২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শুক্রবার, ১৩ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৩ই রজব, ১৪৪২ হিজরি

শিরোনামঃ-

লিবিয়ায় প্রবাসীদের আরেক মরণ ফাঁদ ভূয়া চেকপোষ্ট

Khorshed Alam Chowdhury

আপডেট টাইম : মে ১৫ ২০১৭, ১৪:৪৮ | 785 বার পঠিত

অর্পণ মাহমুদ,বিশেষ প্রতিনিধি-

লিবিয়ায় এখন প্রবাসীদের পাশাপাশি লিবিয়ায়ানদেরও আতংকের কারণ দাড়িয়েছে ভূয়া চেকপোষ্ট । রাস্তার যেখানে সেখানে হটাৎ করে ভারী অস্ত্র নিয়ে কয়েক জনের টিম করে তল্লাসীর নামে ভূয়া চেকপোষ্ট বসিয়ে প্রবাসীদের সব কিছু ছিনিয়ে নিচ্ছে এক শ্রেনীর প্রশাসন নাম ধারী সন্ত্রাসীরা । কখনো বা সব কিছু নিয়েই ক্ষান্ত হয় না, প্রবাসীদের অপহরণ করে দাবি করা হয় মোটা অংকের মুক্তিপণ । এই সব ভূয়া চেকপোষ্টে এ সময়ে লিবিয়ানরা ও বাদ যাচ্ছে না, তারা দামি গাড়ি হারানোসহ অপহরণের শিকার হয়ে মোটা অংকের মুক্তিপণ দিয়েই ওই সব সন্ত্রাসীদের হাত থেকে মুক্তি পাচ্ছে এমন ঘটনাও অহরহ ঘটছে । তারিখটি ছিল গত বছরের ১৮ ডিসেম্বর । ১৯ তারিখে দেশে ফেরার জন্য বিমান টিকিটসহ সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করে ভয়া চেকপোষ্টের ভয়ে কয়েক বছরের জমানো মালামাল বাসায় ফেলে এবং কিছু মালামাল সেখানে বসবাসরত বাংলাদেশিদের জিম্মায় রেখেই এক দিন আগেই লিবিয়ার বিমানবন্দের কাছেই পরিচিত বাংলাদেশের কাছে পৌছানোর সিদ্ধান্ত নেয় । বাসা থেকে ট্যাক্সিতে উঠার আগেই মোবাইল টাকা পয়সা কাছে না রাখতে নিষেধ করেন ট্যাক্সি চালক । সে অনুযায়ী ৩ টি মোবাইল কিছু ডলার আর বিমানের টিকিট ট্যাক্সি চালকের হাতে দিয়ে দেয় । সে তার গাড়ির সামনে ইঞ্জিনের পাশের একটি গোপন জায়গাতে মোবাইলসহ সব কিছু রেখে দিলেন । এর পর ত্রিপোলীর উদ্দেশ্যে যাত্রা । কিন্তু সমস্যায় পড়ি একটি মোবাইল বন্ধ করে না রাখায় । মাঝে মাঝে মোবাইলটি বেজে উঠছিল আর সেই সাথে আমাদের প্রাণ যেন কেপে উঠছিল । চালক কে বলি গাড়ি থামাতে,সে বলে রাস্তার কোথাও গাড়ি থামালে সমস্যা আছে । তাই চালকের মোবাইল থেকে ফোন করে সমস্যাটা জানিয়ে পরিচিত কয়েক জনকে বল্লাম ২ ঘন্টার মধ্যে যেন কেউ আমাদের নম্বরে ফোন না দেয় এবং আরো অন্যান্যদের বিষয়টি জানানোর জন্য অনুরোধ করেছিলাম । তার পরও কিছুদিন দূর যেতে না যেতেই আরো ২/৩ বার ফোন বেজে উঠেছিল । ফাকা জয়গা হওয়াতে সে সময় ভয়ের কোন কারণ হয়নি । যাক পথে কয়েকটি চেকপোষ্টে কোন প্রকার ঝামেলা ছাড়াই ত্রিপোলীতে স্বপরিবারে পৌছে যায় আমরা । ভয়া চেকপোষ্টে কেড়ে নেয়ার ভয়ে মালামাল তো দূরের কথা শুধু নিজেদের মোবাইল পর্যন্তও কাছে নিতে পারিনি । স্বপরিবারে যেন ভালভাবে দেশে ফিরে আসতে পারি এটা ছাড়া আর কিছু আসা করিনি । কেননা এর কিছুদিন আগেও দেশে ফিরতে গিয়ে ভূয়া চেকপোষ্টে মোবাইল ডলারসহ মালামাল হারায় জাওয়াইয়া, সাব্রাতা , ছুরমান এলাকায় বসবাসরত বেশ কয়েক জন পরিচিত বাংলাদেশী । তাদের মধ্যে কয়েক জনের কাছে বিমানের টিকিট পর্যন্ত ছিনিয়ে নেয় চেক পোষ্টে থাকা অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা । যে কারনে ভূয়া চেকপোষ্টের ভয় আমাদেরও কম ছিল না । চরম আতংকের মাঝেও লিবিয়া প্রবাসীদের নতুন আরেক আতংক রাস্তায় ভয়া চেকপোষ্টে মালামাল ছিনতাই এখন যেন আরো ভয়নক আকার ধারণ করেছে । পাসপোর্ট, মেডিকেল কার্ডসহ প্রয়োজনীয় কাগজ পত্র থাকার সর্তেও তল্লাসীর নামে রাস্তায় যেখানে সেখানে ভয়া চেকপোষ্ট ( বোয়াবা ) তে এক শ্রেনীর প্রশাসন কর্তৃক প্রবাসীদের কাছে থাকা নগদ দিনার-ডলার,মোবাইলসহ মালামাল ছিনতাই এখন লিবিয়ার প্রায় সব জায়গাতেই কম বেশী ঘটে চলেছে । তবে লিবিয়ার আলজাওয়াইয়া, সাব্রাতা, জোয়ারা, সুরমান, আবু-সাপানা, জাহারা, সাবাআশরিন ছাড়াও ত্রিপলীর আশপাশের কয়েক টি এলাকায় ভয়া চেকপোষ্টে মালামাল ছিনতাই ও হয়রানী চরম আকার ধারণ করেছে । রাস্তার নির্ধারিত চেকপোষ্ট ছাড়াও বিভিন্ন স্থানে কিছু অস্ত্রধারী প্রশাসন হটাৎ করে ভূয়া চেকপোষ্ট ( বোয়াবা ) বসিয়ে তল্লাসীর নামে সব কিছু ছিনিয়ে নিলেও অভিযোগ করারা মত এখন কোন জায়গা নেই প্রবাসীর সামনে । যেখানে অভিযোগ করবে সেখানেও কিছু প্রশাসন চুরি ছিনতায়ের সাথে জরিত থাকায় অভিযগ করতে গিয়ে নতুন করে হয়রানীর শিকার হতে হবে এ ভয়ে কেউ অভিযোগ করতে যেতে শাহস পাইনা । আবার কখনো বা ভূক্তভোগী প্রবাসীরা স্থানীয় প্রশাসনের কাছে অভিযোগ জানালেও ওই সব প্রশাসন উলটো বলেন,যে এ সময়ে তারাই নাকী নিরাপদ নয়! খোজ নিয়ে জানাগেছে, এ সমইয়ে ভূয়া চেকপোষ্টে প্রবাসীরা হয়রানী ও অপহরণের শিকার হচ্ছে ত্রিপলীতে বাংলাদেশ দূতাবাসে যাতায়াত করতে গিয়ে । কেননা লিবিয়ায় বসবাসরত বেশীরভাগ প্রবাসী শ্রমিকদের পাসপোর্ট,ভিসা নেই, যে কারণে দেশে ফিরতে হলেও তাদের বাংলাদেশ দূতাবাসে পাসপোর্ট তৈরী এবং নতুন পাসপোর্ট সংগ্রহ এবং আউট পাস নিতে দূতাবাসে যেতে হয় । আর এটাই বিপদের কারন হয়ে দাড়াঁয় । মাত্র ২ সপ্তাহ আগেও দূতাবাসে আসা যাওয়ার পথে রাস্তায় চেকপোষ্টে দিনার-মোবাইল খুইয়েছে ঝনাইদহের তরিকুলসহ তার সাথে থাকা আরো ৩ জন । এছাড়া , সাব্রাতা জোয়ারা এলাকা থেকে কয়েক ডজন প্রবাসী দূতাবাসে যাতায়াত করতে গিয়ে মোবাইলসহ নগদ ডলার-দিনার খুইয়েছে বলে ভক্তভোগীরা জানিয়েছেন । আবার কয়েক জন অপহরণের শিকার হয়ে ১০/১৫ হাজার দিনার মুক্তিপণ দিয়েই ওই সব সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের হাত থেকে ছাড়া পেয়েছে । ভূক্তভগিদের অভিযোগ চেকপোষ্টে থামিয়েই পকেট চেক করে এবং যা পায় তা নিয়ে নেয় । ওই সময় বাধা দিলে সকলের সামনে বিবস্ত্র করে চরম অমানষিক নির্যাতন করে । কখনো কখনো পায়ের কাছে গুলি করে আতংক বাড়িয়ে দেয় । কারণে অকারণে মাথায় পিস্তল-ভারী আস্ত্র ঠিকিয়ে মেরে ফেলার হুমকি দেয় । লিবিয়ার রাজধানী ত্রিপলীতে এদানিং চেকপোষ্টে মালামাল ছিনিয়ে নেয়ার ঘটনা ঘটতে শুরু করেছে এমনই অভিযোগ করেছে সেখানে বসবাসরত কয়েকজন বাংলাদেশী । তারা বলেছেন, রাস্তায় চেকপোষ্টে আটকে দিয়ে কাছে থাকা মোবাইল ছাড়াও কাছে থাকা একটি দিনার থাকলেও সে দিনার ছিনিয়ে নিয়ে নেয় । আবার কাছে দিনার মোবাইল না থাকলেও, নেই কেন ? অযুহাতে তার কপালে জোটে নির্যাতন । যে কারনে রাস্তায় বেড় হলে দু’চার দিনার পকেটে রাখতে হয় ঐ নামধারী প্রশাসনের জন্য । এছাড়া রাস্তায় চেকপোষ্টে থাকা প্রশাসন প্রকাশ্যেই মাদক সেবন করে । যা তাদের চেহারা দেখলেই বুকের মধ্যে কেপে ওঠে । আর তারা প্রবাসীদের যেভাবে নির্যাতন করে সে নির্যাতন কোন সুস্থ্য মানুষ করতে পারে না এবং বিনা অপরাধেই এই সব নির্যাতনের শিকার হতে হয় লিবিয়ায় প্রবাসীদের এমনটিই জানান। কয়েক দিন আগেও নির্যাতনে শিকার কয়েক বাংলাদেশী ভূয়া চেকপোষ্টে নির্যাতনের বর্ণনা দিয়ে বলেছেন, মালামাল ছিনিয়ে নিয়েছে, হয়রানীর শিকার হয়েছেন এতে তারা ভীষন কষ্ট পেলেও কিছু করার নেই, চেক পোষ্টে লিবিয়ায় প্রশাসন নামের ঐ সব সন্ত্রাসী কর্তৃক আর যেন কোন বাংলাদেশীর মালামাল ছিনিয়ে নিতে না পারে সে ব্যপারে সতর্ক করার অনুরোধ জানিয়েছেন তারা । তাই লিবিয়ার রাস্তা ঘাটে অযথা ঘোরাঘুরি না করে এবং অতি প্রয়োজন ছাড়া রাস্তা ঘাটে চলাচলে বিশেষ সাবধান অবলম্বন করে চলার জন্য লিবিয়ায় বসবাসরত বাংলাদেশীদের জন্য এই সতর্ক বার্তা রইলো । ………… চলবে

Please follow and like us:

পাঠক গনন যন্ত্র

  • 4386278আজকের পাঠক সংখ্যা::
  • 12এখন আমাদের সাথে আছেন::

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৮৮০৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET