১৮ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শুক্রবার, ৪ঠা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৭ই জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি

শিরোনামঃ-
  • হোম
  • সকল সংবাদ
  • নারীকেলেংকারীসহ বহু অপকর্মের হোতা নড়াইলের কামাল প্রতাপের এনায়েত এখন বেপরোয়া ॥ পলিশ সুপারের সুদৃষ্টি কামনা

নারীকেলেংকারীসহ বহু অপকর্মের হোতা নড়াইলের কামাল প্রতাপের এনায়েত এখন বেপরোয়া ॥ পলিশ সুপারের সুদৃষ্টি কামনা

প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

আপডেট টাইম : নভেম্বর ০৪ ২০১৬, ২৩:৩৩ | 647 বার পঠিত

উজ্জ্বল রায়, নড়াইল জেলা প্রতিনিধি ■
নড়াইল: নারী কেলেংকারী,এলাকায় যুবসমাজের কাছে মাদকসরবরাহকারী হিসেবে পরিচিত বহু অপকর্মের হোতা নড়াইল সদর উপজেলার এনায়েত কাজী (৩৫) আরো বেপরোয়া হয়ে উঠেছে।আইন-শৃংখলা রক্ষাবাহিনীর সদস্যদের চোখ ফাঁকি দিয়ে বেপরোয়া গতিতে একের পর এক অপকর্ম করে চলেছে।অর্থের দাপট আর গ্রাম্য দলীয় শক্তি ব্যবহার করে তিনি কাউকে পরোয়া করেন না।গ্রামের সুন্দরী কোন মেয়ে বা গৃহবধূর প্রতি তার দৃষ্টি পড়লে তার আর রক্ষা নেই।নারীদের প্রতি এনায়েতের লোলুপ দৃষ্টির প্রতিবাদ করার সাহস রাখেনা কেউ।গৃহবধূর ওপর তার ঘৃণ্য দৃষ্টি পড়ার কারণে কয়েকটি সংসার ভেঙ্গে তছনছ হয়ে গেছে। আমাদের নড়াইল জেলা প্রতিনিধি উজ্জ্বল রায়ের পাঠানো তথ্যর ভিতিতে জানা যায় নাম প্রকাশ না করার শর্তে কামাল প্রতাপ গ্রামের একাধিক ব্যক্তি এ প্রতিনিধিকে জানান,কামাল প্রতাপ গ্রামের হামিদ কাজী ওরফে ফজর কাজীর ছেলে ৩ ছেলে-মেয়ের জনক এনায়েত কাজী এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে গাঁজা-ইয়াবাসহ বিভিন্ন ধরনের মাদক ব্যবসা চালিয়ে আসছে।তার নেতৃত্বে গ্রামে মাদক ব্যবসা ছড়িয়ে পড়ায় এলাকার যুবসমাজ ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে।মাদকের টাকা জোগাড় করতে মাদকসেবীরা চুরিসহ ঘৃন্য পেশায় জড়িয়ে পড়েছে।সম্প্রতি ওই গ্রাম ও আশ-পাশ থেকে ৪টি ইঞ্জিন চালিত ভ্যান চুরি হয়েছে।গরীবের একমাত্র সম্বল ভ্যান চুরি হওয়ায় তারা অনাহারে-অর্ধহারে মানবেতর জীবন-যাপন করছে। মাদক সরবরাহের পাশাপাশি এনায়েত নারীর সম্ভ্রমহানিতেও পিছিয়ে নেই।গ্রামের গাউচ মল্লিকের সুন্দরী স্ত্রীর প্রতি তার লোলুপ দৃষ্টি পড়ে।ওই নারীকে নানা প্রলোভন দিয়ে তার সঙ্গে শারিরীক সম্পর্ক গড়ে তোলে।বিষয়টি ২৪ অক্টোবর হাতে-নাতে ধরা পড়লে স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিদের উপস্থিতিতে গত ২৫ অক্টোবর গ্রাম্য শালিসী বসে মুরব্বীরা তাকে ভৎর্সনা করে এবং এ ধরনের গর্হিত কাজ করা থেকে বিরত থাকার জন্য অনুরোধ জানান।এলাকার শান্তি-শৃংখলা বজায় রাখার লক্ষ্যে বাঁশগ্রাম ইউপি চেয়ারম্যানের অনুমতি নিয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্য মুন্সী সেকেন্দার আলী,প্রবীণ ব্যক্তি মুন্সী হাদিউজ্জামান,রাজ্জাক মল্লিক,মুস্তাক কাজী,সত্য রঞ্জন,গোলাম কাজী, শেখ রেজাউলসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিরা গ্রাম্য শালিসীর মাধ্যমে বিষয়টি মিমাংশা করেন।সালিশী সমাধান না মেনে এনায়েত উল্টো হুমকি-ধামকি দিচ্ছে সালিশকারীদের।এনায়েতের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করে প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন এলাকার শান্তিপ্রিয় লোকজন। এর আগেও নারীলোভী এনায়েত গ্রামের এক ডাক্তারের স্ত্রীকে ফুঁসলিয়ে নিয়ে বিয়ে করেছিল। এ ব্যাপারে এনায়েতের সঙ্গে বারবার যোগাযোগের চেষ্টা করে তাকে পাওয়া যায়নি।

Please follow and like us:

পাঠক গনন যন্ত্র

  • 4578659আজকের পাঠক সংখ্যা::
  • 7এখন আমাদের সাথে আছেন::

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৮৮০৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com নিউজ রুম।

Email-Cvnayaalo@gmail.com সিভি জমা।

 

 

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET