৫ই আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার, ২১শে শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৫শে জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি

শিরোনামঃ-

সিরাজগঞ্জে ছাদ বাগান করে সফল স্কুল শিক্ষিকা – মাহবুবা খাতুন

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, নয়া আলো।

আপডেট টাইম : এপ্রিল ২৭ ২০২১, ২৩:৩৫ | 1314 বার পঠিত

বর্তমানে সিরাজগঞ্জ শহরের বিভিন্ন বাড়ির ছাদে বাগান করা বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছে। অধিকাংশ বাড়ির ছাদের দিকে তাকালেই বিভিন্ন ধরনের বাগান দেখা যায়। অবশ্য শহরের ছাদে যেসব বাগান দেখা যায় তার অধিকাংশই অপরিকল্পিতভাবে গড়ে উঠেছে। পরিকল্পিতভাবে উদ্যোগ নেয়া হলে বাড়ির ছাদে যেকোন গাছ, এমনকি শাকসবজিও ফলানো সম্ভব। এসব বাগান করে সফলতাও পাচ্ছেন অনেকে।

এমন একজন শখের ছাদ বাগানি সিরাজগঞ্জ রায়গঞ্জ উপজেলার চান্দাইকোনা গ্রামের সফল স্কুল শিক্ষিকা –- মাহবুবা খাতুন । তিনি তার নিজ বসতবাড়ির দ্বিতল ভবনের ছাঁদে বিভিন্ন প্রকারের ফল, ঔষধী, সবজি ও ফুলের চাষ করেছেন। তার ছাঁদ বাগান দেখে এলাকার অনেকেই ছাঁদ বাগান করতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন।

শিক্ষিকা মাহবুবা খাতুন রায়গঞ্জ উপজেলার ভূঞাগাঁতী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের একজন সহকারি শিক্ষক। স্বামী আব্দুল হাকিম একজন সফল ব্যাবসায়ি।

মাহবুবা খাতুন পেশায় একজন শিক্ষকা হলেও বাগান করার প্রতি তার আগ্রহ ছোট বেলা থেকেই। ছোট বেলায় বাড়ির আঙ্গিনা কিংবা আশপাশ যেখানে জায়গা পেতো সেখানেই তিনি বিভিন্ন ধরণের গাছের চারা রোপন করতেন। ছোট বেলার শখকে তিনি একটি মডেল হিসেবে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন।

২০১৭ সালে বসতবাড়ির দ্বিতল ভবনের ছাদকে এখন তিনি জীবন্ত বাগানে পরিণত করেছেন। ছাদের কোথাও তিনি লাগিয়েছেন কমলা, মাল্টা, আপেল, কদবেল, বেদানা, লিচু, আমলকি, কাগুজী ও চায়না কাগুজী সহ বিভিন্ন প্রকার ফলের গাছ, কোথাও লাগিয়েছেন পেঁপে, মিষ্টি কুমড়া, করেল্লা, শসা, কাকুড়, কয়েকটি প্রজাতির মরিচ সহ অনেক ধরণের সবজি, আবার কোথাও লাগিয়েছেন দোপাটি, রঙ্গন, জুঁই, হাসনাহেনা, গোলাপ, জবা, গাঁধা, রজনীগন্ধা, নীল অপারজিতা সহ বিভিন্ন প্রজাতির ফুলের গাছ।

ছাদের কোন অংশে আবার লাগিয়েছেন পাথর কুঁচি, কাল মেঘা, তুলসী, ডায়াবেটিকস নিয়ন্ত্রক গাছ সহ বিভিন্ন ধরণের ঔষধী গাছ। সবজি, ফল আর ফুলে ভরে গেছে ছাঁদের সমস্ত অংশ। দেখে বোঝার উপায় নেই এটি কোন ছাঁদ, নাকি সবুজ ফসলের মাঠ। সব ধরণের সবজি ও ফল কীটনাশক ব্যবহার না করেই এবং জৈবসার ব্যবহার করে উৎপাদন করছেন শিক্ষিকা মাহবুবা খাতুন

উৎপাদিত সবজি ও ফল নিজের পরিবারের চাহিদা পুরণ করে অতিরিক্ত ফল ও সবজি আত্মীয় স্বজনের মাঝে বন্টন করেন বলেও তিনি জানান।

মাহবুবা শিক্ষকতা ও স্কুল পড়ুয়া সন্তানের যত্ন নেওয়ার পাশাপাশি অতিরিক্ত সময় তিনি বাগান পরিচর্যার কাজে ব্যবহার করেন।

এ ব্যাপারে শিক্ষিকা মাহবুবা খাতুন জানান, ছোট বেলা থেকেই বাগান করা আমার শখ। আমার বাসার সাথে তেমন ফসলি জায়গা না থাকায় ছাঁদে বাগান করা শুরু করি। প্রতিদিন সকাল ৫টার দিকে এবং স্কুল থেকে ফিরে বিকেলে এক দেড় ঘন্টা করে বাগানের পরিচর্যার কাজ করি।

গত ৩/৪ বছরের ব্যবধানে ছাঁদ ছেয়ে গেছে সবজি ও ফল-মূলে। আমার পরিবারের চাহিদা পূরণ করে অনেক সবজি ও ফলমূল অতিরিক্ত থেকে যায়। প্রতিদিন লোকজন যখন আমার বাগান দেখতে আসে তখন একদিকে খুব ভালো লাগে। অপরদিকে নিজেকে মনে হয় ছাদ বাগান করে আমি মনে হয় সফল হয়েছি।

ভবিষ্যতে ছাদে ড্রেনেজ সিষ্টেম ও বাড়ির সামনে বড় পরিসরে বাগান করার পরিকল্পনা রয়েছে বলে ঐ শিক্ষিকা জানান। মাহবুবা খাতুন ছাঁদ বাগান দেখে এলাকার অনেকেই এ ধরণের বাগান করার আগ্রহ প্রকাশ করছেন।

Please follow and like us:

পাঠক গনন যন্ত্র

  • 4666376আজকের পাঠক সংখ্যা::
  • 1এখন আমাদের সাথে আছেন::

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৮৮০৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com নিউজ রুম।

Email-Cvnayaalo@gmail.com সিভি জমা।

 

 

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET