২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার, ১২ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৯শে সফর, ১৪৪৩ হিজরি

শিরোনামঃ-

রামগঞ্জে দেড়শো বছরের বৃদ্ধা পাশে ইউএনও।

আউয়াল হোসেন পাটওয়ারী, রামগঞ্জ,লক্ষীপুর করেসপন্ডেন্ট।

আপডেট টাইম : জুলাই ২৬ ২০২১, ১৬:৩৩ | 651 বার পঠিত

রামগঞ্জে দেড়শো বছরের বৃদ্ধা নেহেরুনেছা পাশে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাপ্তি চাকমা। নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) প্রধান মন্ত্রী জননেত্রী শেখহাসিনা পক্ষ থেকে উপহার সামগ্রীও নগদ অর্থ নিয়ে ঈদের আগের দিন মেহেরু নেছা বাড়ি ভাটরা ইউনিয়ন এর জাফরনগর গ্রামে উপস্থিত হোন। এ সময়ে উপস্থিত ছিলেন ভাটরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল হোসেন মিঠু।
মেহেরু নেছা জাফর নগর গ্রামের মরহুম মৌলভী আবু জাফর মিয়ার স্ত্রী ও মরহুম আলতাফ ভুইঁয়ার মা। মেহেরু নেছা জানান তিঁনি প্রধান মন্ত্রী জননেত্রী শেখহাসিনা সাথে দেখা করতে চান। বঙ্গবন্ধুকে তার শ্বামী কাছে থেকে বেশী আদর সোহাগ করতেন। গত প্রায় ৪৬ বছর আগে তার শ্বামী প্রায় ৯০ বছর বয়সে ইন্তেকাল করেন। তিঁনি জানান তার বর্তমান বয়স (১৫০) বছর। ভোটার তালিকা তৈরি করতে ভূলবসতঃ ৫ বছর কম করা হয়েছে। ভোটার আইডি কার্ড অনুযায়ী তার বয়স (১৪৪ বছর)। তার শ্বামী আর পুত্র সন্তান বেঁচে নেই। বর্তমানে তিঁনি ওষধ ক্রয় সহ অভাব অনাটন কারণে সমস্যা জর্জরিত অবস্থা রয়েছে। সংসারে আয় রোজগারের মত কোন সদস্য নেই। একমাত্র পুত্র ইন্তেকাল করার পরেই নাতি-নাতনীদের লেখাপড়া দেখবাল বার করার মত কেউ নেই। তিঁনি চশমা বিহিন বর্তমানে কোরআন শরিফ পড়তে পারেন। আরবি, ফার্সি ভাষা,বাংলা ভাষা কথা বলেন। তিনি জানান জাফরনগর গ্রামটি তার শ্বামী নামে নামকরণ করা হয়েছে।
একসময় গ্রামটি বাস্কপুর নামে পরিচিতি ছিল। তার শ্বামী তৎসময় গ্রামে শিক্ষিত ছিল। শিক্ষিত হওয়ার কারণে গ্রামের মানুষ তাকে সন্মানিত করে তার নামেগ্রামের নামকরণ করা হয়েছে।
মেহেরু নেছা দল্টা স্কুল থেকে পঁঞ্চম শ্রেণী পর্যন্ত লেখা – পড়া করেন। তার পিতা-মাতা তার নাম রেখেছেন আংকুরির নেছা। বিয়ের পরেই শ্বামী আদর- সোহাগের কারণে নাম পরিবর্তন করে মেহেরু নেছা রাখেন। গত কয়েকমাস আগে নেহেরু নেছা প্রধান মন্ত্রী জননেত্রী শেখহাসিনা সাথে দেখা করতে চান মর্মে জাতীয় দৈনিক পত্রিকা সহ ইলেকট্রনিক সহ অনলাইন পোর্টালে শিরোনাম হয়।
শিরোনামটি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দৃষ্টি আকর্ষণ হয়। তিঁনি ঈদের আগের দিন প্রধান মন্ত্রীর উপহার স্বরুপ খাদ্যসামগ্রী সহ ওষধ সেবনে আর্থিক সহায়তা করেন।
ইউএনও তাপ্তি চাকমা মেহেরুনেছা সাথে কথা বলেন এবং তার শারীরক অবস্থা জিজ্ঞেস করেন। তাকে প্রধান মন্ত্রীর সাথে স্বাক্ষাতের ব্যবস্থা বিষয়টি চিন্তাভাবনা করার আশ্বস্ত করেন। ইতিমধ্যে করপাড়া ইউনিয়নের ভাটিয়ালপুর গ্রামের “মানবতার তরে” শান্তির সংঘ নামে সংগঠনটি তাহাদের ক্ষুদ্রপ্রয়াস নিয়ে মেহেরু নেছা পাশে ছিলেন।

Please follow and like us:

পাঠক গনন যন্ত্র

  • 4728506আজকের পাঠক সংখ্যা::
  • 1এখন আমাদের সাথে আছেন::

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৮৮০৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com নিউজ রুম।

Email-Cvnayaalo@gmail.com সিভি জমা।

 

 

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET