকে আওয়ামীলীগে যোগ দেয়া সাবেক চেয়ারম্যান শাহজাহান মজুমদার, স্বতন্ত্র হিসেবে সাইফুল ইসলাম। বর্তমান চেয়ারম্যান এয়াকুব আলী মজুমদারও আলোচনায় আছেন, যদিও তিনি নিজ দলের প্রার্থীকে সমর্থন জানিয়েছেন।

লেবারপার্টির উপজেলা সাধারণ সম্পাদক জাভেদ ও আলোচনায় রয়েছেন বাঙ্গড্ডা ইউনিয়নে। ২ নং পেড়িয়া ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের হুমায়ুন কবির মজুমদার, আবদুল হামিদ চেয়ারম্যান, বিএনপি থেকে আবদুল গফুর ভূইয়াপন্থী আবুল বাশার, শাহ আলম। মোবাশ্বের আলম ভূইয়া পন্থী কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজ ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক মো: আহসান উল্যাহ, আবুল কাশেম। স্বতন্ত্র আরাফাত রহমান সবুজ, লেবারপার্টির অধ্যাপক শাহজাহান, জামায়াত থেকে সাংবাদিক সহিদ উল্যাহ মিয়াজী। ৩নং রায়কোট উত্তর ইউনিয়নে আওয়ামীলীগ থেকে মাস্টার রফিকুল ইসলাম মজুমদার, সদ্য বিএনপি থেকে আওয়ামীলীগে যোগ দেয়া (লোটাস কামালের কাকাখ্যাত) আবদুল হক মেম্বার, বিএনপি থেকে নজির আহমেদ, কাজী দেলোয়ার হোসেন, জাতীয় পার্টি থেকে রেজাউল করীম, লেবারপার্টি থেকে ২০ দলীয় জোটের ব্যানারে অধ্যাপক মহসীন ভূইয়া, জামায়াত থেকে অধ্যাপক মালেক মোল্লা ও মাওলানা জাফর আহমেদ মজুমদার, স্বতন্ত্র এম এ রহিম দুলাল, ব্যাপক প্রচার প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছেন।

রায়কোট দক্ষিন ইউনিয়ন পরিষদে আওয়ামীলীগ থেকে আবুল কালাম ভূইয়া, মাওলানা খুরশিদ আলম, মজিবুর রহমান মজিব চেয়ারম্যান, দেলোয়ার হোসেন পিন্টু, বিএনপি থেকে মো: ফারুক হোসেন, মো: এয়াকুব, বিএনপি থেকে নজরুল ইসলাম মিনু,জামায়াত থেকে খন্দকার মাহফুজুল আলম আলোচনায় রয়েছেন। ৪ নং মৌকারায় আওয়ামীলীগ মনোনীত আবু তাহের চেয়ারম্যান। বিদ্রোহী হিসেবে প্রার্থী হচ্ছেন সাইফ উদ্দিন আলমগীর। সাতবাড়িয়ায় জুয়েল মজুমদার। দৌলখাড় ইউনিয়নে আবুধাবী প্রবাসী আলমগীর হোসেন, আবুল কালাম মজুমদার, জামাল মেম্বার, জামায়াত থেকে সাইফুল ইসলাম সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী হতে পারেন। বটতলী ইউনিয়ন থেকে উপজেলা আওয়ামীলীগের আহবায়ক ও দৌলখাড় ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম চেয়ারম্যান এবারো প্রার্থী হতে পারেন বটতলী থেকে। এছাড়াও ছাত্রলীগ নেতা আমিনুল ইসলাম রকি, আবদুল জলিল আলোচনায় রয়েছেন। জাতীয় পার্টি থেকে ব্যবসায়ী সোলাইমান আলোচনায় আছেন।

বক্সগঞ্জ ইউনিয়নে বিএনপি নেতা বর্তমান চেয়ারম্যান গোলাম রসূল এবারো প্রার্থী হবেন। মক্রবপুর ইউনিয়নে আওয়ামীলীগ থেকে গোলাম মর্তুজা চৌধুরী মুকুল, মোবারক খান, জাহাঙ্গীর আলম এবারো আলোচনায় আছেন। বিএনপি থেকে বর্তমান চেয়ারম্যান মাজহারুল ইসলাম ছুপু চেয়ারম্যান প্রার্থী হতে পারেন। এছাড়াও ছাত্রদলের আহবায়ক মো: মনির হোসেন, ছাত্রদল নেতা মোদাচ্ছের হোসেন লিটন মজুমদারও আলোচনায় রয়েছেন। হেসাখাল ইউনিয়নে আওয়ামীলীগ থেকে জালাল আহমদ ভূইয়া, বিদ্রোহী বা স্বতন্ত্র প্রার্থী হতে পারেন সুহৃদ কারিগরী বিজ্ঞান ও বানিজ্য কলেজের প্রভাষক ইকবাল বাহার মজুমদার। এছাড়াও আলোচনায় থাকলে ও জালালের পক্ষে কাজ করছেন আবদুল মতিন ও মোতালেব হোসেন। বিএনপি থেকে আজাদ, মফিজ, রিয়াজ আলোচনায় রয়েছেন। জামায়াত থেকে এবারো প্রার্থী হতে পারেন মাওলানা মহিন উদ্দিন।

আদ্রা ইউনিয়ন উত্তরে চেয়ারম্যান পদে আলোচনায় রয়েছেন-নাছির উদ্দিন রতন, জীবন বাবু, তাজুল ইসলাম মজুমদার, বর্তমান চেয়ারম্যান আশিকুর রহমান দোলন খান, এডভোকেট আবদুর রহমান,ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি লোকমান হোসেন ভূইয়া, আবদুল খালেক চেয়ারম্যান, সাংবাদিক আজিম উল্যাহ হানিফ। আদ্রা ইউনিয়ন দক্ষিনে সম্ভাব্য প্রার্থীরা হলেন-   সাপ্তাহিক সময়ের র্দপনের সম্পাদক এ এফ এম শোয়ায়েব, আওয়ামীলীগের আবদুল ওহাব, মাহবুবুল আলম, নাছির উদ্দিন, মাস্টার সাইফুল্লাহ, রুহুল আমিন। জোড্ডা পূর্ব ইউনিয়নে যুবলীগ নেতা আনোয়ার হোসেন মিয়াজী, এবিএম সোলাইমান বিএসসি, নুরুল আফছার,জহিরুল ইসলাম জহির,আবদুর রহিম মোল্লা,বিএনপি থেকে যুবদল সভাপতি শফিকুর রহমান বাবুল চেীধুরী (এম এ),আবুল কালাম প্রমুখ। জোড্ডা পশ্চিম ইউনিয়নে র্বতমান চেয়ারম্যান চেয়ারম্যান বিএনপির আলী আককাছ, আওয়ামীলীগ থেকে নাছির উদ্দিন মানিক, আবদুল করিম আলোচনায় আছেন। ঢালুয়ায় সাবেক এমপি জয়নাল আবেদীন ভূইয়ার ভাতিজা বর্তমান চেয়ারম্যান নাজমুল হাছান ভূইয়া বাছির, জিল্লুর রহমান,মফিজুর রহমান, বিএনপির নাসির উদ্দিন ভূইয়া, জামায়াতের মাওলানা মকবুল ও ছাত্রশিবির নেতা জামাল উদ্দিন আলোচনায় রয়েছেন।

Please follow and like us:

পাঠক গনন যন্ত্র

  • 4315407আজকের পাঠক সংখ্যা::
  • 2এখন আমাদের সাথে আছেন::

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৮৮০৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET