২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার, ৬ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৩ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি

শিরোনামঃ-
  • হোম
  • দেশজুড়ে
  • প্রথম দিনেই ছাত্রীদের উৎসবমূখর পদচারণ ছিল তাহিরপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ

প্রথম দিনেই ছাত্রীদের উৎসবমূখর পদচারণ ছিল তাহিরপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, নয়া আলো।

আপডেট টাইম : সেপ্টেম্বর ১২ ২০২১, ২৩:২৯ | 743 বার পঠিত

সোহেল আহমদ সাজু, বিশেষ প্রতিনিধি,সুনামগঞ্জ জেলার তাহিরপুর উপজেলা সদরে অবস্থিত অন্যতম শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান তাহিরপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ।

দীর্ঘ দেড় বছর পর সরকারি নির্দেশে স্কুল কলেজের পাশাপাশি মাদ্রাসা গুলোকেও সংশ্লিষ্ট অধিদপ্তর থেকে ২২ টি শর্ত দিয়ে খুলে দেওয়া হয়। তারই পরিপ্রেক্ষিতে দরজা খুলেছে তাহিরপুর উপজেলা সদরে অবস্থিত অন্যতম নারী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান তাহিরপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ।

রোববার (১২ সেপ্টেম্বর) সকাল ১০ টা থেকে শুরু হয় স্কুল এন্ড কলেজটির শ্রেণিকার্যক্রম। সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, সকাল থেকে দলে দলে ছাত্রীরা বিদ্যালয়ে প্রবেশ করছে।

দীর্ঘ দিন পর এসে নিজের সহপাঠিদের সাথে প্রতিষ্ঠানের ভবন গুলোর বারান্দায় দাঁড়িয়ে আড্ডা দিতে দেখা যায়।

এদিকে বিদ্যালয়ের শ্রেণি গুলোত ছাত্রীদের হই হল্লুর ছিল চোখে পড়ার মত। যদিও পাশের একটি শ্রেণিকক্ষে বেঞ্চ প্রতি দুজন করে বসে মনযোগী হয়ে লিখতে দেখা যায়।

বিদ্যালয়ের গেইটে স্বাস্থ্য বিধি নিশ্চিতে মাস্ক পড়তে বলা হলেও তার পাশাপাশি হাত ধোঁয়ার বেসিন স্থাপন বা তাপমাত্রা পরিমাপ করা উপকরণ ছিল পর্যাপ্ত।

নিজের মেয়েকে ক্লাসে দিয়ে বাহিরে অপেক্ষায় করা একজন মা’য়ের কাছে বিদ্যালয় খোলার অনুভূতি জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘অনেকদির পর বিদ্যালয় খুলেছে। অনেক ভাল লাগছে। বিদ্যালয় বন্ধ থাকাতে অনেক জ্বালাই ছিলাম। আমার তিন সন্তান এ বিদ্যালয়ে পড়ে। তারা বিদ্যালয় খোলার খুশিতে রাতে ভাল করে ঘুমাইনিও।’

বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষে স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত কতটা সন্তুষ্ট? এমন প্রশ্নের জমাবে অন্য এক অভিভাবক জানান, ‘প্রথম দিনে যা দেখেছি, তাতে তো ভালই লাগছে। স্বাস্থ্যসুরক্ষা নিশ্চিত করে মেয়েরা বিদ্যালয়ে পাঠানো সেটি নিজেদের দায়িত্ব।’

অরুনিমা নামের নবম শ্রেণির এক ছাত্রী হাস্যোজ্জ্বল মুখে বলেন, ‘বিদ্যালয় খুলেছে শুনে আমাদের ক্লাশ কবে তার খবর নিতে এসেছি। অনেকদির পর স্যারদেরকেও দেখলাম।’

সুমাইয়া নামের ৮ম শ্রেণির এক শিক্ষার্থী বলেন, ‘অনেকদিন পর বিদ্যালয় খোলেছে তাই দেখতে আসছি, বুধবার আমাদের ক্লাশ হবে সে বিষয়েও খবর নিলাম। বিদ্যালয় বন্ধ থাকার কারণে আমাদের পড়ালেখার অনেক ক্ষতি হয়েছে। তখন শুধু টিউশনি করেছি। আমরা চেষ্টা করবো স্বাস্থ্যবিধি মেনে বিদ্যালয়ে আসতে।’

প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ মোঃ ইয়াহিয়া তালুকদার বলেন, ‘আল্লাহর অশেষ রহমত আমরা ক্লাশ শুরু করতে পেরেছি। সরকারি মিধি মোতাবেক আমরা ছাত্রীদের তাপমাত্রা পরিমাপ করে দেখছি, হ্যান্ড স্যানিটাইজার দিচ্ছি। আমরা এক সপ্তাহ ধরে প্রতিষ্ঠানের শ্রেণিকক্ষ গুলো পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন করেছি। সরকারি নির্দেশে পাঠদান দিচ্ছি। ছাত্রীদের আমরা কাছে পেয়ে অনেক খুশি এবং শুকরিয়া আদায় করছি। ছাত্রীদের পড়ালেখা করার সুযোগ দিয়েছেন তাই সরকারকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।’

প্রতি বেঞ্চে দুজন করে ছাত্র বসানোর বিষয়ে জানতে চাইলে বলেন তিনি, ‘আমাদের ছাত্রী বেশি হওয়াতে দুজন করে বসাতে হয়েছে। তাছাড়া আমাদের বেঞ্চ গুলো আকারে বড়।’

এদিকে দীর্ঘ দিন পর বিদ্যালয় খোলার খবরে গ্রামে চলে যাওয়া শিক্শার্থীরা সকাল থেকে স্কুল ড্রেস ও স্কুল ব্যাগ

নিয়ে বিদ্যালয়ে আসতে দেখা গেছে। তারা ব্যাপক উৎসাহ উদ্দিপনায় বিদ্যালয়ে প্রবেশ করে। এবং শিক্ষকদের সাথে কোশল বিনিময় করেন। বলতে গেলে প্রথম দিনেই ছাত্রীদের পদচারণে উৎসব মূখর ছিল তাহিরপুরের এ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণ।

Please follow and like us:

পাঠক গনন যন্ত্র

  • 4723830আজকের পাঠক সংখ্যা::
  • 3এখন আমাদের সাথে আছেন::

সর্বশেষ খবর

এ বিভাগের আরও খবর

প্রধান সম্পাদক- খোরশেদ আলম চৌধুরী, সম্পাদক- আশরাফুল ইসলাম জয়,  উপদেষ্টা সম্পাদক- নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

প্রধান সম্পাদক কর্তৃক  প্রচারিত ও প্রকাশিত

ঢাকা অফিস : রোড # ১৩, নিকুঞ্জ - ২, খিলক্ষেত, ঢাকা-১২২৯,

সম্পাদক - ০১৫২১৩৬৯৭২৭,০১৮৮০৯২০৭১৩

Email-dailynayaalo@gmail.com নিউজ রুম।

Email-Cvnayaalo@gmail.com সিভি জমা।

 

 

সাইট উন্নয়নেঃ ICTSYLHET