১৮ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার, ৪ঠা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৫ই শাওয়াল, ১৪৪২ হিজরি

শিরোনামঃ-

সাতক্ষীরায় বেঁড়িবাধ ভেঙে ৬ গ্রাম প্লাবিত

Khorshed Alam Chowdhury

আপডেট টাইম : মে ০৯ ২০১৬, ০০:৫০ | 635 বার পঠিত

সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার কোলায় বৈরী আবহাওয়ার মধ্যে প্রবল জোয়ারের চাপে কপোতাক্ষ নদের বেঁড়িবাধ ভেঙে ছয়টি গ্রাম প্লাবিত হয়ে প্রায় এক হাজার মানুষ পানি বন্দী হয়ে পড়েছে। এতে দেড় হাজার বিঘা মাছের ঘের ও ফসলি জমি তলিয়ে গেছে।
nodi
রবিবার ভোরে উপজেলার প্রতাপনগর ইউনিয়নের কোলা গ্রামের ৪ নম্বর পোল্ডারের কাছে কপোতাক্ষ নদের প্রায় দুই’শ ফুট বেঁড়িবাধ নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যায়।

এতে প্রতাপনগর ইউনিয়নের কোলা, হিজলিয়া ও শ্রীউলা ইউনিয়নের মাড়িয়ালা, হাজরাখালি, লাঙ্গলদাড়ি ও কলিামাখালি গ্রাম প্লাবিত হয়।

স্থানীয়রা জানায়, বাধটি আগে থেকেই ঝুঁকিপূর্ণ ছিল। ভোরে দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার মধ্যে হঠাৎ করেই বাধ নদী গর্ভে ধসে পড়ে। এতে ছয়টি গ্রামের প্রায় এক হাজর মানুষ পানি বন্দী ও দেড় হাজার বিঘা মাছের ঘের এবং ফসলি জমি প্লাবিত হয়।

প্রতাপনগর ইউপি চেয়ারম্যান জাকির হোসেন জানান, পানি উন্নয়ন বোর্ডের গাফিলতির কারণেই প্রতাপনগর ইউনিয়নবাসীর এই দুর্দশা। বারবার বলা হলেও পানি উন্নয়ন বোর্ড ঝুঁকিপূর্ণ বাধ সংস্কারে কোনো উদ্যোগ নেয়নি।

শ্রীউলা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবু হেনা সাকিল জানান, প্রতাপনাগর ইউনিয়নের চেয়ে শ্রীউলা ইউনিয়ন বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। স্থানীয় জনগণকে সঙ্গে নিয়ে বাধ সংস্কারের কাজ শুরু করেছি। চলতি ভাটাতেই বাধ সংস্কার করতে না পারলে পুইজালা, শ্রীউলা, আশাশুনি সদর ও নাকতাড়া গ্রাম প্লাবিত হবে।

আশাশুনি পানি উন্নয়ন বোর্ডের এসও আবুল হোসেন জানান, তিনি ঘটনাস্থলে আছেন। তার উর্দ্ধতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে আসার পর পানি উন্নয়ন বোর্ডের পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Please follow and like us:

পাঠক গনন যন্ত্র

  • 4531083আজকের পাঠক সংখ্যা::
  • 4এখন আমাদের সাথে আছেন::

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৮৮০৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com নিউজ রুম।

Email-Cvnayaalo@gmail.com সিভি জমা।

 

 

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET