১৬ই অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার, ৩১শে আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৯ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

শিরোনামঃ-

যুদ্ধাপরাধীদের মদতদাতাদেরও বিচার হওয়া উচিত

Khorshed Alam Chowdhury

আপডেট টাইম : সেপ্টেম্বর ০৭ ২০১৬, ০২:৩৯ | 655 বার পঠিত

30673_hasinaনয়া আলো ডেস্ক- আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, যুদ্ধাপরাধীদের পাশাপাশি তাদের মদতদাতাদেরও বিচার হওয়া উচিত। তিনি বলেন, যারা যুদ্ধাপরাধীদের ক্ষমতায় বসিয়েছে, মন্ত্রী বানিয়ে লাখো শহীদের রক্তে রঞ্জিত পতাকা তুলে দিয়েছে তারাই সবচেয়ে বড় অপরাধী। বাংলার মাটিতে এদেরও বিচার হওয়া উচিত। প্রধানমন্ত্রী প্রশ্ন রেখে বলেন, অভিযানে নিহত জঙ্গিদের নিয়ে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার এতো মায়াকান্না কেন? তা দেশবাসীকে খুঁজে বের করতে হবে। এতদিন মানুষ পুড়িয়ে হত্যার পর এখন উনারা জঙ্গিদের নিয়ে খেলছেন। পোড়া মানুষের জন্য তার কান্না আসে না, নিহত জঙ্গিদের নিয়ে তার এতো মায়াকান্না কেন?
মঙ্গলবার রাতে গণভবনে আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদ, উপদেষ্টা পরিষদ এবং জাতীয় সম্মেলন প্রস্তুতি উপ-কমিটির সভাপতি ও সদস্য সচিবদের সঙ্গে যৌথ বৈঠকের সূচনা বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। বৈঠকে আগামী ২২ থেকে ২৩শে অক্টোবর আওয়ামী লীগের ২০তম জাতীয় কাউন্সিল সফল করতে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এছাড়া চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়েও আলোচনা হয় বৈঠকে। আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও জনপ্রশাসনমন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের সঞ্চালনায় বৈঠকে শোক প্রস্তাব পেশ করেন দলের দপ্তর সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবদুল মান্নান খান। বৈঠকের শুরুতেই বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ সহচর  ও সাবেক সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট আবদুর রহীমের রুহের মাগফেরাত কামনা করা হয়।
বিএনপি নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে হয়রানি করা হচ্ছে- দলটির নেতাদের এমন অভিযোগের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, যারা আন্দোলনের নামে শত শত মানুষকে পুড়িয়ে হত্যা করেছে, সারা দেশে ভয়াবহ নাশকতা ও ধ্বংসযজ্ঞ চালিয়েছে তাদের বিরুদ্ধে মামলা বা বিচার না করে কী ঘি-চন্দন দিয়ে বরণ করা হবে? এসব করার হুকুম দেয়ার আগে কী তা মনে ছিল না? ২১শে আগস্ট গ্রেনেড হামলা করে মানুষ হত্যা করা হলো। নিজেরা হুকুম দিয়ে এ হত্যাযজ্ঞ চালিয়েছে বলেই জজ মিয়ার নাটক করেছে। যারা গ্রেনেড হামলা চালালো তাদেরও কী বিচার করা যাবে না? বিএনপি-জামায়াত জোটের আমলে আওয়ামী লীগকে ধ্বংস করতে শত শত মামলা, হত্যা, নির্যাতনের কথাও তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, খালেদা জিয়াকে আন্দোলনের নামে মানুষ পুড়িয়ে হত্যার অধিকার কে দিয়েছে? নির্বাচনে আসেন নি এটা তার ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত। নির্বাচনের আগে আমি নিজে টেলিফোন করে বিএনপি নেত্রীকে কোয়ালিশন সরকার গঠনের প্রস্তাব দিয়েছি। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সহ যে ক’টি মন্ত্রণালয় চায় তাও দিতে চেয়েছি। কিন্তু তাতে রাজি না হয়ে উনি নির্বাচনে আসেননি কিসের আশায়? কী আশায় উনি বসেছিলেন? তিনি বলেন, বিএনপি নেত্রীর ভুলের খেসারত কেন দেশের জনগণকে দিতে হবে? নির্বাচনে না এসে জনগণের ওপর প্রতিশোধ নিতে বিএনপি নেত্রীকে মানুষ পুড়িয়ে হত্যার অধিকার কে দিয়েছে? এর জবাবও একদিন দেশের মানুষকে তাকে দিতে হবে।
প্রধানমন্ত্রী বিশ্বের নানা দেশের উদাহরণ তুলে ধরে বলেন, বাংলাদেশই একমাত্র দেশ যারা মাত্র ১০ ঘণ্টার মধ্যে সব জঙ্গিকে দমন করে ১৩ জিম্মিকে উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছে। পৃথিবীর কোনো দেশ তা করতে পারেনি। তিনি বলেন, পোড়া মানুষ নিয়ে খালেদা জিয়ার মন কাঁদে না, যত মায়াকান্না তা সবই হচ্ছে নিহত জঙ্গিদের ব্যাপারে! কঠোর পদক্ষেপ না নিলে তো জঙ্গি দমন হবে না। পৃথিবীর সব দেশেই যেখানে এসব জঙ্গি হামলা হয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সেখানেই এমন কঠোর পদক্ষেপ নিয়েছে।
যুদ্ধাপরাধীদের বিচার প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু যুদ্ধাপরাধীদের বিচার শুরু করেছিলেন। কিন্তু অবৈধভাবে ক্ষমতা দখল করে জিয়াউর রহমান সামরিক অর্ডিন্যান্সের মাধ্যমে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার বন্ধ করে দিয়ে সবাইকে মুক্ত করে রাজনীতিতে পুনর্বাসন করেছিলেন। আমরা জাতির কাছে দেয়া অঙ্গীকার অনুযায়ী যুদ্ধাপরাধীদের বিচার করছি, রায় কার্যকরের মাধ্যমে দেশ অভিশাপমুক্ত হচ্ছে। কিন্তু যারা এসব যুদ্ধাপরাধীকে ক্ষমতায় বসিয়েছে, তাদের হাতে পতাকা তুলে দিয়েছে- দেশের মাটিতে তাদেরও বিচার চাওয়া উচিত। কেননা, একাত্তরের স্বজন হারানো পরিবারদের বিচার পাওয়ার অধিকার রয়েছে। আমরা সেই অধিকার রক্ষা করছি। তাই দেশবাসীর কাছে অনুরোধ- মদতদাতাদের বিচারে আপনারা সোচ্চার হোন, প্রতিবাদমুখর হোন।

Please follow and like us:

পাঠক গনন যন্ত্র

  • 4751680আজকের পাঠক সংখ্যা::
  • 4এখন আমাদের সাথে আছেন::

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৮৮০৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com নিউজ রুম।

Email-Cvnayaalo@gmail.com সিভি জমা।

 

 

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET