১৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, রবিবার, ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১০ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

শিরোনামঃ-
  • হোম
  • সকল সংবাদ
  • নড়াইলে সাব-রেজিষ্ট্রার অফিসে ভুয়া দাতা সেজে জাল দলিল করতে যেয়ে হাতে নাতে গ্রেফতার-১,পাঁচজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের




নড়াইলে সাব-রেজিষ্ট্রার অফিসে ভুয়া দাতা সেজে জাল দলিল করতে যেয়ে হাতে নাতে গ্রেফতার-১,পাঁচজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের

মোহাম্মদ ইমন মিয়া, বাঙ্গরা,কুমিল্লা করেসপন্ডেন্ট।

আপডেট টাইম : এপ্রিল ০৬ ২০১৮, ১৮:৫৭ | 664 বার পঠিত | প্রিন্ট / ইপেপার প্রিন্ট / ইপেপার

উজ্জ্বল রায়, নড়াইল জেলা প্রতিনিধি■
সাব-রেজিষ্ট্রার অফিসে মাত্র দুই হাজার টাকার প্রলোভনে ভুয়া দাতা সেজে অন্যের জমি জাল দলিল তৈরি করে নিবন্ধন করার সময় হাতে নাতে ধরা পড়ে রাজু আহম্মেদ ওরফে সালমান নামের এক প্রতারক। ওই জমির প্রকৃত মালিক অসিম রায় দীর্ঘদিন যাবত ভারতে স্থায়ীভাবে বসবাস করছেন। বৃহস্পতিবার (৫-এ্রপিল) বিকাল সাড়ে পাঁচটার দিকে কালিয়া সাব-রেজিষ্ট্রার অফিসে চাঞ্চল্যকর এ ঘটনা ঘটে। আটকৃত ভুয়া দাতা নড়াগাতি থানার চর বল্লাহাটি গ্রামের আব্দুল খালেকের ছেলে। আটকৃতকে কালিয়া সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটেটের আলাদতে হাজির করলে বিষয়টি ভ্রাম্যমান আদালতের এখতিয়াভূক্ত না হওয়ায় থানায় প্রেরণ করা হয়। প্রধান অফিস সহকারী রিমা খানম বাদী হয়ে কালিয়া থানায় পাঁচজনকে আসামী করে শুক্রবার বিকালে মামলা  দায়ের করেন। ঘটনার বিবরণে জানা যায়, নড়াইলের কালিয়া উপজেলার পহরডাঙ্গা মৌজার আর এস  খতিয়ান নং- ৭৩৬ ও ৮৮৮, দাগ নং-৫৭২ ও ৫০৭ এর পৈতৃকসূত্রে মূল মালিক দুই ভাই অসিম রায় ও তপন রায় । তারা ওই দুই দাগে ৩১ শতক জমির মালিক। অসিম রায়ের জাতীয় পরিচয়পত্রের ছবির নির্দিষ্ট স্থানে সালমানের ছবি স্থাপন করে ভুয়া মালিক সেজে  গ্রহিতা ইউসুফ মোল্যা ও তার স্ত্রী রাখেলা বেগমের নামে কালিয়া সাব-রেজিস্ট্রার অফিসে নিবন্ধন করতে যায়। ৩১ শতক জমির মধ্যে অর্ধেক জমি তপন রায় নিজে ও বাকি অর্ধেক জমির উপজেলার নড়াগাতি থানার চর বল্লাহাটি গ্রামের আব্দুল খালেকের ছেলে রাজু আহম্মেদ ওরফে সালমানকে ভুয়া মালিক সাজিয়ে নিবন্ধন করতে যেয়ে আটক  হয়। এ সময় সাব-রেজিস্ট্রার মঞ্জুরুল হোসেনের সন্দেহ হলে নানা প্রশ্নে সদোত্তর দিতে না পারায় তাকে আটক করলে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে। আটক করে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটেটের ভ্রাম্যমান আদালতে নিয়ে গেলে তাকে থানায় প্রেরণ করেন। ঘটনার সময় অপর বিক্রেতা তপন রায় ও সনাক্তকারী একই থানার পাখিমারা গ্রামের নির্মল বিশ্বাস পালিয়ে যায়। সাব-রেজিষ্ট্রার ও পুলিশ সুত্রে জানা যায়, জমি বিক্রেতা তপন রায়,জাল বিক্রেতা রাজু আহম্মেদ সালমান,গ্রহীতা ইউসুফ মোল্যা ও বাখেলা বেগম  এবং সনাক্তকারী নির্মল কুমার বিশ্বাসকে মামলার আসামী করা হয়েছে।অপরদিকে রহস্যজনক কারণে দলিল লেখক শরীফুল ইসলামকে মামলার আসামী থেকে বাদ দেয়া হয়েছে। এ প্রসঙ্গে সাব-রেজিস্ট্রার মঞ্জুরুল হোসেন নড়াইল জেলা অনলাইন মিডিয়া ক্লাবের সভাপতি উজ্জ্বল রায়কে  বলেন,‘ জাল দলিলের ভুয়া দাতাকে সন্দেহ হলে তাকে আটক করলে ঘটনার সত্যতা বেরিয়ে আসে। পাঁচজনকে আসামী করে কালিয়া থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

Please follow and like us:

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৬০১৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com নিউজ রুম।

Email-Cvnayaalo@gmail.com সিভি জমা।

 

 

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET