২০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার, ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১১ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

শিরোনামঃ-
  • হোম
  • দেশজুড়ে
  • বেনাপোলে সন্ধ্যায় পচনশীল পণ্য আমদানি প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা




বেনাপোলে সন্ধ্যায় পচনশীল পণ্য আমদানি প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা

সোহাগ হোসেন, বেনাপোল,যশোর করেসপন্ডেন্ট।

আপডেট টাইম : মার্চ ০৬ ২০২৪, ২২:৩০ | 631 বার পঠিত | প্রিন্ট / ইপেপার প্রিন্ট / ইপেপার

যশোরের স্থলবন্দর বেনাপোল দিয়ে নিয়মিত বিভিন্ন রকমের ফল ও মাছসহ উচ্চ পচনশীল পণ্য বাংলাদেশে আমদানি হয়ে থাকে ভারত থেকে। হঠাৎ করে সন্ধ্যারপর এ সমস্ত পণ্য বন্দরে প্রবেশ করতে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে কাস্টমস কর্তৃপক্ষ। যদিও সরকারের নির্দেশনা রয়েছে ২৪ ঘন্টা পন্য খালাসের। এর ফলে সরকার যেমন রাজস্ব হারাচ্ছে। অপরদিকে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে আমদানিকারকরা। প্রতিবছর রমজান মাসকে সামনে রেখে বেনাপোল বন্দর দিয়ে আমদানিকারকরা বিভিন্ন রকমের ফল, মাছ, কেপসিক্যাম, আতা, টমেটো ইত্যাদি আমদানি করে থাকে। এ মাসে বন্দরে আমদানিকৃত পণ্যের চাহিদা বেড়ে যায় কয়েকগুন। এ বন্দর দিয়ে প্রতিদিন প্রায় দেড় শতাধিক ট্রাকে পচনশীল পণ্য আমদানি হয়। ভারত থেকে এসব পণ্য বোঝাই ট্রাকগুলো সাধারণত বিকেলে বন্দরে প্রবেশ করে।অনেক সময় এসব ট্রাক প্রবেশ করতে রাত হয়ে যায়। কিন্তু কাস্টমস কর্তৃপক্ষ নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে রাতে কোন ফল ও মাছের ট্রাক বন্দরে প্রবেশ করতে পারবে না ।

তারা বলছে সন্ধ্যা ৬ টার মধ্যে ফল মাছসহ সব ধরেনর উচ্চ পচনশীল পণ্য বন্দরে প্রবেশ করতে হবে। দ্রুত পণ্য বাজারজাতকরণ ও রাজস্ব আয়ের গতি ফেরাতে দেশের সব বন্দরে ২৪ ঘণ্টা পণ্য খালাসের নির্দেশনা রয়েছে প্রধানমন্ত্রীর। কিন্তু বেনাপোল বন্দরে সেটা মানা হচ্ছে না। তবে ব্যবসায়ীরা বলছেন কাস্টমস কর্তৃপক্ষ হঠাৎ করে গত ১ সপ্তাহ ধরে পচনশীল পণ্য সন্ধ্যা ৬টার পর বন্দরে প্রবেশ করতে দিচ্ছে না। ফলে ওপারে পেট্রাপোল বন্দরে নষ্ট হচ্ছে পাচনশলী পণ্যের চালানগুলো। আমদানিকারক রয়েল এন্টারপ্রাইজের মালিক রফিকুল ইসলাম রয়েল বলেন, আমি ভারত থেকে ফল ও মাছ আমদানি করি। এই পণ্যগুলো সন্ধ্যার পরে ভারত থেকে বেনাপোল বন্দরে প্রবেশ করতে দিচ্ছে না কাস্টমস কর্তৃপক্ষ।

এ ধরনের কোন নির্দেশনা কাস্টম কর্তৃপক্ষ দিতে পারে না। বন্দর ২৪ ঘণ্টা চালু থাকার কথা কিন্তু কাস্টমস কর্তৃপক্ষ থেকে সময় কমিয়ে আনা হয়েছে। বেনাপোল ট্রাক ট্রান্সপোর্ট মালিক সমিতির সেক্রেটারি আজিম উদ্দিন গাজী বলেন, কাস্টমস এবং বন্দর মিলিয়েই এই রমজান মাসে সময় বৃদ্ধি করে রাত ৯টা পর্যন্ত বৃদ্ধি করা হলে উচ্চ পচনশীল পণ্য খালাস নিতে পারবো। ফলে একদিকে যেমন সরকারের রাজস্ব বাড়বে অন্যদিকে এসব পণ্য দ্রুত বাজারজাত করা সম্ভব হবে। বেনাপোল বন্দরের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক রেজাউল করিম জানান, বেনাপোল বন্দরে গতকাল সোমবার (০৪ মার্চ) সন্ধ্যা পর্যন্ত সময়ে ভারত থেকে ৫৫ ট্রাক ফল ও মাছ জাতীয় পচনশীল পণ্য আমদানি হয়েছে। তবে কাস্টমসের বিধি নিষেধের কারণে সন্ধ্যার পর পচনশীল কোন পন্য বন্দরে প্রবেশ করেনি। বেনাপোল কাস্টমস হাউসের কমিশনার আব্দুল হাকিম বলেন, ফল, মাছ, কেপসিক্যাম, টমেটোসহ ইত্যাদি বিভিন্ন ধরনের পচনশীল পণ্য সন্ধ্যা ৬টার মধ্যেই বন্দরে প্রবেশ করতে হবে। রাতে এ জাতীয় পণ্য বন্দরে প্রবেশ করলে অনেকেই সন্দেহ করে। রাতে নানা ধরনের অনিয়মেরও সুযোগ থেকে যায় তাই এসব পণ্য বন্দরে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না। কাস্টমস কর্তৃপক্ষ এর দায়িত্ব নেবে না।

Please follow and like us:

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৬০১৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com নিউজ রুম।

Email-Cvnayaalo@gmail.com সিভি জমা।

 

 

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET