৫ই মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শুক্রবার, ২০শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২০শে রজব, ১৪৪২ হিজরি

শিরোনামঃ-
  • হোম
  • দূর্ঘটনা
  • লামা-আলীকদম, ফাসিয়াখালী সড়কের প্রতিটি বাঁক যেন মৃত্যুর ফাঁদ .

লামা-আলীকদম, ফাসিয়াখালী সড়কের প্রতিটি বাঁক যেন মৃত্যুর ফাঁদ .

জাহিদ হাসান, বিশেষ করেসপন্ডেন্ট।

আপডেট টাইম : নভেম্বর ২৭ ২০২০, ১৩:৫৩ | 696 বার পঠিত

 

লামা-আলীকদম, ফাসিয়াখালী সড়কের ১৯-২০ কি: পয়েন্টে পাথররে ক্রংক্রিট বোঝায় দু’টি ড্রাম ট্রাক উল্টে যায়। শুক্রবার সকাল ৯টায় ৫ মিনিটের মধ্যে ২০ ফুট ব্যবধানে এই দূর্ঘটনা ঘটেছে। গত ৪দিনের ব্যবধানে এনিয়ে তিনটি মালবাহী ট্রাক লরি এবং এক মাসে ৬টি গাড়ি দুর্ঘটনায় পতিত হয়। সড়কের প্রতিটি বাঁক যেন মৃত্যুর ফাঁদ। অতিরিক্ত মাল বোঝায়, ঝুঁকিপুর্ন বাঁকে একটি আরেকটি গাড়িকে সাইট দিতে গাড়ির ব্রেক ছিড়ে সড়কে সরিজি দুর্গটনা গড়ে চলছে।এর আগে ২৫ নভেম্বর দুপুরে খাম্বাবাহী আরেকটি লরি পাহাড়ের খাদে পড়ে যায়। এনিয়ে গত এক মাসে ৬ টি মালবাহী গাড়ি দুর্ঘটনায় পতিত হয়। রোডের ধারন ক্ষমতার অনেকগুন বেশি মালামাল পরিবহন, রাস্তার প্রশস্ততা কম, বাঁকগুলোতে নজর কাটারমত রোড সাইন ও দুর্ঘটনা প্রতিরোধ ব্যবস্থা না থাকায় সড়কে সিরিজ দুর্ঘটনাকে দায়ি করছেন স্থানীয়রা।সাম্প্রতিক বছরগুলোতে এই সড়কে যাত্রিবাহী গাড়িসহ ট্রাক, লরি, কার্গো ও সরকারি সংস্থার বড় বড় গাড়ি চলাচল বহুগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে। তাছাড়া পর্যটকদের আগমনও বেড়েছে। এই বাস্বতায় ৮০’র দশকে নির্মিত ১২ ফুট কোন স্থানে ১৮ ফুট প্রশস্ত বর্তমান সড়কটি নিরাপদ নয়।সড়কের প্রতিটি বাঁক বিপদজনক, যেন একেকটি মৃত্যুফাঁদ। সেনাবাহিনী ইসিবি’র মাধ্যমে ৪৪ কি: মি: সড়কের ৩০ ফুট প্রশস্ত করে, আলীকদম-পোয়ামুহুরী সড়কের সাথে সংযুক্ত করা অপরিহার্য্য হয়ে পড়েছে। একই সাথে বাঁকগুলোতে চালকদের নজরে আসারমত রোড সাইন স্থাপন ও বান্দরবান সড়কের ন্যয় দুর্ঘটনা প্রতিরোধ (পাহাড়ের বিপরীত পাশে মাটির ডিভি) ব্যবস্থা করা দরকার।সাম্প্রতিক সময়ে লামা-আলীকদম ফাঁসিয়াখালী সড়কে দুর্ঘটনা আশংকাজনক বৃদ্ধি পেয়েছে। সড়কের কয়েকটি বাঁক মৃত্যুকুপে পরিনত হয়েছে। ৪৪ কি:মি: সড়কটি নির্মানের পর থেকে যথাযথ মান রক্ষা করে সংস্কার না করা, ঝুঁকিপুর্ন বিভিন্ন বাঁকে রোড সাইন-দুর্ঘটনা প্রতিরোধ ব্যবস্থা না করায় মূলত মরন ফাঁদে রুপ সড়কের বিভিন্ন বাঁক।সড়ক ও জনপথ বিভাগ সড়কটির যথাযথ রক্ষণাবেক্ষন না করাকে, সাম্প্রতিক দুর্ঘটনার জন্য দায়ি করছেন সাধারণ মানুষ। বর্তমানে সড়কে যে হারে বড় বড় ট্রাক, বাস, লরী, কার্গো যাতায়ত হচ্ছে; তার সাথে ৮০’র দশকে নির্মিত রাস্তাাটির যতেষ্ট অসঙ্গতি রয়েছে। সড়কের ১৯-২০ বর্গকি: পয়েন্টে গত এক মাসে ৬টি মালবাহী ট্রাক-লরী দুর্ঘটনায় পতিত হয়। এর আগে ১৯৮৯ সালে রাস্ট্রপতির পটকলের একটি পুলিশ ভ্যান এই বাঁকে দুর্ঘটনায় ১০ জন পুলিশ প্রান হারায়। তার আগে ১৯৮৬ সালে একইস্থানে আরেকটি চাঁদের গাড়ি খাদে পড়ে ১২ জন যাত্রী প্রান হারান। সরকারের একটি প্রকৌশল টিম সেনাবাহিনীসহ সরেজমিন পর্যবেক্ষন করে লামা-আলীকদম, ফাঁসিয়াখালী সড়কটি সময়ের চাহিদা বিবেচনায় রেখে পুন:নির্মানের দাবী করেছে স্থানীয়রা। একাজে যত দ্রুত পদক্ষেপ নিবে, ততই সিরিজ দুর্ঘটনা কমে আসবে।সড়কের বাঁকগুলোকে চালকদের নজরে আনতে দৃস্টিকর্ষক রোড় সাইন স্থাপন, দুর্ঘটনা প্রতিবন্ধক ব্যবস্থা জোরদার ও সড়ক প্রশস্ত করা দরকার। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট মহল নজরে আনা প্রয়োজন।

Please follow and like us:

পাঠক গনন যন্ত্র

  • 4400016আজকের পাঠক সংখ্যা::
  • 0এখন আমাদের সাথে আছেন::

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৮৮০৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET