২৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার, ১৪ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২১শে সফর, ১৪৪৩ হিজরি

শিরোনামঃ-

স্বামীকে হত্যা করে মাটি চাপা দিয়েছে স্ত্রী ও সন্তান

Khorshed Alam Chowdhury

আপডেট টাইম : মে ০২ ২০১৬, ১৩:৪৪ | 712 বার পঠিত

3_22560চাঁদপুর প্রতিনিধি-

শাহরাস্তিতে স্বামীকে হত্যা করে সন্তানের সহযোগিতায় মাটি চাপা দিয়েছে পাষ- স্ত্রী। নির্মম এ ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার মেহের উত্তর ইউনিয়নের নয়নপুর বেপারী বাড়ি প্রকাশ নতুন বাড়িতে। এ ঘটনার ১৬ দিন পর গতকাল শনিবার স্ত্রীর স্বীকারোক্তি মতে বাড়ির পার্শ্ববর্তী জমির মাটির নিচ থেকে গলিত লাশ উত্তোলন করে পুলিশ।

ঘটনার বিবরণে জানা যায়, ওই বাড়ির মৃত আঃ হাকিমের পুত্র মোঃ জামাল হোসেন (৪০) গত ১৪ এপ্রিল নিখোঁজ হয়েছে মর্মে তার স্ত্রী ফাতেমা বেগম হ্যাপি (৩৫) গত ২৮ এপ্রিল বৃহস্পতিবার শাহরাস্তি মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। যার নং-১০৭৬। ডায়েরি করার পর থানা পুলিশ নিখোঁজ ব্যক্তির সন্ধানের জন্যে বিভিন্ন থানাকে অবহিত করে। তবে পুলিশের বিষয়টি সন্দেহজনক মনে হলে পুলিশ ভিন্ন কৌশল অবলম্বন করে। অপরদিকে ফাতেমা বেগম ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে তার এক নিকটাত্মীয় আমির হোসেনের শরণাপন্ন হয়। আমির হোসেন ফাতেমার সাথে কথা বলে কিছুটা অনুমান করতে পেরে শাহরাস্তি মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মিজানুর রহমানকে বিষয়টি জানান। পরে শাহরাস্তি গেইট দোয়াভাঙ্গা এলাকায় আমির হোসেন ফাতেমা বেগমকে কৌশলে ডেকে থানা হতে সাধারণ ডায়েরি উত্তোলনের নাম করে অফিসার ইনচার্জ মিজানুর রহমানের পরিচয় গোপন করে তার সাথে থানায় পাঠিয়ে দেন। এরপর অফিসার ইনচার্জ থানায় এনে তাকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে সে হত্যার কথা স্বীকার করে এবং লাশ কীভাবে মাটি চাপা দেয়া হয়েছে তার বিবরণ দেয়। তার স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে শাহরাস্তি মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ মিজানুর রহমান, উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোঃ আবদুল মান্নান, মোঃ নিজাম উদ্দিন, সমীর মজুমদার ও মোঃ কামাল হোসেন সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে বাড়ির পশ্চিম পাশের জমিতে গর্ত খুঁড়ে গলিত লাশ উত্তোলন করেন। এ সংবাদ চারদিকে ছড়িয়ে পড়লে হাজার হাজার নারী-পুরুষ ঘটনাস্থলে ভীড় জমায়।

এদিকে নিহতের ভাই আজাদ হোসেন জানান, আমার ভাই ১ পুত্র ও ২ কন্যা সন্তানের জনক। আমার ভাবীর পরকীয়ার জেরে বিভিন্ন সময় ভাইয়ের সাথে ভাবীর বাগ্বিত-া হতো। তার পরকীয়ার কারণেই আমার ভাই এ নির্মম হত্যার শিকার হয়েছেন।

এ বিষয়ে শাহরাস্তি মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ মিজানুর রহমান জানান, প্রাথমিক স্বীকারোক্তিতে ফাতেমা জানায়, ঘটনার রাতে তার স্বামীর জন্ডিসের ঔষধের সাথে ৮টি ঘুমের ঔষধ মিশিয়ে খাইয়ে দেয়। এরপর স্বামী গভীর ঘুমে থাকাবস্থায় বালিশ চাপা দিয়ে তাকে হত্যা করে হাত-পা বেঁধে ফেলে। পরে পাশের ঘরে ঘুমিয়ে থাকা তার ৯ম শ্রেণিতে পড়ুয়া পুত্র জাহিদুল ইসলাম ফাহিমকে (১৩) ডেকে তোলে তার বাবা আত্মহত্যা করেছে বলে জানায়। দিনের বেলায় স্থানীয়দের বিষয়টি বিশ্বাস করাতে পারবে না বলে রাতেই বাড়ির পশ্চিম পাশের জমিতে মাটি চাপা দিবে বলে ছেলেকে রাজি করে। এরপর মা ও ছেলে দুজনে মিলে তার লাশ মাটি চাপা দেয়। এ ঘটনায় স্ত্রী ফাতেমা বেগম হ্যাপী ও ছেলে থানায় আটক রয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্যে চাঁদপুর মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় হত্যা মামলার প্রস্তুতি চলছে।

Please follow and like us:

পাঠক গনন যন্ত্র

  • 4730043আজকের পাঠক সংখ্যা::
  • 2এখন আমাদের সাথে আছেন::

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৮৮০৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com নিউজ রুম।

Email-Cvnayaalo@gmail.com সিভি জমা।

 

 

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET