১লা মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার, ১৬ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৬ই রজব, ১৪৪২ হিজরি

শিরোনামঃ-
  • হোম
  • সকল সংবাদ
  • ফেনীতে শিক্ষার্থীদের টার্গেট করে নানামুখী প্রতারণায় “টিয়েন্স (তিয়ানশি)”

ফেনীতে শিক্ষার্থীদের টার্গেট করে নানামুখী প্রতারণায় “টিয়েন্স (তিয়ানশি)”

হুমায়ন আরাফাত, আশুলিয়া করেসপন্ডেন্ট।

আপডেট টাইম : জুন ০৪ ২০১৭, ০৯:৪৮ | 1301 বার পঠিত

ফেনী প্রতিনিধিঃ

ফেনীতে এমএলএম কোম্পানি ‘তিয়ানশি বাংলাদেশ’র বিভিন্ন প্রতারণার অভিযোগ উঠেছে। সরকারের বিভিন্ন পদক্ষেপ থাকার পর ও থেমে নেই এমএলএম কোম্পানীর প্রতারণার ব্যবসা। ধরা পড়ে একের পর এক নাম বদল করে অব্যাহত রেখেছে তাদের মানুষ ঠকানোর কার্যক্রম। সরকার এমএলএম-এর নামে প্রতারণার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করলেও কোম্পানীগুলো আদালতে গিয়ে রিট করে রায় স্থগিতের আদেশ পেয়ে আবারও চালিয়ে যাচ্ছে তাদের কর্মকান্ড। তারা শহরের পরিচিত বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে ইফতার পার্টি, চা চক্রসহ নানা অনুষ্ঠানের আড়ালে মানুষের মস্তিষ্ক ধোলাইয়ে ব্যস্ত রয়েছে। অন্য কোম্পানীগুলোর চেয়ে ভাল বলে বেশি কমিশন পাওয়ার লোভ দেখাচ্ছে। তারা তাদের টার্গেট হিসাবে শহরের অসৎ এ্যালোপ্যাথি ও হোমিওপ্যাথি ডাক্তারদেরসহ শিক্ষার্থীদেরকে বেছে নিয়ে তাদের সাথে কমিশনের ভিত্তিতে এই প্রতারণার ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে। এতে ঠকছেন সাধারণ মানুষ। আর তাতে পটেও যাচ্ছেন হুজুগে মাতাল লোভী ব্যক্তিরা। ভুক্তভোগীদের অভিযোগে জানা গেছে, রাতারাতি গাড়ি-বাড়ির মালিক হয়ে যাওয়ার লোভ দেখিয়ে চীনা এমএলএম কোম্পানী তিয়ানশি ফেনী অফিসের তত্ত্বাবধায়ক আব্দুল হান্নান শিক্ষার্থীদেরকে তার অফিসের কর্মী করে। শিক্ষার্থীদেরকে থ্রি স্টার বানানোর প্রলোভন দেখিয়ে ২৪ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয়। এরপর 4, 5, 6, 7 স্টার হলে সিঙ্গাপুর, দুবাইসহ বিভিন্ন দেশে ফ্রি ভ্রমন করানোর কথা বলে আরো লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয়। কোটিপতি বানানোর মিথ্যা আশ্বাস দিয়ে আবু দাউদ, অলিয়ার রহমান, মোকাবের, মতিয়ার, শাহিনা, মমিনসহ প্রায় শতাধিক তরুণ-তরুণীকে কোম্পানিতে যোগদান করান। অভিযোগে আরো জানা যায়, এখানে ডিগ্রীধারি কোন ডাক্তার নেই। তারা নিজেরাই ডাক্তার সেজে রোগী দেখছেন। সারা বিশ্বের বড় বড় বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা যখন ক্যান্সার রোগের নিরাময়ের উপায় খুঁজতে ব্যস্ত। তখন এই সব এমএলএম কোম্পানীগুলো ক্যান্সার চিকিৎসার নানা পণ্য বাজারে নিয়ে ক্যান্সার রোগীদের দূর্বলতার সুযোগ নিচ্ছে। এছাড়া রোগ বালাই নিরাময় হওয়াসহ বিভিন্ন যন্ত্রপাতি কেনার কথা বলে শিক্ষিত তরুণ-তরুণীদের কাছ থেকে আরো লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেওয়া হয়েছে। কথিত আছে তাদের পণ্য কোন ঔষধ নয়, সম্পূরক খাবার মাত্র। অথচ তারা চিকিৎসার নামে অসহায় রোগীদের হাতে এই সব পন্য ঔষধ হিসেবে ধরিয়ে দিয়ে হাতিয়ে নিচ্ছে লক্ষ লক্ষ টাকা। কেউ টাকা ফেরতের কথা বললে তারা উল্টো বিভিন্ন মামলায় ফাঁসিয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে থাকে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক তিয়ানশি’র পণ্য ব্যবহারকারী জনৈক ব্যক্তি জানান, ‘ওরে কেয়ার’ টুথ পেস্ট, হৃদরোগ, যৌন রোগের মেডিসিনসহ প্রায় ৫০টি পণ্য চড়া মূল্যে কমিশন ভিত্তিতে শিক্ষার্থীদের নিয়োগ দিয়ে সাধারণ মানুষের কাছে বিক্রি করছে। আর এগুলো ব্যবহার করে সুফল পাচ্ছেন না ক্রেতারা। ভুক্তভোগীর অভিযোগে জানা গেছে, তিনি নিজেও ১৩৫ গ্রামের একটি টুথ পেস্ট তিনশ’ টাকা বিক্রি করছে। এছাড়া অন্যান্য পণ্যের দামও কয়েকগুন বেশি। সব রোগের এক ওষুধ! অনেকেই কোম্পানির এ প্রতারণার শিকার।
ফেনীর এস.এস.কে রোডের( শেখ আহাম্মদ টাওয়ার) চক্ষু হাসপাতালের উপরে অবস্থিত তিয়ানশির অফিসের তত্ত্বাবধায়ক আব্দুল হান্নান সাথে তার ব্যবহৃত মুঠো ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করে পাওয়া যায়নি।

Please follow and like us:

পাঠক গনন যন্ত্র

  • 4392990আজকের পাঠক সংখ্যা::
  • 4এখন আমাদের সাথে আছেন::

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৮৮০৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET