২৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার, ১৪ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২১শে সফর, ১৪৪৩ হিজরি

শিরোনামঃ-
  • হোম
  • সকল সংবাদ
  • ভেড়ামারা কলেজকে সরকারীকরনের দাবীতে কলেজের ক্লাস বর্জন করেছেন কলেজের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা

ভেড়ামারা কলেজকে সরকারীকরনের দাবীতে কলেজের ক্লাস বর্জন করেছেন কলেজের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা

Khorshed Alam Chowdhury

আপডেট টাইম : অক্টোবর ২০ ২০১৬, ১৪:২২ | 667 বার পঠিত

14741852_1808045279481241_2108325665_nমো.নাজমুল হাসান নাহিদ, কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি।।। কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা কলেজ সরকারীকরনের দাবীতে কলেজের শিক-শিার্থীরা কাস বর্জন ও অবস্থান ধর্মঘট পালন করেছে। আজ সকাল ১০টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত কলেজ প্রাঙ্গনে এ কর্মসূচি পালন করে। শিক প্রতিনিধি সহকারী অধ্যাপক মনোয়ার হোসেন জানান, ১০.৪১ একর জমির উপর ১৯৬৫ সালে ভেড়ামারা কলেজ প্রতিষ্ঠিত হয়। ৩,৭৬৪ শিার্থী, যার মধ্যে ছাত্রীর সংখ্যা ১৭২৮ জন, ৮৬জন শিককে নিয়ে কলেজটি সুনামের সাথে পরিচালিত হচ্ছে। এখানে ডিজিটাল ল্যাব সহ ১১টি সমৃদ্ধ কম্পিউটার ল্যাব, ২টি লাইব্রেরী, ৫টি পাকা ও ২টি আধাপাকা ভবন এবং কলেজ প্রাঙ্গনে বিরাট মাঠ রয়েছে। জেনারেল শাখার পাশাপাশি ৭টি বিষয় অনার্স এবং এইচ এসসি বিএম শাখায় ৪টি ট্রেড চালু আছে। এ বছর পাবলিক পরীার ফলাফল শতকরা ৬৬ ভাগ। যা উপজেলার ৩টি প্রতিষ্ঠানের চেয়ে ফলাফল ভালো। তিনি জানান, উচ্চ মাধ্যমিক ও ডিগ্রী পাস পর্যায়ে দরিদ্র ছাত্র-ছাত্রীদের বিনা বেতনে পড়ানো হয়। নন এমপিও শিকদের সরকারী স্কেলের সমান বেতন ভাতাদি প্রদান করা হয়। কলেজের নিজস্ব অর্থায়নে ডায়নামিক ওয়েবসাইট রয়েছে, যা স্ব অর্থায়নে নির্মিত। এছাড়াও নিজস্ব অর্থায়নে অধিকাংশ শ্রেনীক সিসি টিভি ক্যামেরার আওতায় আনা হয়েছে। কর্মসূচিতে উপস্থিত শিক-শিার্থীরা জানান, এলাকার সর্বস্তরের মানুষের দীর্ঘ দিনের দাবী ভেড়ামারা কলেজ কে সরকারীকরণ করা হোক। শিক কাউন্সিলের সাধারন সম্পাদক নাছিমা পারভিন বলেন, সরকারীকরণের েেত্র সঠিক সিদ্ধান্তের জন্য উর্দ্ধতন কর্তৃপরে দ্রুত কলেজটি পরিদর্শন করা প্রয়োজন। এসময় অবস্থান ধর্মঘটে বক্তব্য রাখেন শিক প্রতিনিধি সহকারী অধ্যাপক মনোয়ার হোসেন, প্রভাষক মোস্তাফিজুর রহমান, শামীমা খাতুন। টিচার কাউন্সিলের সাধারণ সম্পাদক নাছিমা পারভিন’ সহকারী অধ্যাপক খালিলুর রহমান খলিল’ প্রভাষক আঃ সামাদ, শফিকুর রহমান শফি, মাহফুজ আলম জুয়েল, আনিসুর রহমান, কৃষাণ কুমার পন্ডিত, জাহাঙ্গির হোসেন জুয়েল, শিার্থী রকি, নাহিদ, আলম প্রমুখ। অভিভাবক আসলাম উদ্দিন জানান, ভেড়ামরা কলেজকে বাদ দিয়ে ভেড়ামারা মহিলা কলেজকে সরকারীকরনের তালিকা করা হয়েছে তা আমাদের বোধ্যগম্য নহে। ভেড়ামারা মহিলা কলেজ স্থাপিত ১৯৯৫ সাল, বর্তমান ছাত্রীর সংখ্যা ৭১৮ জন, শিক কর্মচারী ৪০জন। ভেড়ামারা কলেজকে সরকারীকরণের দাবী জানাই। ভেড়ামারা কলেজ পরিচালনা পর্ষদের সদস্য আবু দাউদ জানিয়েছেন, ভেড়ামারা কলেজের ভেড়ামারা, মিরপুর এবং দৌলতপুর ৩ উপজেলার প্রচুর সংখ্যক ছাত্র- ছাত্রী লেখাপড়া করে। এ কলেজ কে সরকারী করন করা হলে অনেক বেশী শিার্থী কম খরচে পড়া লেখার সুযোগ পেয়ে লাভবান হতো। মানুষের উপকার হতো। তিনি আশা করেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শীঘ্রই ভেড়ামারা কলেজ সরকারীকরন হবে। ধর্মঘটে বক্তারা বলেন, খুলনা বিভাগের মধ্যে সবচেয়ে বড় বেসরকারী কলেজ ভেড়ামারা কলেজ। এতো সমৃদ্ধির পরও ভেড়ামারা কলেজকে জাতীয়করন করা হয়নি।

Please follow and like us:

পাঠক গনন যন্ত্র

  • 4729964আজকের পাঠক সংখ্যা::
  • 0এখন আমাদের সাথে আছেন::

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৮৮০৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com নিউজ রুম।

Email-Cvnayaalo@gmail.com সিভি জমা।

 

 

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET