২৫শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শুক্রবার, ১১ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৪ই জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি

শিরোনামঃ-

সাধারণ সম্পাদক পদ, জয় ও সোহেল তাজই আলোচনায়

প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

আপডেট টাইম : অক্টোবর ২৩ ২০১৬, ১০:১৮ | 634 বার পঠিত

নয়া আলো ডেস্ক-

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কে হবেন, অন্য গুরুত্বপূর্ণ পদগুলোতে কে কে থাকতে পারেন, এ সম্পর্কে আজ সম্মেলনের দ্বিতীয় দিনে নিজেদের প্রস্তাব ও মতামত তুলে ধরবেন তৃণমূলের কাউন্সিলররা। এ জন্য কাউন্সিলররা রীতিমতো মুখিয়ে আছেন। তবে পছন্দের নেতা নির্বাচন নিয়ে তাঁদের আলাপ-আলোচনা নানা কৌতূহলেরও সৃষ্টি করছে। কয়েক দিন ধরে যে আলোচনাটি সবচেয়ে বেশি চলে আসছে, সম্মেলনের প্রথম দিন শেষেও সেখানেই কাউন্সিলরদের মনোযোগ। সাধারণ সম্পাদক পদে কে বসছেন, সজীব ওয়াজেদ জয় ও সোহেল তাজ কী পদ পাচ্ছেন—এ আলোচনা, বিশ্লেষণ যেন শেষই হতে চায় না।

সম্মেলনের দ্বিতীয় ও শেষ দিন আজ রবিবার রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে কাউন্সিল অধিবেশন। সকাল সাড়ে ৯টায় আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কাউন্সিলরদের মতামত গ্রহণ করবেন। পরে তাঁদের প্রস্তাব ও সমর্থন নিয়ে যোগ্য সাধারণ সম্পাদকসহ অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ পদে নেতা নির্বাচন করবেন তিনি।

গতকাল প্রথম অধিবেশনে দলের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের বক্তব্যে কাউন্সিলরদের অনেকে নতুন সাধারণ সম্পাদকের বিষয়ে ইঙ্গিত রয়েছে মনে করছেন। সম্মেলনে বলাবলি হচ্ছিল, আশরাফ ও কাদের কেউ নন, দ্বিতীয় সর্বোচ্চ এ পদে আসছেন তৃতীয় কোনো নেতা। এ আলোচনায় সাধারণ সম্পাদক হিসেবে কেউ কেউ তাজউদ্দীন আহমদের ছেলে তানজিম আহমেদ সোহেল তাজের নামও উচ্চারণ করেন। তবে আলোচনায় সাধারণ সম্পাদক পদে সৈয়দ আশরাফের থেকে যাওয়ার পাল্লাই ভারী মনে হয়েছে। আলোচনায় ওবায়দুল কাদেরের নামও এসেছে।

নেতাদের সঙ্গে আলাপ করে জানা গেছে, আজকের অধিবেশনে পরবর্তী সাধারণ সম্পাদক নিয়েই বেশি আলোচনা হবে। তবে এরপরই থাকবে সজীব ওয়াজেদ জয় ও সোহেল তাজের নাম। এ প্রতিবেদকের সঙ্গে আলোচনায়, কাউন্সিলদের অনেকেই এ দুজনের ব্যাপারে বেশি আগ্রহ দেখান। এবারের সম্মেলনে এ দুজন কাউন্সিলর হিসেবেও যোগ দিয়েছেন।

দলের সভাপতি পদে বর্তমান সভাপতি শেখ হাসিনাই থেকে যাবেন বলে এ পদ নিয়ে কোনো আলোচনা নেই। ফলে নতুন কমিটির সব আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দু হবে সাধারণ সম্পাদক পদ ঘিরে। এটি যেমন কাউন্সিলরদের প্রধান আলোচনার বিষয়, তেমনি তাঁদের সঙ্গে আসা নেতাকর্মী, সমর্থক ও দলের অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীদেরও আগ্রহের বিষয় একই।

সম্মেলন আয়োজনে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে থাকা নেতারা জানান, সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের নাম ঘোষণার পাশাপাশি এবারের সম্মেলনের গুরুত্বপূর্ণ দিক হচ্ছে, সম্মেলনেই কেন্দ্রীয় কমিটির অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ পদে নেতাদের নাম ঘোষণা করা হতে পারে। এর মধ্যে আসল চমক হবে কিছু গুরুত্বপূর্ণ পদে তরুণ নেতৃত্বের সামনে চলে আসা। এ কারণেই সজীব ওয়াজেদ জয় ও সোহেল তাজের নাম বারবার ঘুরেফিরে চলে আসে।

প্রথম অধিবেশনে বিভিন্ন জেলার নেতারা কেন্দ্রীয় কমিটিতে জয়কে অন্তর্ভুক্তির দাবি করেছেন। সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলামও জয়কে আগামী দিনে দলের নেতৃত্ব দেওয়ার কথা বলেন। এর মধ্যে প্রথম অধিবেশনে ‘পিতৃহারা নেতৃত্ব আওয়ামী লীগকে আরো অনেক দূর নিয়ে যাবে’—সৈয়দ আশরাফের এই মন্তব্য খুবই ইঙ্গিতবহ বলে মনে করছেন অনেকে।

কাউন্সিলরদের আলোচনার বিষয় নিয়ে দলের অনেক জ্যেষ্ঠ নেতার সঙ্গে আলাপ হয় এ প্রতিবেদকের। তাঁরা বলেন, গত কয়েক দিন ওবায়দুল কাদেরকে নিয়ে আলোচনা হলেও সম্মেলনের প্রথম দিন শেষে সৈয়দ আশরাফের পাল্লাই ভারী মনে হয়েছে। তবে তাঁদের বাদ দিয়ে নতুন কাউকে নির্বাচিত করে চমক সৃষ্টির সম্ভাবনাও রয়েছে।

এর আগে গতকাল গণভবনে শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করে সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম নতুন নেতৃত্ব নির্বাচন নিয়ে আলোচনা করেছেন বলে জানা গেছে। সূত্র জানায়, তাঁরা দুজনই চান, দলে ‘নতুন রক্ত প্রবাহিত’ হোক।

Please follow and like us:

পাঠক গনন যন্ত্র

  • 4594035আজকের পাঠক সংখ্যা::
  • 1এখন আমাদের সাথে আছেন::

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৮৮০৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com নিউজ রুম।

Email-Cvnayaalo@gmail.com সিভি জমা।

 

 

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET