২৫শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার, ১২ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১২ই রজব, ১৪৪২ হিজরি

শিরোনামঃ-

পায়ের পাতার নানা ধরনের সমস্যার যত্ন

admin6

আপডেট টাইম : অক্টোবর ১৯ ২০১৬, ২২:৫২ | 661 বার পঠিত

নয়া আলো ডেস্ক-

আমাদের শরীরের সম্পূর্ণ ভার পরে আমাদের পায়ের ওপর। তাই বয়স এবং ওজনের ভিত্তিতে পায়ের পাতার নানা ধরনের সমস্যা দেখা দেয়। শরীরের অন্যান্য অঙ্গের মতোই পায়ের পাতার যত্ন নেওয়াটাও খুব জরুরি।

অনেকের শরীরের অন্যান্য অঙ্গের তুলনায় পায়ের পাতা দেখতে কালো লাগে। এর প্রধান কারণ হলো পায়ের পাতার সঠিক যত্ন না নেওয়া। আপনি চাইলেই ঘরে বসে আপনার পায়ের পাতার যত্ন নিতে পারেন। প্রাকৃতিক উপায়ে এবং আপনার হাতের কাছের জিনিস দিয়েই পরিচ্ছন্ন রাখতে পারেন আপনার পা এবং মুক্তি পেতে পারেন পায়ের পাতাজনিত বিভিন্ন সমস্যা থেকে।

* বার বার পা ভেজালে বা পায়ে পানি জমে থাকলে পায়ের নখে ফাঙ্গাস পড়তে পারে। শুধু সাবান পানি এই ফাঙ্গাসের জন্য পর্যাপ্ত নয়। বরং এই ফাঙ্গাসের জন্য প্রতিদিনের একটি অভ্যাস করে তুলুন আর সেটি হচ্ছে, মাউথ ওয়াসের পানিতে পা ভিজিয়ে রাখা। প্রতিদিন অন্তত পক্ষে ৩০ মিনিট মাউথ ওয়াসের পানিতে পা ভিজিয়ে রাখুন তাহলে পায়ের পাতার ফাঙ্গাসজনিত সমস্যা দূর হয়ে যাবে। এই একই পদ্ধতি আপনি আপনার হাতের ফাঙ্গাসের জন্যও ব্যবহার করতে পারেন।

* অনেকের পায়ের পাতার নিচে এক ধরনের শক্ত গুটি মতো দেখা দেয় যাকে ফুট কর্ণ বলা হয়। নেইল স্পা করলেও এই ফুট কর্ণগুলো সহজে যেতে চায় না। পেয়াজ স্লাইস করে কেটে ভিনাগারের সঙ্গে জ্বাল দিয়ে সেই পানিতে কাপড় ভিজিয়ে নিন। ভেজা কাপড় সারারাত পায়ের বেঁধে রাখুন। এভাবে প্রতিদিন সন্ধ্যা থেকে পায়ে ওই ভেজা কাপড় বেঁধে রাখতে থাকুন যতদিন না ভালো ফলাফল পান। এভাবে বেঁধে রাখতে থাকলে পায়ের নিচের অংশ নরম হয়ে যাবে তারপর যখনি আপনি নাইল স্পা করাতে যাবেন দেখবেন খুব সহজে পায়ের ফুট কর্ণগুলো উঠে গেছে।

* পায়ের পাতার কোনো অংশে ফোস্কা পড়লেও আপনি ওপরের পদ্ধতিটি অনুসরণ করতে পারেন। এটি অনেক এন্টিপারস্পাইরেন্ট হিসেবে কাজ করবে।

* পায়ের কোনো আঙুল ফুলে গেলে আপনি কাঁচা মরিচ ব্যবহার করতে পারেন। যেহেতু মরিচে প্রচুর পরিমাণ ক্যাপ্সাইসিন রয়েছে তাই এটি ফোলা অঙ্গকে তাড়াতাড়ি সারিয়ে তোলে। এছাড়া ফোলা অংশের থেকে সৃষ্ট ব্যথা উপশম করতে লবণ ব্যবহার করতে পারেন। লবণ ম্যাগনেসিয়াম সালফেটের একটি মিশ্র উপাদান যা ব্যথা হ্রাস করা এবং পরবর্তীতে ব্যথা যাতে বড় কোনো আকার ধারণ করতে না পারে তার প্রতিকার করে।

* যাদের পায়ে গোটের সমস্যা রয়েছে তাদের চিনি খাওয়া একেবারেই ত্যাগ করা উচিত। এটা প্রমাণিত সত্য যে, গোট সেই সব খাবার গ্রহণের মাধ্যমে হয় যাতে প্রচুর পরিমান চিনি রয়েছে। প্রাকৃতিক ভাবে গোট সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য বেশি বেশি করে চেরি এবং স্ট্রবেরি খেতে পারেন।

* আপনি যদি ক্রীড়াবিদ হয়ে থাকেন তাহলে পায়ের পাতার ব্যথা উপশমে রসুন স্লাইস করে কেটে পায়ের আঙুলের মাঝে রেখে দিন কয়েক ঘণ্টার জন্য।

Please follow and like us:

পাঠক গনন যন্ত্র

  • 4383789আজকের পাঠক সংখ্যা::
  • 0এখন আমাদের সাথে আছেন::

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৮৮০৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET